সিরিজের আগে পাকিস্থানে সরঞ্জামসহ জ’ঙ্গি আটক, শ’ঙ্কায় বিসিবি

0

স্পোর্টস ডেস্ক:

পাকিস্থানের বিপক্ষে ৩ ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে আগামীকাল বুধবার (২২ জানুয়ারি) দেশ ছাড়ার কথা রয়েছে বাংলাদেশ দলের। সিরিজের ৩টি ম্যাচই অনুষ্ঠিত হবে লাহোরে। সিরিজ শুরুর আগে পাঞ্জাব প্রদেশ থেকে ৩ ভ’য়ানক জ’ঙ্গিকে বি’স্ফোরকসহ আটক করেছে স্থানীয় নিরাপত্তাবাহিনী।

এমনটাই জানিয়েছে পাকিস্থানের শীর্ষ স্থানীয় সংবাদমাধ্যম দ্য নিউজ ইন্টারন্যাশনাল। পাঞ্জাব প্রদেশকে সুরক্ষিত রাখতে ইন্টিলিজেন্স-বেজড অপারেশন চালু করেছে পাকিস্থান। মূলত এই অপারেশনেই ধরা পড়েছে ৩ জ’ঙ্গি।

এই বিষয়টি নিশ্চিত করেছে পাঞ্জাবের আইজিপি শোয়েব দস্তগির। ইতোমধ্যে এই ৩ জ’ঙ্গির নাম ঘোষণা করেছে স্থানীয় নিরাপত্তাবাহিনী। তারা হলো- মোহাম্মদ ইমরান, মোহাম্মদ আবিদ সোহাইল ও মোহাম্মদ রাজা।

সিটিডি বাহাওয়ালাঙ্গার টিম তাদের হারুনাবাদ বাইপাস থেকে আটক করে। এই ৩ জ’ঙ্গির সঙ্গে থাকা বিপুর পরিমাণে বি’স্ফোরক দ্রব্যাদি উদ্ধার করা হয়েছে। তাদের পরিকল্পনা ছিল বাহাওয়ালাঙ্গারে জ’ঙ্গি হাম’লার।

পাঞ্জাবের রাজধানী লাহোরের মাটিতেই সিরিজ খেলতে চলেছে বাংলাদেশ। যদিও পাকিস্থানের পক্ষ থেকে বাংলাদেশকে পর্যাপ্ত নিরাপত্তার আশ্বাস দেয়া হয়েছে। তারপরও সিরিজ শুরুর আগে এই সন্ত্রা’সীদের উপস্থিতি বাংলাদেশকে শ’ঙ্কিত করে তুলেছে।

বাংলাদেশের বিপক্ষে পাকিস্থানের প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচটি হবে আগামী ২৪ জানুয়ারি। এরপর ২৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে ২য় টি-টোয়েন্টি ম্যাচটি। সিরিজের শেষ ম্যাচটি মাঠে গড়াবে আগামী ২৫ জানুয়ারি।

যুক্তরাষ্ট্রে পারমাণবিক অ’স্ত্র প্রযুক্তি হাতাতে গিয়ে ৫ পাকিস্থানি আটক

প্রযুক্তি চুরির অভিযোগে ফের বিপাকে পাকিস্থানে ইমরান খানের সরকার। পারমাণবিক অ’স্ত্র ও ক্ষেপণা’স্ত্র তৈরির প্রযুক্তি চুরি করতে গিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের কাছে হাতেনাতে আটক হয়েছে ৫ পাকিস্থানি ব্যবসায়ী।

রাওয়ালপিন্ডির একটি সংস্থা ‘বিজনেস ওয়ার্ল্ড’ এর ৫ কর্মকর্তাকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের হোমল্যান্ড সিকিউরিটি কর্তৃপক্ষ গ্রেপ্তার করেছে। এই ঘটনায় কূটনৈতিক মহলে তীব্র চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে।

জানা গেছে, আটক হওয়া ওই ৫ ব্যবসায়ী কানাডা, হংকং ও ইংল্যান্ডে থাকতেন। একটি আন্তর্জাতিক চক্রের মাধ্যমে পাকিস্থান অ্যাটমিক এনার্জি কমিশনকে তারা বিভিন্ন দেশের প্রযুক্তি সরবরাহ করে থাকে। এবার মার্কিন প্রযুক্তি সরবরাহ করতে গিয়েই ধরা পড়ে যায় ওই ৫ ব্যবসায়ী।

যুক্তরাষ্ট্রের নিরাপত্তা সংক্রান্ত অ্যাসিস্ট্যান্ট অ্যাটর্নি জেনারেল জন সি ডেমার্স এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, অভিযুক্ত ব্যবসায়ীরা এমন জিনিস চুরি করতে যেয়ে আটক হয়েছে, যার ফলে পাকিস্থানের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের অ’স্ত্র চুক্তির বিষয়টি খুবই বিপ’জ্জনক হয়ে যাবে।

আন্তর্জাতিক মহলের ধারনায় সেই অর্থে পাকিস্থানের নিজস্ব কোনও পরমাণু প্রযুক্তি নেই। পুরোটাই অন্যান্য দেশের প্রযুক্তি চুরি করে তৈরি হয়েছে পাকিস্থানের সমস্ত যু’দ্ধাস্ত্র।

আর এবার সেই ঘটনাই গোটা বিশ্বের সামনে এল। পাকিস্থানের এই প্রযুক্তি চুরির বিষয়টি নিয়ে অনেকবার সাবধানও করা হয়েছিল, কিন্তু এখনও যে তারা এই কর্মকাণ্ড চালিয়েই যাচ্ছে, তা প্রমাণিত হয়ে গেল। এ বিষয়ে ট্রাম্প প্রশাসন কী ব্যাবস্থা নেয় সেটাই দেখার অপেক্ষা।

এদিকে এ ঘটনা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত পাকিস্থানি কমিউনিটির ওপর নিরাপত্তার খ’ড়গ নেমে আসতে পারে বলে ধারণা করছেন অনেকেই। তাদের ওপর বাড়ানো হতে পারে নজরদারি।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিরাপত্তা বিশ্লেষকরা বলছেন, আটক পাকিস্থানি ৫ ব্যবসায়ীর পেছনে রয়েছে দেশটির গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআই। তাদের দেয়া প্রশিক্ষণ এবং প্রযুক্তি ব্যবহার করে পাকিস্থানি এই নাগরিকরা বিভিন্ন দেশের সামরিক স্থাপনায় অনুপ্রবেশের চেষ্টা করে থাকতে পারে। রাষ্ট্রীয় মদদ এবং বড় অংকের ফান্ডিং ছাড়া এ ধরনের কাজ করা সম্ভব নয়।

শেয়ার করুন !
  • 485
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!