ক্রিকেটারদের সাথে পাকিস্থানে যাচ্ছেন এনএসআই, ডিজিএফআই’র সিক্রেট এজেন্টরা

0

স্পোর্টস ডেস্ক:

নানা জল্পনা কল্পনার পর অবশেষে পাকিস্থান সফরে যাচ্ছে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। আর এই সফরে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের নিরাপত্তায় দেশের গোয়েন্দা সংস্থা NSI এবং DGFI এর উচ্চ প্রশিক্ষিত কর্মকর্তারাও যাচ্ছেন। এমনটাই জানিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, বাংলাদেশ দল যাওয়ার আগেই একটা সিকিউরিটি টিম (নিরাপত্তা দল) পাকিস্থান চলে যাবে। দলকে রক্ষায় আমাদের সাথে জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থা (এনএসআই) ও প্রতিরক্ষা গোয়েন্দা মহাপরিদপ্তরের (ডিজিএফআই) সদস্যরা থাকবেন।

এই ব্যাপারে পাপন বলেন, নিরাপত্তা নিয়ে আমি এখনই বেশি কিছু বলতে চাই না। এর জন্য আমাদের ভালো প্রস্তুতি রয়েছে। আমি ছেলেদের বলেছি এটা নিয়ে বেশি ভাবার দরকার নেই। নিরাপত্তার চিন্তা নিয়ে স্বাভাবিক খেলাটা খেলা যায় না। ক্রিকেট স্বাভাবিকভাবে খেলার জন্য মানসিক প্রশান্তি প্রয়োজন।

তিনি আরো আরো যোগ করেন, আমি ছেলেদেরকে এই বার্তাটাই দিতে চাই যে, আমরাও তাদের সাথে পাকিস্থান সফরে যাব। একসাথে থাকব, খাব।

পাকিস্থানের মত জ’ঙ্গি হাম’লার উচ্চ ঝুঁকিপ্রবণ দেশে ক্রিকেট খেলা বেশ জটিল একটি বিষয়। তাছাড়া বৈশ্বিক পরিস্হিতি দ্রুত পাল্টাতে থাকায় যেকোন ধরণের জ’ঙ্গি হাম’লা হওয়া অথবা জ’ঙ্গি বেশে ৩য় কোন পক্ষের হাম’লা পাকিস্থানে স্বাভাবিক ঘটনা বলা চলে।

অন্যদিকে ক্রিকেটারদের মনস্তাত্ত্বিক পরিস্থিতিও প্রতিনিয়ত প্রভাবিত করবে জ’ঙ্গি হাম’লার বিষয়টি। তাই পাকিস্থান ক্রিকেট বোর্ড ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পক্ষ হতে নিজ নিজ সিকিউরিটি প্ল্যান করা হয়েছে।

টিম বাংলাদেশ পাকিস্থানে পৌছানোর আগেই আমাদের সিক্রেট সার্ভিসের সদস্যদের সমন্বয়ে গঠিত একটি সিকিউরিটি টিম পাকিস্থানে পৌঁছাবে এবং ক্রিকেট টিমের সাথে আরেকটি সিকিউরিটি টিম পাকিস্থানে যাবে।

সিকিউরিটি টিমের সদস্য হিসেবে রয়েছেন আমাদের প্রথম সারির কাউন্টার ইন্টেলিজেন্সি টিম DGFI এবং NSI এর চৌকশ কর্মকর্তারা। খেলোয়াড়দের সার্বিক নিরাপত্তা প্রদানে তারা সেখানে সচেষ্ট থাকবেন।

২৪ জানুয়ারি থেকে লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে শুরু হবে টি-টোয়েন্টি সিরিজটি। বাংলাদেশ সেখানে যাওয়ার একদিন আগে লাহোরের অদূরে হারুনাবাদ বাইপাস থেকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অ’স্ত্রধারী ৩ জ’ঙ্গিকে আটক করেছে পাকিস্থানের কাউন্টার টেররিজম ডিপার্টমেন্ট- CTD। সেখান থেকে ৭টি বি’স্ফোরক, সেফটি ফিউজ, ২ বাক্স বল বেয়ারিং, ১টি ইলেকট্রিক ব্যাটারি, ১টি ইলেকট্রিক সুইচ এবং ২টি শপিং ব্যাগভর্তি বো’মা তৈরির সরঞ্জামাদি উদ্ধার করেছে পুলিশ।

তবে পাকিস্থানি পুলিশ বলেছে, এই জ’ঙ্গিদের সাথে আপকামিং ক্রিকেট ম্যাচের কোন যোগসূত্র তারা খুঁজে পায়নি। পাকিস্থানের পক্ষ থেকে বিভিন্ন স্টেডিয়ামের নিরপত্তায় মোতায়েন থাকবে SSG কমান্ডোসহ ১০ হাজার পুলিশ, ১৭ এসপি, ৪৮ ডিএসপি, ১৩৪ ইনসপেক্টর এবং ৫৯২ জন অধস্তন নিরাপত্তাকর্মী।

সিরিজে ৩টি টি-টোয়েন্টি, ২টি টেস্ট এবং ১টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলতে ৩ ধাপে পাকিস্থান সফরে যাবে টাইগাররা। লাহোরে আগামী ২৪ থেকে ২৭ জানুয়ারি প্রথমে টি-টোয়েন্টি ম্যাচ ৩টি অনুষ্ঠিত হবে। ২য় ধাপে ৭ থেকে ১১ ফেব্রুয়ারি রাওয়ালপিন্ডিতে প্রথম টেস্ট অনুষ্ঠিত হবে।

আর এপ্রিলে একমাত্র ওয়ানডে এবং ২য় টেস্ট খেলতে ফের পাকিস্থান যাবে বাংলাদেশ। করাচিতে ওয়ানডে এবং ২য় টেস্ট ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে। ৩ এপ্রিল করাচিতে একমাত্র ওয়ানডে ম্যাচ এবং পরে ৫-৯ এপ্রিল দ্বিতীয় টেস্ট অনুষ্ঠিত হবে।

পাকিস্থান সফরে বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি স্কোয়াড:

মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, নাঈম শেখ, নাজমুল হোসেন শান্ত, লিটন দাস, মো. মিঠুন, আফিফ হোসেন ধ্রুব, মেহেদী হাসান, আমিনুল ইসলাম বিপ্লব, মোস্তাফিজুর রহমান, শফিউল ইসলাম, আল-আমিন হোসেন, রুবেল হোসেন ও হাসান মাহমুদ।

© ডিফেন্স রিসার্চ ফোরাম

শেয়ার করুন !
  • 424
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!