বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর অ্যান্টি এয়ারক্রাফট গান টাইপ-৫৪ এইচএমজি

0

বিশেষ প্রতিবেদন:

ছবিতে যে অ’স্ত্রটা দেখা যাচ্ছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ব্যবহৃত সমরা’স্ত্র টাইপ-৫৪ এইচ এম জি (হেভি মেশিন গান)। বাংলাদেশ সেনাবাহিনী এর অন্যতম ব্যবহারকারী। আমাদের সেনাবাহিনীর কাছে বিপুল পরিমাণ টাইপ-৫৪ এইচ এম জি আছে।

এই অ’স্ত্রটি দিয়ে বিমান ধ্বং’স করা ছাড়াও বড় ধরনের প্র’তিরোধ গড়ে তোলা যায়। ঠেকিয়ে দেয়া যায় এগিয়ে আসা শ’ত্রুর বহর।

Type 54 HMG অ’স্ত্রটির ওজন (অ্যান্টি এয়ার সাইট, ম্যাগজিন বক্স ছাড়া) প্রায় ৩৪ কেজি। তাই এটি পরিচালনার জন্য একটি শক্তপোক্ত ট্রাইপডের দরকার। এই মেশিনগানে দুই ধরনের অ্যাম্যুনিশন ব্যবহার করা হয়। যার একটি হল- API (Armour Piercing), এবং আরেকটি হল APT (Armour Piercing Tracer) রাউন্ড।

এই হেভি মেশিনগানটি ১ হাজার ৬০০ মিটারের মধ্যে এয়ার থ্রেট, ৮০০ মিটারের মধ্য আর্মার্ড পার্সোনাল ক্যারিয়ার এবং ৩ হাজার ৩০০ মিটারের মধ্যে ইনফ্যান্ট্রি (পদাতিক সৈন্য) এর মোকাবেলা করতে সক্ষম। যদিও এই মেশিনগানের সাহয্যে ফায়ার হওয়া বুলেট প্রায় ৭ হাজার মিটার দূর পর্যন্ত পৌছাতে পারে। তবে এক্ষেত্রে কিল প্রবাবিলিটি নাই বললেই চলে।

এই হেভি মেশিনগানটি একইসাথে এর রেঞ্জের মধ্যে অ্যান্টি এয়ারক্রাফট রোলেও সমান পারদর্শী। চীনের তৈরী এই হেভি মেশিনগানটি রাশিয়ার তৈরী DSHK হেভি মেশিনগানের চাইনিজ ভার্সন।

এই ওয়েপনটির রেট অব ফায়ার অনেক হাই। প্রতি মিনিটে ৬০০ রাউন্ড ঝেড়ে দেওয়ার ধ্বং’সাত্বক ক্ষমতা তো রয়েছেই। শ’ত্রু বুলেটপ্রুফ গাড়িতেই থাকুক বা ইটের দেয়ালের ওপাশে, গানারের টার্গেটে যদি পড়ে, স্রেফ ঝাঁঝরা করে ছেড়ে দিবে।

ওয়েপনটির ক্ষমতা সম্পর্কে একটি উল্লেখযোগ্য ঘটনার বর্ণনা দেয়া যায়। ১৯৮৮ সালে নর্দার্ন আয়ারল্যান্ডে কনফ্লিক্ট চলাকালীন Provisional IRA নামে একটি বিদ্রোহী গ্রুপ ব্রিটিশ আর্মির একটি Westland Lynx হেলিকপ্টার হাইজ্যাক করে আকাশে উড়াল দেয়।

বেচারা হাইজ্যাকার দলটি পড়ে যায় DSHK (রাশিয়ান ভার্সন) হেভি মেশিনগানের সামনে। দক্ষ গানার মাত্র ১৫টি বুলেট ছুঁড়েই চপারটি শ্যুটডাউন করে। সুতরাং এর রেঞ্জে আসা মানেই খেল খতম।

© ডিফেন্স রিসার্চ ফোরাম

শেয়ার করুন !
  • 1.3K
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!