বাঁশখালীতে ৩৩ হাজার ভোল্টের বিদ্যুত খুঁটি রেখেই ভবন নির্মাণ!

0

বাঁশখালী প্রতিনিধি:

৩৩ হাজার ভোল্টের বিদ্যুৎ লাইনের খুঁটি ভেতরে রেখেই বাড়ি নির্মাণ করছেন এক প্রবাসী। ঘটনাটি চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলার সরল ইউনিয়নের পাইরাং দেলা মার্কেট এলাকার। সেখানে নির্মিতব্য এই বাড়িটির অর্ধেকাংশের কাজ শেষ হয়ে এলেও এখন পর্যন্ত কোন ব্যবস্থা নেয়নি বিদ্যুৎ বিভাগ। এতে করে যে কোনো সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশ’ঙ্কা দেখা দিয়েছে।

এদিকে বিষয়টি নিয়ে মাথা ব্যথা নেই ভবন মালিকের। ঝুঁ’কির বিষয়টি জেনেও তিনি কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। নির্মাণ শ্রমিকরাও ঝুঁ’কি নিয়ে কাজ করছেন ভবনটিতে।

দীর্ঘ বছর আগে চন্দনাইশের দোহাজারী থেকে এসব খুঁটির মাধ্যমে ৩৩ হাজার ভোল্টের সঞ্চালন লাইন এসেছে উপজেলা সদরের মেইন স্টেশনটিতে। সম্প্রতি বৈদ্যুতিক খুঁটি মাঝে রেখেই মালিক মাহবুব আলী নামের এক প্রবাসী বাড়ি তৈরি করছেন। ভবনের ঠিক উত্তর পার্শ্বে ভেতরেও রাখা হয় ৩৩ হাজার ভোল্টের লাইনসহ বিদ্যুতের খুঁটি। এই খুঁটির উপরের অংশে বিদ্যুতের মেইন লাইন। বিদ্যুতের খুঁটি ভেতরে রেখেই মাহবুব আলী নিচ তলার ছাদ ঢালাই করেন। এতে যে কোনো সময় ঘটতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা।

অনেকেই এটিকে ‘মরণ ফাঁদ’ বলছেন। আবার কেউ কেউ বলছেন, এ যেন ভয়াবহ দুর্ঘটনা আর মৃ’ত্যুকে স্বেচ্ছায় আহ্বান। এ ঘটনায় দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছে এলাকাবাসী।

ভবন মালিক মাহবুব আলীর ছোট ভাই জামাল উদ্দীন বলেন, পল্লী বিদ্যুতের অফিসের সাথে আমরা যোগাযোগ করি নাই। কারণ প্রায় ২৫-৩০ ফুট উপর দিয়ে ৩৩ হাজার ভোল্টের সঞ্চালন লাইন গেছে। মাত্র এক তলা হয়েছে। এর বেশী উঁচু করবেনা। তাই দুর্ঘটনা ঘটার তেমন একটা আশ’ঙ্কাও দেখছি না। তেমন কোন সমস্যা হবে বলেও মনে করি না।

বাঁশখালী পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের ডিজিএম নাজিম উদ্দীন বলেন, আমরা বিষয়টি জানতে পেরেছি, মালিক পক্ষকে শীগ্রই নোটিশ দিব। এ চিঠির অনুলিপি আমরা চেয়ারম্যানকেও দিব। যাতে পরবর্তীতে কোন ধরনের দুর্ঘটনা ঘটলে আমাদেরকে যাতে দায়ী করা না হয়।

নিয়মনুযায়ী খুঁটির নিচে ১০ ফিটের উপরে কোন ঘর বাড়ি তোলা যাবে না। চিঠিতে খুঁটি থেকে নিরাপদ দূরত্ব রেখে অথবা নির্মিত ভবনের অংশ ভেঙে নিরাপদ দূরত্ব রাখতে বলা হবে। তবে নির্মিত ভবনের অংশ ভেঙে নিরাপদ দূরত্ব তৈরি না করলে ওই ভবন মালিকের ব্যাপারে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

শেয়ার করুন !
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!