সেই নুরুন্নবীর সন্দ্বীপে বদলির আদেশ বহাল, ভিক্টিম এলাকাবাসীর মিষ্টি বিতরণ!

0

গাইবান্ধা প্রতিনিধি:

দুর্নীতি-লু’টপাটসহ নানা অ’নিয়মে অভিযুক্ত ও বিত’র্কিত গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) নুরুন্নবী সরকারকে সন্দ্বীপে বদলির আদেশ বহাল রাখা হয়েছে।

বদলির আদেশ চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে করা রিট স্থগিত রেখে অধিদপ্তরের বদলির আদেশ বহাল রাখেন সুপ্রিম কোর্টের চেম্বার আদালত। এতে বদলি করা কর্মস্থল সন্দ্বীপে যোগদান করতে হবে নুরুন্নবী সরকারকে।

সোমবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে সুপ্রিম কোর্টের চেম্বার আদালত এ আদেশ দেন। গত ৫ জানুয়ারি নুরুন্নবী সরকারের হাইকোর্টে করা বদলি স্থগিতাদেশের বিরু’দ্ধে আপিল আবেদনের প্রেক্ষিতে এ আদেশ দেয়া হয়। আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে আপিল আবেদনের শুনানি করেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।

বিষয়টি নিশ্চিত করে সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী বলেন, পিআইও নুরুন্নবীর বদলিতে হাইকোর্টের রিট আদেশ স্থ’গিত সংক্রান্ত বিষয়টি নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতির আদালতে শুনানি হয়। শুনানিতে হাইকোর্টের দেয়া আদেশ স্থ’গিত এবং অধিদপ্তরের বদলির আদেশ বহালের আদেশ দেন আদালত। এর ফলে বদলির আদেশ অনুযায়ী নতুন কর্মস্থল সন্দ্বীপে যোগদান করা ছাড়া অন্য কোনো উপায় থাকবে না নুরুন্নবীর।

এদিকে পিআইওর বদলি বহালের খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে সন্তোষ প্রকাশ করে মিষ্টি বিতরণ ও আনন্দ মিছিল করে স্থানীয়রা। নুরুন্নবীর দুর্নীতির প্র’তিবাদ ও শা’স্তির দাবিতে বিক্ষো’ভ-সমাবেশ, ঝাড়ু মিছিলসহ লাগাতার কর্মসূচি পালন করে স্থানীয় ভিক্টিম মানুষ। দুর্নীতিবাজ নুরুন্নবীর বদলির আদেশ কার্যকর ও সুন্দরগঞ্জে একজন দক্ষ পিআইওর পদায়নের দাবি জানায় তারা।

দুর্নীতির অভিযোগে গত ২৮ সেপ্টেম্বর নুরুন্নবীকে সন্দ্বীপে বদলির আদেশ দেয় মন্ত্রণালয়। সেই বদলির আদেশ চ্যালেঞ্জ করে গত ৩ ডিসেম্বর হাইকোর্টে রিট করেন নুরুন্নবী। পরে স্থগিতাদেশের বিরু’দ্ধে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব শাহ কালামসহ চেম্বার আদালতে দুটি আপিল আবেদন করা হয়। আবেদন মঞ্জুর করে ২৪ ফেব্রুয়ারি শুনানির দিন ধার্য করেন চেম্বার আদালত।

২০১৫ সালে সুন্দরগঞ্জে যোগদানের পর ঘুষ-দুর্নীতির অভিযোগে ৫টি মামলা হয় নুরুন্নবীর বিরু’দ্ধে। তার বিরু’দ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করে একাধিক প্রতিবেদন দাখিল করে দুদকসহ ও স্থানীয় প্রশাসনের তদন্ত কমিটি। কিন্তু অদৃশ্য কারণে তার বিরু’দ্ধে কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি মন্ত্রণালয়।

ফলে দুর্নীতিতে বে’সামাল নুরুন্নবী ক্ষমতা ও প্রভাব বিস্তারে বহাল তবিয়তে নানা ঘটনার জন্ম দিয়েছেন। পাশাপাশি ১২ জন গণমাধ্যম ও মানবাধিকার কর্মীর বিরু’দ্ধে রংপুর আদালতে দুটি মামলা করেন তিনি।

শেয়ার করুন !
  • 92
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!