মুজিববর্ষে ঢাকায় আসছেন আর্জেন্টাইন গ্রেট ম্যারাডোনা

0

স্পোর্টস ডেস্ক:

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে বছরব্যাপী নানা কর্মসূচি গ্রহণ করছে সরকার। এই বর্ষকে আকর্ষণীয় করে তুলতে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) এবং বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডসহ (বিসিবি) প্রায় প্রতিটি ফেডারেশন এবং অ্যাসোসিয়েশনও বিশেষ পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। যার মধ্যে অন্যতম আন্তর্জাতিক ম্যাচ কিংবা টুর্নামেন্ট আয়োজন।

এরই মধ্যে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন চিন্তা করছিল, আর্জেন্টাইন কিংবদন্তি, ফুটবলের রাজা নামে পরিচিত দিয়েগো ম্যারাডোনাকে প্রথমবারের মতো ঢাকায় আনা যায় কি না। অবশেষে বাফুফে তাদের সেই চেষ্টায় সফল হলো।

ম্যারাডোনার এজেন্টের সঙ্গে আলোচনা করে বাফুফে নিশ্চিত হয়েছে, মুজিববর্ষে ম্যারাডোনা ঢাকায় আসবেন। বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন আজ এ ঘোষণা দেন।

তবে কবে, কখন ম্যারাডোনা ঢাকায় আসছেন, সেটা নিশ্চিত হয়নি। ১৭ মার্চ থেকে যেহেতু শুরু হবে মুজিববর্ষ। বছরব্যাপী, তথা ২০২১ সালের মার্চ পর্যন্ত চলবে এই বর্ষের কার্যক্রম, এ সময়ের মধ্যেই যে কোনো সময় ম্যারাডোনাকে ঢাকায় আনা হবে। তবে বাফুফে জানিয়েছে, ম্যারাডোনার সুবিধাজনক সময় অনুযায়ী তার আগমনের সময় এবং সূচি ঠিক করা হবে।

শুধু এটুকু জানা গেছে, এক থেকে দুই রাতের বেশি তিনি ঢাকায় থাকবেন না। বাংলাদেশে ম্যারাডোনার যে সফরসূচি থাকবে, তার মধ্যে অন্যতম হবে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ। বাকিগুলো ম্যারাডোনার সফরে সময়ের দৈর্ঘ্য অনুসারে ঠিক করা হবে।

মাশরাফির অবসর নিয়ে ক্রিকেট বোর্ডের নানা ভাবনা

মাশরাফি বিন মুর্তজা সর্বশেষ টেস্ট খেলেছেন ১০ বছর আগে। ২০১৭ সালের এপ্রিলে শ্রীলঙ্কা সফরে টি২০ থেকে অবসর নেন। এখন কেবল ওয়ানডে খেলছেন ডানহাতি এ পেসার। তবে এখনও আনুষ্ঠানিকভাবে অবসর না নিলেও ভবিষ্যতে তার আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলার সম্ভাবনা অনেকের মতেই বেশ কম।

গত বিশ্বকাপের সময় থেকেই ওয়ানডে থেকেও তার বিদায়ের গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে। আনুষ্ঠানিকভাবে অবশ্য এখনও কিছু বলেননি রাজনীতিতে যোগ দিয়ে সংসদ সদস্য হওয়া মাশরাফি। অবসর নিয়ে কথা বলতে বিশ্বকাপের পর তার সঙ্গে বসেছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড।

তার বিদায়ী ম্যাচ হিসেবে আফগানিস্তানের বি’পক্ষে একটি ওয়ানডে ম্যাচ আয়োজনের প্রস্তাবও দেওয়া হয়েছিল বিসিবির পক্ষ থেকে; কিন্তু তিনি রাজি হননি। সহসা জাতীয় দলের কোনো ওয়ানডেও নেই। আগামী মে মাসে আয়ারল্যান্ডে ওয়ানডে খেলবে জাতীয় দল। ওই সিরিজে মাশরাফির খেলা নিয়েও সন্দেহ রয়েছে। ক’দিনের মধ্যে কেন্দ্রীয় চুক্তি প্রকাশ করবে বিসিবি। সেখানেও মাশরাফির না থাকার সম্ভবনাই বেশি।

চলমান বিপিএলে মাশরাফি খেলছেন। তবে ঘনিষ্ঠ অনেকের কাছে নাকি তিনি ইঙ্গিত দিয়েছেন, দেশের পক্ষে আর ওয়ানডে নাও খেলতে পারেন। অনেকটা অভিমান থেকেই নাকি তিনি ঘটা করে আনুষ্ঠানিক অবসরের পথে হাঁটতে চাইছেন না। তাহলে কি ৫ জুলাই লর্ডসে পাকিস্থানের বিপক্ষে খেলা ওয়ানডেই দেশের সবচেয়ে সফল অধিনায়কের শেষ ওয়ানডে হয়ে থাকল?

বিসিবি অবশ্য ঘরের মাঠে ঘটা করে মাশরাফিকে বিদায় দেওয়ার ব্যাপারে এখনও অ’বিচল। যদিও একরোখা হিসেবে খ্যাত মাশরাফি না চাইলে তাদের করার কিছু থাকবে না।

শেয়ার করুন !
  • 988
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!