সতর্কতা: ঘন কুয়াশায় গাড়ি চালাতে যে বিষয়গুলো খেয়াল করবেন

0

লাইফ স্টাইল ডেস্ক:

গাড়ি চালানো নিঃসন্দেহে কঠিন ও ধৈর্য্যের বিষয়। বৃষ্টিতে কিংবা শীতের কুয়াশার ভেতরে গাড়ি চালানো আরও বেশি কঠিন। শীতের সময়ে ঘন কুয়াশার কারণে সবকিছু ঝাপসা লাগে। এ সময় কুয়াশার কারণে দুর্ঘটনাও ঘটতে পারে। তাই শীতে কুয়াশার ভেতরে গাড়ি চালানোর সময় থাকতে হবে সর্বোচ্চ সতর্ক।

জেনে নিন ঘন কুয়াশায় গাড়ি চালানোর সহজ কিছু উপায়-

ধীরে চালান: ঘন কুয়াশায় সুরক্ষিতভাবে গাড়ি চালাতে গাড়ির গতি নিয়ন্ত্রণে রাখুন। যে রাস্তায় অন্য সময় ৪০-৫০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টায় গাড়ি চালান, কুয়াশা থাকলে গতি কমিয়ে ২৫-৩০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা করে দিন। কম গতি থাকার কারণে কম জায়গায় ব্রেক করে গাড়ি দাঁড় করাতে পারবেন। দুর্ঘটনা এড়াতে আগে থেকে সতর্ক হতে পারবেন।

লেন পরিবর্তন করবেন না: কুয়াশায় কারণে গাড়ি চালানো সহজ মনে না হলেও, কখনো নিজের লেন পরিবর্তন করবেন না। এর ফলে সুরক্ষিতভাবে গাড়ি চালাতে পারবেন।

হ্যাজার্ড লাইট ব্যবহার করবেন না: ঘন কুয়াশায় গাড়ি চালাতে গিয়ে অনেকেই হ্যাজার্ড লাইট জ্বালানোর ভুল করেন। শুধুমাত্র গাড়ি দাঁড়িয়ে থাকার সময়েই এই আলো জ্বালাতে হয়। এর ফলে আপনি অন্য গাড়িকে ভুল সংকেত দিতে পারেন। যার ফলে দুর্ঘটনা হতে পারে।

ব্যবহার করুন ফগ লাইট: কুয়াশায় সুরক্ষিতভাবে গাড়ি চালাতে লো বিম অথবা ফগ লাইট ব্যবহার করুন। হাই বিম আলো ব্যবহার করলে কুয়াশার সময় কিছুই দেখতে পাবেন না। ফগ লাইট ব্যবহার করে গাড়ি চালানো সবচেয়ে সুরক্ষিত।

দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করুন: কুয়াশায় কিছু দেখতে না পেলে রাস্তার বাঁ দিকে সুরক্ষিত জায়গা দেখে সিগন্যাল লাইট জ্বালিয়ে দাঁড়িয়ে পড়ুন। এরপর কুয়াশা কমে আসার অপেক্ষা করুন।

মনে রাখবেন, শুধুমাত্র নিজের সচেতনতার কারনেই দুর্ঘটনার হার অনেকাংশে কমিয়ে আনা সম্ভব। সময়, অর্থ বা অন্য যে কোনো কিছুর চেয়ে আপনার জীবন অধিক মূল্যবান। নিজে নিরাপদ থাকুন, পরিবারকেও সুরক্ষা দিন।

শেয়ার করুন !
  • 47
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply