পুকুরের পানিতে হাতি-ঘোড়া-বাঘ, মানত করতে বালতি-বোতল নিয়ে জনতার ভিড়!

0

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি:

কেউ বলছেন জীন-ভূতের কারবার। কেউ বলছেন পুকুরের পানিতে অলৌকিক দেব-দেবতা ভর করেছে। এ নিয়ে চলছে নানা মন্তব্য। শুধু তাই নয়, দৃশ্য দেখে পুকুরের পাড়ে হিন্দু-মুসলিম পরিবারের নারী পুরুষরা দুধ, কলা, মোমবাতি ও আগরবাতি মানত দিচ্ছেন।

অনেকেই বালতি-বোতলে করে পানি সংগ্রহ করে রোগবালাইয়ের মুক্তি কামনা করে পান করছে। তবে আসলে এটি যে কোনো আধ্যাত্মিক বস্তু যে নয়, এ বিষয়ে নিশ্চিত করেছেন স্থানীয় বিজ্ঞান সচেতন ব্যক্তিবর্গ।

মানিকগঞ্জ জেলার সাটুরিয়া উপজেলায় পুকুরের পানিতে বাঘ-হাতি-ঘোড়া দেখতে পাওয়ার খবরে এলাকায় তোলপাড়ের সৃষ্টি হয়েছে। পানি থেকে উঠে আসা এ সব বাঘ-হাতির গুজবে হাজারো উৎসুক জনতার ভিড় লেগেছে। এ সব প্রাণীর রঙিন প্রতিচ্ছবি দেখতে স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীসহ শিশু ও নারীরা হুমড়ি খেয়ে পড়ছে পুকুর পাড়ে।

আজব এ ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার দরগ্রাম ইউনিয়নে পশ্চিম কুষ্টিয়া ইদগাহ মাঠের পুকুরে।

সরেজমিন গিয়ে জানা গেছে, কুষ্টিয়া এলাকার মসজিদের একটি পরিত্য’ক্ত পুকুরে ১৫-২০ মিনিট পর পর পানির নিচ থেকে রক্তিম একটি ফোঁটা উঠছে। সিঁদুরের মতো দেখতে ওই ফোটা পানির উপরে ভেসে উঠে তা জীবন্ত অক্টোপাসের মতো নড়াচড়া করছে।

কখনও তারার মতো, কখনও টিকটিকির মতো নড়াচড়া করে ১-২ মিনিটেই পানির সঙ্গে মিলিয়ে যাচ্ছে। এ আজব দৃশ্য সম্পর্কে জানতে গেলে প্রচণ্ড ভিড়ে হিমিশিম খেতে হয় প্রতিবেদককে।

এ দিকে পানিতে ভেসে উঠা ওই রক্তিম ফোটা হাঁতে নিয়ে পালানোর সময় আব্দুস সালাম নামের এক যুবককে পিটি’য়েছে স্থানীয়রা। আটক করে রাখার পরও ফের পানি থেকে ফোঁটা উঠতে দেখে পরে তাকে ছেড়ে দেয়া হয়।

পানিতে ভেসে উঠা ওই দৃশ্য মোবাইল ফোনে ভিডিও করে ফেসবুকে ছেড়ে দেয় স্থানীয় যুবকরা। ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে পড়ায় পুকুর পাড়ে উৎসুক জনতার ভিড় বেড়েই চলছে। রীতিমত মেলা বসে গেছে, নানা রকম পণ্যের পসরা নিয়ে বিক্রেতারা বসে গেছেন পুকুর পাড়ে।

এ ব্যপারে স্থানীয় সবুজ বলেন, দু’দিন থেকে গ্রামের প্রায় প্রত্যেক পরিবারে আত্মীয়-স্বজনদের ভিড় পড়েছে। বিশেষ করে নারীদের উপস্থিতি সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত। দূর দূরান্ত থেকে লোকজন দেখতে আসছেন।

এ ব্যাপারে সাটৃরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশরাফুল আলম বলেন, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। আসলে বিষয়টি একটি রাসায়নিক বিক্রিয়া। দূষণের কারনে পুকুরের পানিতে নানারকম রাসায়নিক এসে জমেছে। সেই সাথে পুকুরের তলদেশে পচা পাতা-লতা থেকে উদ্ভূত হচ্ছে মিথেন গ্যাস।

তিনি আরও বলেন, মিথেন গ্যাসের সাথে রাসায়নিক বিক্রিয়ায় বুদবুদ সৃষ্টি হচ্ছে। পুকুরের তলদেশ থেকে সৃষ্ট সেসব বুদবুদ ওপরের দিকে উঠে ফেটে যাচ্ছে, আর পানির উপরিভাগে মিশে যাচ্ছে। সূর্যালোকে সৃষ্টি করছে বর্ণিল দৃশ্যের। এসব দেখে অলৌকিক ভাবছে লোকজন। বিভ্রা’ন্তি এড়াতে লোকজন দিয়ে তা সরানো হয়েছে।

শেয়ার করুন !
  • 141
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!