গঞ্জিকা সেবনরত অবস্থায় ‘আগুন পীর’সহ আটক ৩

0

পাবনা প্রতিনিধি:

পাবনার চাটমোহরে গাঁ’জা সেবনরত অবস্থায় ‘আগুন পীর’ ও তার ২ সহযোগীকে আটক করেছে পুলিশ।

গতকাল শুক্রবার উপজেলার হান্ডিয়াল ইউনিয়নের বাঘলবাড়ি গ্রাম থেকে আটক করে পুলিশ।

আটককৃতরা হলেন- বাঘল বাড়ি গ্রামের কাশেম আলীর ছেলে আবদুস সাত্তার ওরফে আগুন পীর (৭০), তার ২ সহযোগী- বহিরগাতি গ্রামের দিরাজ উদ্দিনের ছেলে রশিদ হোসেন এবং স্থল গ্রামের ফজর আলীর ছেলে মোস্তাফিজুর রহমান (৩৪)।

জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে আবদুস সাত্তার বাড়ির পাশে আস্তানা করে নিজেকে ‘আগুন পীর’ দাবি করে মানুষের সঙ্গে প্র’তারণার পাশাপাশি সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত আসর বসিয়ে সবাইকে নিয়ে গাঁ’জা সেবন করে আসছিলেন।

খবর পেয়ে হান্ডিয়াল পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের পরিদর্শক এসএম মঈনুদ্দীন ও সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে গতকাল শুক্রবার ভোরে পীরের আস্তানায় অভিযান চালান।

এ সময় ভণ্ড পীর আবদুস সাত্তার ওরফে আগুন পীর কয়েকজন সহযোগীকে নিয়ে গাঁ’জা সেবন করছিলেন। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে অন্যরা পালিয়ে গেলেও আটক করা হয় ভণ্ড পীর ও তার ২ সহযোগীকে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে হান্ডিয়াল পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের পরিদর্শক এসএম মঈনুদ্দীন জানান, আবদুস সাত্তার ওরফে ‘আগুন পীর’ একজন প্র’তারক। তিনি এলাকার নিরীহ মানুষের সঙ্গে প্র’তারণা করে আসছিলেন এবং গাঁ’জার আসর বসিয়ে সবাইকে মা’দকের প্রতি আসক্ত’ করে ফেলেছিলেন।

এ বিষয়ে থানায় মামলা দায়েরের পর আটককৃতদের জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে বলে জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।

বিচি-ছাড়া লিচুর জাত উদ্ভাবন করলেন কৃষক

প্রায় ২০ বছরের গবেষণার পর বিচিবিহীন লিচুর জাত উদ্ভাবন করতে সক্ষম হয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার একজন কৃষক। চীন থেকে একটি লিচুর গাছ নিয়ে এসে শুরু হয়েছিল তার গবেষণা। এ প্রকল্পে ব্যয় হয় ৫ হাজার ডলার। এই কৃষকের নাম টিবি ডিক্সন।

কয়েক দশক ধরে তিনি একাধিক জাতের লিচুর জাত উদ্ভাবন করেন। তার সর্বশেষ উদ্ভাবন হলো- বিচিবিহীন লিচু। যাকে তিনি ‘খুব সুস্বাদু’ বলছেন। এর স্বাদ অনেকটা আনারসের মতো।

৪০ বছরের বেশি বয়সী এই কৃষক নিউজ চ্যানেল এবিসিকে বলেছেন, বিচিবিহীন এই জাত উদ্ভাবনে সফল না হওয়া পর্যন্ত তিনি চেষ্টা চালিয়ে যেতে থাকেন।

দীর্ঘ প্রচেষ্টায় লিচুর এই নতুন প্রজাতির উদ্ভাবন করা হয়েছে। চীন থেকে আমদানি করা ওই ছোট গাছ থেকে হয় ক্রস পরাগায়নের মাধ্যমে এটি করা হয়। যাতে লিচুর পুরুষ ফুলের পরাগ সংগ্রহ করা হয় এবং তা নারী ফুলের অংশের মধ্যে স্থানান্তর করা হয়।

শেয়ার করুন !
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!