আপডেট: নানকের শারীরিক অবস্থার সর্বশেষ

0

সময় এখন ডেস্ক:

হৃদরোগে আক্রা’ন্ত আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানককে ৪৮ ঘণ্টা পর্যবেক্ষণে রাখার সিদ্ধান্ত জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

নানক বর্তমানে ল্যাবএইড কার্ডিয়াক হাসপাতালের করোনারি কেয়ার ইউনিটে (সিসিইউ) চিকিৎসাধীন। তার চিকিৎসার তত্ত্বাবধানে রয়েছেন হাসপাতালটির অধ্যাপক ডা. লুৎফর রহমান এবং অধ্যাপক ডা. মাহবুবুর রহমান। তারা তাকে ৪৮ ঘণ্টা পর্যবেক্ষণ করবেন বলে নিশ্চিত করেছেন।

হাসপাতালে গিয়ে দেখা যায়, নানককে দেখতে আওয়ামী লীগের সিনিয়র ও ধানমন্ডির নেতাকর্মীরা হাসপাতালে ভিড় করেন।

চিকিৎসকের বরাত দিয়ে দলের নেতারা জানান, নানকের হার্টে দুটো ব্লক ধরা পড়েছে। একটি ৯০ ভাগ, অপরটি ৫০ ভাগ ব্লক। ইতোমধ্যে ৯০ ভাগ ব্লকটিতে রিং বসানো হয়েছে। অন্য ব্লকটি একই লাইনে থাকায় এটাতে রিং বসাতে হবে না। তবে তাকে ৪৮ ঘণ্টা পর্যবেক্ষণে রাখা হবে।

এর আগে সোমবার সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর বুকে ব্যথা অনুভূত হলে ল্যাবএইড কার্ডিয়াক হাসপাতালে যান তিনি। পরে এনজিওগ্রাম করা হলে (হৃদযন্ত্রের রক্তনালীতে) দু’টি ব্লক ধরা পড়ে।

আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য, সাবেক স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানকের ব্যক্তিগত সহকারি মোহাম্মদ বিপ্লব জানিয়েছেন, বুকে প্রচণ্ড ব্যথার কথা জানালে সোমবার সকাল ৯টার দিকে তাকে রাজধানীর ল্যাবএইড হাসপাতালে নেওয়া হয়।

বিপ্লব আরও বলেন, প্রথমে ইসিজি করার পর ডাক্তাররা এনজিওগ্রাম করার পরামর্শ দেন। এনজিওগ্রামের রিপোর্ট অনুযায়ী ডাক্তার বলেছেন, হার্টে দুটি ব্লক ধরা পড়েছে, তাৎক্ষণিক একটি রিং পরানো হয়েছে।

অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানকের শারীরিক অবস্থার বিষয়ে কথা হয় তার পরিবারের সাথে। নানককে উন্নত চিকিৎষার জন্য দেশের বাইরে নেয়া হতে পারে কি না- এমন প্রশ্নের জবাবে তারা বলেন, এই মুহূর্তে তাকে শিফট করা সম্ভব নয়। তার শারীরিক অবস্থার কিছুটা উন্নতি হলে, শ’ঙ্কা দূর হলে চিকিৎসকদের পরাশর্শ অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তাছাড়া তিনি নিজেই দেশে চিকিৎসার প্রতি আস্থাশীল। দেশের বাইরে চিকিৎসার ব্যাপারে তার আগ্রহ কখনই ছিল না- জানান পরিবারের সদস্যরা।

প্রসঙ্গত, আওয়ামী লীগের ২১তম জাতীয় সম্মেলনে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক থেকে পদোন্নতি পেয়ে সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য হন ছাত্রলীগ ও যুবলীগের সাবেক নেতা নানক।

শেয়ার করুন !
  • 134
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!