জানেন কি, ‘কাট-কপি-পেস্ট’ কে আবিষ্কার করেছিলেন?

0

বিজ্ঞান ও তথ্য প্রযুক্তি ডেস্ক:

প্রযুক্তির উৎকর্ষতায় ‘কাট-কপি-পেস্ট’ যেন দৈনন্দিন জীবনে খুবই গুরুত্বপূর্ণ হয়ে পড়েছে। মেইল, মেসেজ, পোস্ট, সংবাদ বা স্কুল-কলেজের প্রজেক্টসহ সবক্ষেত্রেই এখন এর প্রচলন লক্ষ্য করা যায়। সময় অপচয় থেকে শুরু করে কম লেখা- যাই হোক এ শব্দ ভিন্ন আঙ্গিকে হয়ে উঠেছে বিশেষ।

যার মস্তিষ্কপ্রসূত এ শব্দগুলো সক্রিয়ভাবে প্রভাব বিস্তার করছে মানুষের জীবনে; তিনি হলেন ল্যারি টেসলার। তিনি কম্পিউটার বিজ্ঞানী। তিনিই ‘কাট’, ‘কপি’, ‘পেস্ট’-এর আবিষ্কারক। গত ১৭ ফেব্রুয়ারি তিনি আমাদের ছেড়ে চলে গেছেন না ফেরার দেশে।

টেসলারের জন্ম ১৯৪৫ সালে। স্ট্যান্ডফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কম্পিউটার সায়েন্স নিয়ে স্নাতক পাস করে ‘জেরক্সে’ চাকরি খুঁজতে গিয়েছিলেন। সেখানেই তিনি ‘কাট’, ‘কপি’, ‘পেস্ট’ শব্দের উদ্ভাবন করেন। ফলে এগুলোই কম্পিউটারের অন্যতম বহুল ব্যবহৃত ফিচারের অংশ হয়ে ওঠে।

‘জেরক্স’র পাশাপাশি টেসলার বিশ্বের অনেক টেক-জায়ান্টের সঙ্গে কাজ করেছেন। সে তালিকায় রয়েছে অ্যাপল, অ্যামাজন, ইয়াহু। স্ট্যান্ডফোর্ড আর্টিফিসিয়াল ইনটেলিজেন্স ল্যাবরেটরিতে গবেষণার সময়ই ‘কমপেল’ নামে সিঙ্গেল অ্যাসাইনমেন্ট ল্যাঙ্গুয়েজ আবিষ্কার করেন তিনি। পরে জেরক্স পালো অল্টো রিসার্চ সেন্টারের সদস্য হয়ে সেখানে কাজের সময় ১৯৭০ সালে আবিষ্কার করেন কম্পিউটারের ‘কাট-কপি-পেস্ট’ কম্যান্ড।

টেসলারের ওয়েবসাইট জানায়, জেরক্সে থাকাকালীন তিনি পরবর্তীকালের ‘পেজমেকার’ সফটওয়্যারের আদলে একটি পেজ লে-আউট প্রক্রিয়ারও উদ্ভাবন করেন। পাশাপাশি ‘নোটটেকার’ নামে প্রথম পোর্টেবল কম্পিউটারের হার্ডওয়্যার ডিজাইনও করেন।

টিপস: ক্রোম ব্রাউজারের গুরুত্বপূর্ণ ৫টি এক্সটেনশন

গুগল ক্রোমের হাজার হাজার এক্সটেনশনের ভিড়ে কোনটা কাজে লাগবে তা বোঝা খুব কঠিন। তাই প্রয়োজনীয় ৫টি ক্রোম এক্সটেনশনের সন্ধান দেওয়া হলো।

অফিস এডিটিং ফর ডকস, শিটস অ্যান্ড স্লাইডস

কম্পিউটারে মাইক্রোসফট ওয়ার্ড, এক্সেল ও পাওয়ার পয়েন্ট ইন্সটল করা না থাকলেও সমস্যা নেই। অফিস এডিটিং ফর ডকস, শিটস অ্যান্ড স্লাইডস এক্সটেনশনটি ইন্সটল করলে অফিস ফাইল ড্র্যাগ করেই ক্রোমে নেওয়া যাবে। এরপর জিমেইলে বা গুগল ড্রাইভে ফাইলটি ওপেন হবে। ডক, শিট বা স্লাইড যে ফরম্যাটেই থাকুক না কেনো সেগুলো এডিট করা যাবে।

ট্যাব র‍্যাংলার

বহুক্ষণ ধরে নিষ্ক্রিয় থাকা ট্যাব নির্দিষ্ট বিরতিতে বন্ধ করবে এক্সটেনশনটি। ট্যাব সেইভ করে বন্ধ করার ফলে সহজেই সেগুলো রিওপেন করা যাবে। তবে পিন করে রাখলে ট্যাব বন্ধ করবে না।

সেশন বাডি

এক্সটেনশনটির মাধ্যমে ওপেন থাকা সব ট্যাব এক জায়গায় দেখা যাবে। সবচেয়ে বড় সুবিধা হল ব্রাউজার বা সিস্টেম ক্র্যাশ করলেও ট্যাবগুলো রিকভার করা যাবে। প্রতিটি লিঙ্কের জন্য টপিক দেওয়া যাবে। পরে টপিক দিয়ে সার্চ করলে ট্যাব ফিরে পাওয়া যাবে।

লাস্ট পাস

পাসওয়ার্ড ম্যানেজার হিসেবে কাজ করে এটি। ইন্সটল করে সব অ্যাকাউন্টের লগইন ও পাসওয়ার্ড সেইভ করে রাখা যায় এতে। নতুন পাসওয়ার্ড অ্যাড, এডিট, ডিলিট সবই করা যাবে এক্সটেনশনটিতে। চাইলে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট নম্বর, ক্রেডিট কার্ড নম্বর, পাসপোর্ট, ড্রাইভিং লাইসেন্সও সেইভ রাখা যায়।

ভিজুয়ালপিং

কোনো ওয়েবপেইজে পরিবর্তন এসেছে কিনা সে সম্পর্কে ব্যবহারকারীকে তথ্য দেবে এক্সটেনশনটি। যে ওয়েব পেইজের পরিবর্তন সম্পর্কে জানতে চান তার লিঙ্ক এক্সটেনশনটিতে দিতে হবে। কোনো পরিবর্তন আসলে ইমেইলে তা ব্যবহারকারীকে জানানো হয়। কোনো পণ্য প্রি-অর্ডার বা হোটেল বুকিং দেওয়ার ক্ষেত্রে এটি বেশ কাজে লাগে।

গুগল ক্রোম ওয়েব স্টোর থেকে সব এক্সটেনশনই ফ্রিতে ডাউনলোড করা যায়। চাইলে এক্সটেনশনগুলো যেকোনো সময় ডিজেবল বা ডিলিট করা যাবে।

শেয়ার করুন !
  • 24
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!