মধ্য আকাশে মাতাল তরুণীর কাণ্ডে রেড অ্যালার্ট জারি!

0

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

বিমান তখন মাঝ আকাশে। হঠাৎই এক তরুণী যাত্রী বিমান সেবিকাকে ডেকে হাতে একটি চিরকুট দেন। দিয়ে বলেন, এটা ক্যাপ্টেনকে গিয়ে দিন, এখনই। চিরকুট হাতে পেয়ে, তা খুলে পড়ে পাইলটের তো চক্ষু চড়কগাছ। লেখা রয়েছে— ‘আমার শরীরের মধ্যে বো’মা ভরে এনেছি’।

পাইলট আর সময় ন’ষ্ট করেননি। সঙ্গে সঙ্গেই কলকাতার এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। কলকাতায় ফিরে যাওয়ার জরুরি অনুমতি চান। জারি হয়ে যায় রেড অ্যালার্ট।

শনিবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে কলকাতা থেকে মুম্বাইগামী এয়ার ইন্ডিয়ার একটি বিমানে। রাত ১০টা ১০ মিনিটে কলকাতার মাটি ছেড়ে ওড়া বিমান ফের কলকাতায় ফিরে আসে রাত সাড়ে ১১টা নাগাদ।

নিরাপত্তার স্বার্থে বিমানবন্দরের মূল ভবনের থেকে দূরে, বিচ্ছি’ন্ন একটি জায়গায় বিমানটিকে রাখা হয়। একে একে ওই তরুণীসহ ১১৪ জন যাত্রীকে নামিয়ে আনেন কেন্দ্রীয় শিল্প নিরাপত্তা বাহিনী বা সিআইএসএফের জওয়ানরা। তরুণীকে আলাদা করে তল্লাশি শুরু করেন সিআইএসএফের মহিলা কর্মীরা। কিন্তু কোনো বি’স্ফোরক বা সন্দেহজনক কিছু পাওয়া যায়নি তার শরীরে। বিমানেও আলাদা করে তল্লাশি করা হয়। সেখানেও পাওয়া যায়নি কিছুই।

প্রাথমিক তদন্তের পর সিআইএসএফ এবং বিধাননগর পুলিশের কর্তারা নিশ্চিন্ত হন যে, বো’মার ভুয়া আত’ঙ্কই ছড়িয়েছেন ওই যাত্রী। বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ এনএসসিবিআই থানার হাতে তুলে দেন ওই যাত্রীকে। রাতেই গ্রেপ্তার করা হয় সল্টলেকের বাসিন্দা বছর তেইশের ওই তরুণীকে।

প্রাথমিক তদন্তে জানা গিয়েছে, মাত্রারিক্ত মদ্য-পান করে বিমানে উঠেছিলেন ওই তরুণী। আর সেই ঝোঁকেই বো’মাতঙ্ক ছড়ান। সল্টলেকের বিএফ ব্লকের বাসিন্দা ওই তরুণী বিবিএ-র ছাত্রী। বাবা ব্যবসায়ী।

পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই তরুণীর হবু স্বামী থাকেন মুম্বাইয়ে। হবু শ্বশুর হাসপাতালে ভর্তি। তাকে দেখতেই মুম্বাই যাচ্ছিলেন ওই তরুণী। শনিবার তিনি বাড়ি থেকে রাত ৮টায় বেরোন বলে জানিয়েছে তার পরিবার।

সেখান থেকে পুলিশের অনুমান, হয় গাড়িতে নয়তো এয়ারপোর্টে এসে মদ্য-পান করেন ওই তরুণী। সূত্রের খবর, পুলিশকে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, মাত্রাতিরিক্ত অ্যালকোহল পাওয়া গিয়েছে ওই তরুণীর রক্তে।

রবিবার ব্যারাকপুর আদালতে তোলা হয় অভিযুক্তকে।

শেয়ার করুন !
  • 91
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!