প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপে জোড়া শিশু রাবেয়া-রোকেয়া এখন সুস্থ

0

সময় এখন ডেস্ক:

প্রধানমন্ত্রীর প্রত্যক্ষ সহযোগিতা ও নজরদারিতে দীর্ঘ ও জটিল চিকিৎসা শেষে স্বাভাবিক জীবনে ফিরেছে পাবনার চাটমোহর উপজেলার সেই রাবেয়া-রোকেয়া। শিশু দুটির জোড়া মাথা আলাদা করার পর এখন ভাল আছে তারা। দুই সন্তান নিয়ে হাসিমুখে বাড়ি ফিরে গেছেন রফিকুল ইসলাম ও তাসলিমা খাতুন।

রাবেয়া-রোকেয়া ২০১৬ সালের ১৬ জুলাই পাবনার চাটমোহর উপজেলার রফিকুল ইসলাম ও তাসলিমা দম্পতির ঘরে মাথা জোড়া লাগা অবস্থায় জন্মগ্রহণ করে। গুরুতর এই ত্রু’টি নিয়ে ছোট্ট শিশু দুটি ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিল।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০১৮ সালের ২৪ অক্টোবর ‘শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউট’ উদ্বোধনকালে তাদের চিকিৎসার দায়িত্ব নেন। গঠন করা হয় মেডিকেল বোর্ড। চিকিৎসার জন্য তাদের হাঙ্গেরির বুদাপেস্টের একটি হাসপাতালে ৭ মাস রাখা হয়। বেশ কয়েক দফা অপারেশনও হয়েছিল শিশু দুটির।

সর্বশেষ, ২০১৯ সালের ২ আগস্ট ঢাকার সিএমএইচ হাসপাতালে ঘটে এক যুগান্তরকারী ঘটনা। দেশের বিশেষজ্ঞ ডাক্তার ছাড়াও হাঙ্গেরির ৩৫ জন বিশেষজ্ঞ ডাক্তার টানা ৩৩ ঘণ্টা অপারেশন চালিয়ে দুই বোনের জোড়া লাগা মাথা আলাদা করেন।

সেই সার্জারির পর সিএমএইচ হাসপাতালে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাবেয়া-রোকেয়াকে দেখে আসেন।

আর আজ তিনি শিশু দুটির সুস্থ জীবনে ফিরে যাওয়ার কথা জানান। রবিবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে ফাস্ট ট্র্যাক প্রজেক্ট মনিটরিং কমিটির সভার শুরুতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাদের ছবি সবাইকে দেখিয়ে বলেন, ‘আমাদের রাবেয়া-রোকেয়া ভাল আছে’।

এন্ড্রু কিশোরের চিকিৎসার পুরো দায়িত্ব নিলেন প্রধানমন্ত্রী

ক্যান্সারে আক্রা’ন্ত সঙ্গীত শিল্পী এন্ড্রু কিশোরের চিকিৎসায় পূর্ণ সহায়তা দেয়ার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শিল্পীর চিকিৎসার পুরো বিষয়টি তদারকি করার জন্য আজ রবিবার দুপুরে সিঙ্গাপুর দূতাবাসকে এই সংক্রান্ত নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। বিষয়টি প্রধানমন্ত্রীর উপ প্রেস সচিব আশরাফুল আলম খোকন নিশ্চিত করেছেন।

সম্প্রতি শারীরিক কিছু জটিলতার কারণে গত ১ মাস এন্ড্রু কিশোরকে কেমোথেরাপি দেওয়া বন্ধ রেখেছিলেন চিকিৎসক। জরুরি ভিত্তিকে কয়েক ব্যাগ রক্তও দিতে হয়েছে তাকে।

সর্বশেষ খবর জানা গেল শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়েছে এন্ড্রু কিশোরের। গতকাল শনিবার থেকে আবারও কেমোথেরাপি দেওয়া শুরু করেছেন চিকিৎসকরা। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন এন্ড্রু কিশোরের স্নেহভাজন কণ্ঠশিল্পী মোমিন বিশ্বাস।

তিনি বলেন, চিকিৎসার শুরুতে জানানো হয়েছিল, এন্ড্রু কিশোরকে ৬টি সাইকেলে ২৪টি কেমোথেরাপি দিতে হবে। ইতোমধ্যে তার ১৭টি কেমো সম্পন্ন হয়েছে। এবার শুরু হলো ১৮তম কেমোথেরাপিটি। এটা শেষ হলে আর এখনো ৬টি কেমো দেওয়া বাকি। আশা করা হচ্ছে চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে সবার মাঝে ফিরে আসবেন দাদা। তার পরিবার দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন।

এন্ড্রু কিশোরের কেমোথেরাপি নতুনভাবে শুরু ও চিকিৎসা চলাকালীন প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে এই খবর এলো।

শেয়ার করুন !
  • 1.2K
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!