মায়ের জন্য সাহায্যপ্রার্থী কিশোরকে বলাৎ’কার, ইমাম গ্রেপ্তার

0

সময় এখন ডেস্ক:

এক কিশোরকে বলাৎ’কারের দায়ে দায়ের করা মামলায় আবদুল্লাহ আল হাদি (৩২) নামে এক ইমামকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তিনি মোহাম্মদপুরের শহীদ পার্ক কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের ইমাম।

তাকে মঙ্গলবার রাতে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন মোহাম্মদপুর থানার ওসি আবদুল লতিফ। ওসি জানান, শ্যামলীর একটি মাদ্রাসার ছাত্র ১৪ বছর বয়সী এক কিশোর মঙ্গলবার ইমাম আবদুল্লাহ আল হাদির বিরু’দ্ধে মামলা করে। এরপর এদিন রাতেই হাদিকে গ্রেপ্তার করা হয়।

মামলার এজাহারের বরাত দিয়ে ওসি বলেন, ওই কিশোরের মা দীর্ঘদিন ধরে অ’সুস্থ। বিভিন্ন মানুষের কাছ থেকে আর্থিক সাহায্য নিয়ে সে তার মায়ের চিকিৎসার খরচ চালাত। ওই মাদ্রাসা থেকেও সে সহযোগিতা পেয়েছে।

মাদ্রাসার এক শিক্ষকের মাধ্যমে ওই কিশোর সাহায্যের আশায় সোমবার দুপুরে শহীদ পার্ক জামে মসজিদের ইমামের কাছে যায়। ওইদিন জোহরের নামাজের পর নামাজে আসা লোকজন তাকে কিছু সাহায্য করে।

ইমাম হাদি আরও সাহায্য করার কথা বলে মঙ্গলবার ভোরে ওই কিশোরকে তার কাছে আসতে বলে। ফজরের নামাজের পর ওই কিশোরকে ইমাম তার রুমে নিয়ে যায়। পরে শরীর মালিশ করার নামে তিনি জোর করে তাকে বলাৎ’কার করেন।

সমাজতন্ত্র অনুসারে কোরআন ও বাইবেল নতুন করে লিখবে চীন

সমাজতন্ত্রের ভিত্তিতে মুসলমান ও খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীদের পবিত্র বিবেচিত ধর্মগ্রন্থ কোরআন ও বাইবেল-কে নতুন রূপে লেখার উদ্যোগ নিয়েছে বিশ্বের ক্ষমতাশীল রাষ্ট্র পিপলস রিপাবলিক অব চায়না।

দেশটির ক্ষমতাসীন কমিউনিস্ট পার্টির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, তাদের সমাজতান্ত্রিক মূল্যবোধের আলোকে প্রধান প্রধান ধর্মগ্রন্থগুলোর সব অনুবাদ নতুন করে লেখা হবে। গতকাল মঙ্গলবার (২৪ ডিসেম্বর) এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম দ্য ডেইলি মেইল।

প্রতিবেদনটিতে বলা হয়, গত নভেম্বরে চীনে ধর্মীয় বিষয়াদি দেখাশোনার দায়িত্বে থাকা জাতিতত্ত্ব বিষয়ক কমিটির এক সভায় সংশ্লিষ্টদের এই নির্দেশ দেওয়া হয়। তবে এতে কোরআন বা বাইবেলের কথা সরাসরি উল্লেখ না করলেও বেইজিং বলছে, প্রধান ধর্মগ্রন্থগুলোর নতুন সংস্করণে সমাজতন্ত্রের সঙ্গে সাংঘ’র্ষিক কোনও উপাদান থাকবে না।

চীনা কমিউনিস্ট পার্টির একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা জানান, প্রধান ধর্মগ্রন্থগুলোর সব অনুবাদ পুনরায় মূল্যায়ন করা হবে। অর্থাৎ সংযোজন বিয়োজন করা হবে। এ গ্রন্থগুলোর নতুন সংস্করণে সমাজতন্ত্রের সঙ্গে সাংঘ’র্ষিক কোনও তথ্য রাখা হবে না। কোনও অনুচ্ছেদ ভুল মনে হলে সেন্সর বোর্ড সেগুলো সংশোধন বা পুনরায় অনুবাদ করবে।

চীনের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত মাসে কমিউনিস্ট পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সঙ্গে বিভিন্ন ধর্মের প্রতিনিধি, ধর্মবিশ্বাসী ও বিশেষজ্ঞদের ১৬ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দলের বৈঠক হয়। চীন সরকারের পলিটিক্যাল কনস্যুলেটিভ কনফারেন্সের চেয়ারম্যান ওয়াং ইয়াংয়ের তত্ত্বাবধানে ওই বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয়। এ মাসের গোড়ার দিকে ম্যাকাওতে এক অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে বিষয়টির প্রতি ইঙ্গিত করেন দেশটির প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং।

মঙ্গলবার ওয়াং ইয়াংয়ের বরাত দিয়ে ফরাসি সংবাদমাধ্যম লে ফিগারো জানিয়েছে, প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী যুগের চাহিদা ও সমাজতান্ত্রিক মূল্যবোধের ভিত্তিতে বিভিন্ন ধর্মের তত্ত্ব ব্যাখ্যা দেবে চীনা ধর্মীয় কর্তৃপক্ষ।

এদিকে কোরআন এর পরিবর্তন বিষয়ে সংবাদ প্রচারিত হওয়ার পর আনুষ্ঠানিক কোনো প্রতিক্রিয়া দেখায়নি মুসলমান অধ্যুষিত দেশগুলো। ওআইসিসহ কোনো মুসলিম সম্প্রদায়ের বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থাও নীরবতা পালন করছে।

শেয়ার করুন !
  • 4.8K
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!