অবশেষে গদি ছাড়ছেন ইসলামিক ফাউন্ডেশনের ডিজি

0

সময় এখন ডেস্ক:

অবশেষে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের (ইফা) মহাপরিচালক (ডিজি) পদ থেকে বিদায় নিচ্ছেন সামীম মোহাম্মদ আফজাল। তার স্থলে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মু. আঃ হামিদ জমাদ্দারকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। আজ সোমবার ৩০ ডিসেম্বর এ সংক্রান্ত অফিস আদেশ জারি করে ধর্ম মন্ত্রণালয়।

২০০৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে ইফায় নিয়োগ পেয়েছিলেন জেলা জজ সামীম আফজাল। পরে ২ দফা তাকে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দেওয়া হয়। সোমবার ৩০ ডিসেম্বর তার চুক্তির মেয়াদ শেষ হয়েছে। আরো এক মেয়াদে নিয়োগ পেতে তিনি আগ্রহী ছিলেন।

মহাপরিচালক (ডিজি) পদে থেকে সামীম আফজালের দুর্নীতি, অ’নিয়ম, নিয়োগ বাণিজ্যের অভিযোগে বহুবার খবরে শিরোনাম হয় ইফা। গত ১০ বছরের নিরীক্ষায় (অডিট) প্রতিষ্ঠানটিতে ৭৯৬ কোটি অ’নিয়মের তথ্য পাওয়া গেছে। অভিযোগের তীর সামীম আফজালের দিকে। ইতিমধ্যে ইফার ৯ সাবেক ও বর্তমান কর্মকর্তার বেতন ভাতার তথ্য তলব করেছে দুদক।

পড়ুন: কোরআন না ছাপিয়ে ১৭ কোটি টাকা লোপাট ইসলামিক ফাউন্ডেশন ডিজির

চলতি বছরে সামীম আফজালের বিরু’দ্ধে নজিরবিহীন বিক্ষো’ভ করেন ইফার কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। তাদের অভিযোগ ছিল, ক্ষমতার অপ’ব্যবহার করছেন ডিজি। কর্মকর্তাদের কথায় কথায় শা’স্তি দেন সামীম আফজাল। বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের পিলার ভেঙে ফেলা আওয়ামী লীগ নেতার বিরু’দ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ায় একজন উপ-পরিচালককে বরাখা’স্ত করা হয়। ধর্ম প্রতিমন্ত্রীও মুখ খোলেন ডিজির বিপক্ষে। পরে ইফা বোর্ড অব গভর্নরস সামীম আফজালের ক্ষমতা খর্ব করে।

বিধি ভেঙে ভাগ্নে, ভাতিজা, শ্যালিকাসহ অর্ধশত আত্মীয়কে নিয়োগ, রাতের বেলায় পরীক্ষা নেওয়া, পরীক্ষায় পাস করা প্রার্থীকে বাদ দেওয়া, পরীক্ষা-বিজ্ঞপ্তি ছাড়াই ২৬৭ জনকে চাকরি দেওয়ার অভিযোগ মাথায় নিয়ে বিদায় নিতে হচ্ছে সামীম আফজালকে। নিরীক্ষায় তার বিরুদ্ধে পবিত্র কোরান না ছাপিয়ে সেই খাতের বিপুল টাকা আত্ম’সাতেরও প্রমাণ পাওয়া গেছে।

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আবদুল্লাহ বলেছেন, অডিট আপ’ত্তি এখনো নি’ষ্পত্তি হয়নি। যাদের বিরু’দ্ধে অভিযোগ রয়েছে, তাদের ব্যাপারে আইন ও চাকরিবিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। অবসরে গেলেও ছাড় পাবে না।

শেয়ার করুন !
  • 108
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply