খৎনা করতে গিয়ে শিশুর অর্ধেক লি’ঙ্গ কর্তন, হাজাম আটক

0

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি:

কুষ্টিয়ার শহরতলী উদিবাড়ি এলাকায় এক শিশুর সুন্নতে খৎনা করতে গিয়ে লি’ঙ্গ কর্তনের দায়ে হাজাম ফুরকান আলী খলিফাকে (৭০) আটক করেছে পুলিশ।

গুরুতর আহত স্থানীয় উদিবাড়ি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ২য় শ্রেণির ছাত্র সাদিক (৯) বর্তমানে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তার পিতার নাম আকতার হোসেন।

কর্তব্যরত চিকিৎসক ইউরোলজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. ওহিদুল আলম জানিয়েছেন, শিশু সাদিকের লি’ঙ্গের প্রায় অর্ধেক কেটে ফেলায় প্রচুর ব্লিডিং হয়েছে। জরুরি সার্জারি বিভাগে ব্লিডিং বন্ধে প্রয়োজনীয় শল্য চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। শিশুটিকে প্রাণে বাঁচানো গেলেও পরবর্তীতে কতটুকু স্বাভাবিক হতে পারবে সে বিষয়ে এখনই কিছু বলা যাচ্ছে না।

সাদিকের বাবা আকতার হোসেন বলেন, বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় ছেলের খৎনা করতে হাজাম ফুরকান আলী বাড়িতে আসেন। যথারীতি নিয়মে খৎনা করতে গিয়ে পর পর ২ বার ক্ষুর চালিয়ে প্রায় অর্ধেকটাই কেটে ফেলেন। এতে প্রচুর ব্লিডিং হতে থাকে। পরিস্থিতি খুব খারাপের দিকে গেলে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যাই। তখন চিকিৎসকরা জানান প্রায় অর্ধেকটাই কেটে ফেলা হয়েছে। ও আর স্বাভাবিক হতে পারবে না।

বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে কুষ্টিয়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) গোলাম মোস্তফা জানান, খৎনা করতে গিয়ে শিশুর লি’ঙ্গ কেটে ফেলার অভিযোগে হাজাম (খৎনাকারী) ফুরকান আলী খলিফাকে আটক করেছে পুলিশ।

ফুরকান আলী সদর উপজেলার কবুরহাট এলাকার বাসিন্দা। তার বিরু’দ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এদিকে এ বিষয়ে ডা. ওহিদুল আলম বলেন, অভিভাবকদের অ’সচেতনতার কারনে শিশুদের জীবন শ’ঙ্কায় পড়ে যায়। বর্তমানে ব্যথামুক্তভাবে খৎনার ব্যবস্থা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সগুলোতেই রয়েছে। কিন্তু তারা সেখানে না গিয়ে যথাযথ স্বাস্থ্য সুরক্ষা বিষয়ে জ্ঞানহীন হাজামদের মাধ্যমে অ’স্বাস্থ্যকর প্রক্রিয়ায় খৎনা করান। এতে এমন বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটে প্রায়ই।

তিনি আরও বলেন, হাজামদের সরঞ্জামগুলো যথাযথভাবে জীবাণুমুক্ত করা হয় না। তারা একই যন্ত্র দিয়ে বছরের পর বছর খৎনা করান। যাতে ইনফেকশন হওয়া বা ধনুষ্টঙ্কারের মত রোগও হতে পারে। শিশু সাদিক হয়ত এ যাত্রা প্রাণে বেঁচে গেছে, কিন্তু তার ভবিষ্যৎ এবং দাম্পত্য জীবন নিয়ে প্রশ্ন রয়ে গেল।

শেয়ার করুন !
  • 2.7K
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!