তামিলনাড়ুর ভেলোরে মুজিব লেকচার অনুষ্ঠিত

0

প্রবাস ডেস্ক:

ভেলোরের বিশ্ববিখ্যাত ক্রিশ্চিয়ান মেডিকেল কলেজে (সিএমসি) অনুষ্ঠিত হলো ‘মুজিব লেকচার’। শনিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) কলেজের গবেষণা কার্যক্রমের মূল কেন্দ্র উইলিয়ামস রিসার্চ ভবনে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে এই লেকচারের আয়োজন করা হয়।

এতে আমন্ত্রিত বক্তা হিসেবে ‘মুজিব লেকচার’ প্রদান করেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) লিভার বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. মামুন আল মাহতাব (স্বপ্নীল)।

অধ্যাপক স্বপ্নীল তার লেকচারে লিভার ফেইলিউর রোগীদের চিকিৎসায় আটলোগাস হেমোপয়েটিক স্টেম সেল ট্রান্সপ্ল্যান্টেশন বিষয়ে আলোকপাত করেন।

উল্লেখ্য, অধ্যাপক স্বপ্নীলের নেতৃত্বে বাংলাদেশি একদল লিভার বিশেষজ্ঞ ২০১৭ সাল থেকে এই পদ্ধতিতে লিভার ফেইলিউরের রোগীদের চিকিৎসাসেবা প্রদান করে আসছেন। এরই মধ্যে প্রায় ২ শতাধিক রোগী এই চিকিৎসার মাধ্যমে উপকৃত হয়েছেন। লিভার ফেইলিউরের চিকিৎসায় অটোলোগাস হেমোপয়েটিক স্টেম সেল ব্যবহারের এই এলাকায় সবচেয়ে বেশি অভিজ্ঞতা রয়েছে আমাদের দেশের লিভার বিশেষজ্ঞদের।

এছাড়া বিভিন্ন আন্তর্জাতিক বৈজ্ঞানিক জার্নালে এ বিষয়ে তাদের ৩টি বৈজ্ঞানিক নিবন্ধ প্রকাশিত হয়েছে। দেশে-বিদেশে ১০টিরও বেশি বৈজ্ঞানিক সম্মেলনে তারা তাদের অভিজ্ঞতা উপস্থাপন করেছেন।

ভেলোরে অনুষ্ঠিত মুজিব লেকচারটিতে ক্রিশ্চিয়ান মেডিকেল কলেজের হেপাটোলজি, গ্যাস্ট্রোএন্টারোলজি, ইন্টারনাল মেডিসিন, নেফ্রোলজি, টক্সিকোলজি ও ট্রান্সফিউশন মেডিসিন বিভাগের শিক্ষক, বিশেষজ্ঞ ও রেসিডেন্টরা অংশগ্রহণ করেন।

এছাড়া মুজিববর্ষে বিএসএমএমইউ লিভার বিভাগে লিভার ফেইলিউরের চিকিৎসায় ‘প্লেক্স’ পদ্ধতি প্রবর্তনের ব্যাপারে ক্রিশ্চিয়ান মেডিকেল কলেজের লিভার বিভাগের সাথে ফলপ্রসূ আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। তারা বিএসএমএমইউ লিভার বিভাগকে এই বিষয়ে সর্বাত্মক সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

ইসরায়েল ম্যারাথনে বাংলাদেশের পতাকা ওড়ালেন শিব শংকর

ইসরায়েলের তেল আবিবে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক ম্যারাথনে অংশগ্রহণ করেছেন জার্মানি প্রবাসী বাংলাদেশি শিব শংকর পাল।

২৮ ফেব্রুয়ারি ৪০ হাজার প্রতিযোগীর সঙ্গে বাংলাদেশের লাল সবুজের পতাকা নিয়ে দৌড়েছেন জার্মানির মিউনিখ প্রবাসী এই দৌড়বিদ। এটি তার ব্যক্তিগত ক্যারিয়ারের ১১১ নম্বর আন্তর্জাতিক ম্যারাথনে অংশ নেয়া।

ঐতিহাসিক এই ম্যারাথন দেখতে শহরের বিভিন্ন স্থানে জড়ো হয়েছিলেন লাখ লাখ দর্শনার্থী। দেশটির রাজধানী তেল আবিবের উত্তর কনভেনশন সেন্টার থেকে শুরু হয়ে শহরের ঐতিহাসিক স্থান ঘুরে গানি ইহোসুয়া পার্কে এসে শেষ হয় এ ম্যারাথন। বাংলাদেশের নবাবগঞ্জে জন্মগ্রহণ করা শিব শংকর পালের ৪২.২ কিলোমিটার দীর্ঘ পথ দৌড়ে শেষ করতে সময় লেগেছে ৩ ঘণ্টা ৪০ মিনিট। এ দৌড়বিদের সঙ্গী হয়েছিলেন তার স্ত্রী শিখা শংকর পাল, দুই পুত্র ম্যাক্সি ও দিব্য এবং একমাত্র কন্যা ত্রয়ি।

জার্মানি প্রবাসী শিব শংকর পাল পৃথিবীর বিখ্যাত প্রায় সব ম্যারাথনে অংশগ্রহণ করেছেন। সম্প্রতি ফ্রাঙ্কফুর্ট ম্যারাথন এবং মিউনিখ ম্যারাথনেও অংশগ্রহণ করেন। এ ছাড়া গত বছর ৯ মে নেপালের হিমালয় পাহাড়ে অনুষ্ঠিত পৃথিবীর কঠিনতম ম্যারাথন খ্যাত এভারেস্ট ম্যারাথনেও বাংলাদেশের পতাকা নিয়ে দৌড়িয়েছিলেন শিব শংকর পাল। এর আগে আন্তর্জাতিক এই দৌড়বিদ ২০১৮ সালের নভেম্বর মাসে নিউইয়র্কে ব্যক্তিগত ক্যারিয়ারের ১০০তম ম্যারাথনে অংশ নিয়েছিলেন।

৫৪ বছর বয়সী শিব শংকর পাল জার্মানির মিউনিখ শহরের একজন সফল ব্যবসায়ী হলেও তার অদম্য শখ বিশ্বের বড় বড় ম্যারাথনে বাংলাদেশের লাল সবুজের পতাকা নিয়ে দৌড়ানো। তিনিই একমাত্র বাংলাদেশি, যিনি আন্তর্জাতিক ম্যারাথনে শতাধিকবার অংশগ্রহণের বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন।

১১১টি ম্যারাথনে বাংলাদেশের পতাকা ওড়াতে পেরে উচ্ছ্বসিত শিব শংকর পাল জানান, ইসরায়েলের তেল আবিব ম্যারাথনে বাংলাদেশের পতাকা নিয়ে দৌড়াতে পেরে তিনি গর্বিত। বাংলাদেশের নতুন প্রজন্মকে ম্যারাথনের প্রতি আকৃষ্ট করতে দেশে একটি দূরপাল্লার ও স্বল্পপাল্লার ম্যারাথনের আয়োজন।

উল্লেখ্য, শিব শংকর পাল ১৯৮৯ সালে জার্মানি পাড়ি জমান। ১৯৯৯ সালে জার্মানির মিউনিখে পাল ইলেক্ট্রনিক্স নামে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলেন। ২০১৭ সালে জার্মানির মিউনিখ শহর কর্তৃপক্ষ ৫ জন সফল ব্যবসায়ীকে বিশেষ পুরস্কারে ভূষিত করে। সে বছর পুরস্কারপ্রাপ্ত ৫ জন সফল ব্যবসায়ীর একজন বাংলাদেশি শিব শংকর পাল।

গত বছর জার্মানির বিখ্যাত টিভি চ্যানেল ‘জেডডিএফ’ শিব শংকর পালের সফলতা নিয়ে বিশেষ ডকুমেন্টারি প্রচার করেছিল। শিব শংকর পাল এবং তার পরিবারের সবাই জার্মান পাসপোর্টধারী।

শেয়ার করুন !
  • 36
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply