সারাদেশে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন সফল করার আহ্বান

0

সময় এখন ডেস্ক:

আগামী শনিবার (১১ জানুয়ারি) অনুষ্ঠেয় জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন সফল করার আহ্বান জানিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আবদুল হাই।

আজ বৃহস্পতিবার ডিএনসিসি নগর ভবনে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ আহ্বান জানান।

আব্দুল হাই বলেন, আগামী শনিবার সারাদেশে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন পালিত হবে। এই কার্যক্রমে ডিএনসিসি এলাকায় ৬ মাস থেকে ১১ মাস বয়সী শিশুদের ১টি করে নীল রঙের ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল এবং ১২ মাস থেকে ৫৯ মাস বয়সী সকল শিশুকে ১টি করে লাল রঙের ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল বিনামূল্যে খাওয়ানো হবে।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, ডিএনসিসির আওতাধীন ১ নম্বর ওয়ার্ড থেকে ৩৬ নম্বর ওয়ার্ডে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন ডিএনসিসি কর্তৃক এবং ৩৭ নম্বর ওয়ার্ড থেকে ৫৪ নম্বর ওয়ার্ডে ঢাকা সিভিল সার্জন অফিস কর্তৃক বাস্তবায়িত হবে।

আগামী শনিবার সকাল ১০টায় মিরপুর-১ এর মাজার রোড সংলগগ্ন নেকিবাড়িরটেক নগর মাতৃসদন থেকে ডিএনসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ক্যাম্পেইনের উদ্বোধন করবেন।

ডিএনসিসির প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোমিনুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে শিশুদেরকে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানোর ওপর একটি পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশন করেন উপ-প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা লে. কর্নেল মোস্তফা সারওয়ার।

সেখানে তিনি বলেন, শিশুর সুস্থভাবে বেঁচে থাকা, স্বাভাবিক বৃদ্ধি ও দৃষ্টি শক্তির জন্য ভিটামিন ‘এ’ সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ এক অনুপুষ্টি। ভিটামিন ‘এ’ চোখের স্বাভাবিক দৃষ্টি শক্তি ও শরীরের স্বাভাবিক বৃদ্ধি বজায় রাখে এবং বিভিন্ন রোগের বিরু’দ্ধে রোগ প্রতিরো’ধ ক্ষমতা তৈরি করে থাকে। ভিটামিন ‘এ’ এর অভাবে রাতকানাসহ চোখের অন্যান্য রোগ, শরীরের স্বাভাবিক বৃদ্ধি ব্যাহত হওয়া, রক্তশূন্যতা এমনকি শিশুর মৃ’ত্যুও হতে পারে।

বাংলাদেশ সরকারের স্বাস্থ্য নীতিমালা অনুযায়ী, বছরে ২ বার ভিটামিন ‘এ’ এর অভাব পূরণে সম্পূরক খাদ্য হিসেবে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানোর উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়। এ কার্যক্রমের অংশ হিসেবে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের ৫টি অঞ্চলের আওতাধীন ৩৬টি ওয়ার্ডে জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন আগামী ১১ জানুয়ারি পরিচালনা করা হবে।

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন এলাকায় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন উপলক্ষে ১১ জানুয়ারি মোট ১ হাজার ৪৯৯ কেন্দ্রে মোট ২ হাজার ৯৯৮ জন স্বাস্থ্য কর্মী-স্বেচ্ছাসেবী কাজ করবেন। ডিএনসিসি এলাকায় মোট ৫ লাখ ৮০ হাজার ১৯০ জন শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানোর লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।

শেয়ার করুন !
  • 20.5K
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply