গত ১ দশকের রেকর্ড সর্বনিম্ন প্রবৃদ্ধি সিঙ্গাপুরের

0

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

গত ১ দশকের মধ্যে ২০১৯ সালে রেকর্ড সর্বনিম্ন গতিতে বেড়েছে সিঙ্গাপুরের অর্থনীতির পরিসর।

বৃহস্পতিবার প্রকাশিত প্রাথমিক তথ্য-উপাত্তের হিসাবে দেখা গেছে, রপ্তানিকেন্দ্রিক অর্থনীতির নগররাষ্ট্র সিঙ্গাপুরের ২০১৯ সালে মোট দেশজ উৎপাদন (জিডিপি) প্রবৃদ্ধি হয়েছে মাত্র ০.৭ শতাংশ।

বৃহস্পতিবার প্রকাশিত তথ্যে দেখা গেছে, গত বছর সিঙ্গাপুরের উৎপাদন খাতে ধীরগতি হয়েছে গত দশকের মধ্যে সর্বনিম্ন। বিশ্বের বৃহৎ অর্থনীতির দুই দেশ যুক্তরাষ্ট্র এবং চীনের মধ্যে বছরজুড়ে বাণিজ্য যু’দ্ধকে এর বড় কারণ হিসেবে দেখা হচ্ছে। এছাড়া বৈশ্বিক ইলেকট্রকিক্স খাতের ধীরগতির ও ওঠানামা আরও একটি বড় কারণ।

সিঙ্গাপুরের বার্ষিক জিডিপি প্রবৃদ্ধি ২০০৯ সালের পর ২০১৯ সালে প্রথম এত নিচে নামলো। ২০১৮ সালেও দেশটির প্রবৃদ্ধি ছিল ৩.১ শতাংশ। কর্তৃপক্ষ ধারণা করছে, ২০২০ সালে জিডিপি প্রবৃদ্ধি হবে ০.৫ থেকে ২.৫ শতাংশ। সিঙ্গাপুরের সবচেয়ে বড় ব্যাংক ডিবিএস অবশ্য বলছে, প্রবদ্ধি হবে, ১.৪ শতাংশ।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, দ্বীপরাষ্ট্র সিঙ্গাপুরে আগামী কয়েক মাসের মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া আগামী ১৮ ফেব্রুয়ারিতে প্রণয়ণ করা হবে নতুন বছরের বাজেট। বাজেটের আগে দেশটির অর্থনীতিবিদরা প্রবৃদ্ধির গতি বাড়াতে ‘উদার’ আর্থিক সহায়তার সন্ধানের ওপর জোর দিয়েছেন।

ডিবিএস ব্যাংকের অর্থনীতিবিদ ইরভিন সেয়াহ বলছেন, আমরা জিডিপি প্রবৃদ্ধির উন্নতি দেখলেও তা অর্থনীতিকে পুনরুদ্ধারের ক্ষেত্রে হবে খুব দুর্বল। আগামী মাসে সরকার বাজেট করতে যাচ্ছে এবং আশা করছি এটা খুব সম্ভবত উদার হবে।

তবে দেশটির বাণিজ্য মন্ত্রণালয় বলছে, ২০১৯ সালের ৪র্থ প্রান্তিক অর্থাৎ অক্টোবর থেকে ডিসেম্বরে গত বছরের একই সময়ের তুলনায় জিডিপি প্রবৃদ্ধি হয়েছে ০.৮ শতাংশ। বিশ্লেষকদের প্রত্যাশার সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে আগের ত্রৈমাসিকে সংশোধিত ০.৭ শতাংশের তুলনায় যা বেশি।

বছর শেষে নতুন বছরের আগে গত ৩১ ডিসেম্বর দেয়া এক বার্তায় সিঙ্গাপুরের প্রধানমন্ত্রী লি হেসেইর লুয় বলেন, বৈশ্বির অর্থনীতির ধীরগতি ইতোমধ্যে আমদেরকেও ক্ষ’তিগ্রস্ত করেছে। তবে এ বছর আমরা ম’ন্দা এড়াতে পেরেছি। আমাদের অর্থনীতির আকার এখনো বাড়ছে। কিন্তু তা আমাদের প্রত্যাশার তুলনায় কম।

শেয়ার করুন !
  • 27
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply