ওয়াজে শ্রোতাদের লম্ফঝম্প, বাঁশে ওঠা, উদ্ভট কাজে বির’ক্ত সাধারণ মানুষ

0

সময় এখন ডেস্ক:

ওয়াজে বক্তাকে নানা কায়দায় জড়িয়ে ধরা, চুমু খাওয়া, স্টেজের ওপর উঠে গড়াগড়ি দেয়া, বিভিন্ন রকমের অঙ্গভঙ্গি করা, প্যান্ডেলের বাঁশ বেয়ে ওপরে ওঠা-নামার মতো অদ্ভূত আচরণ দেখা যায় প্রায়শই বিভিন্ন বক্তার মাহফিলে। আর এসব নিয়ে বিরক্ত সাধারণ ধর্মপ্রাণ মানুষ।

বিভিন্ন ভিডিওতে দেখা যায়, ওয়াজে নাচানাচি, দৌড়াদৌড়ি, মঞ্চ তছনছ বা লাফিয়ে প্যান্ডেলের বাঁশ বেয়ে উপরে উঠছেন এক শ্রেণির শ্রোতা। কখনো এই শ্রোতারা অন্য শ্রোতা বা বক্তাকে আক্র’মণ করছেন। তাদের কোলে উঠে বসছেন।

ইসলামি চিন্তাবিদরা বলছেন, ইচ্ছাকৃতভাবে এ ধরণের উদ্ভট আচরণ ইসলামে গ্রহনযোগ্য নয়। আর এ ধরণের আচরণ রোধে জনসচেতনতা সৃষ্টির কথা বলছে ইসলামিক ফাউণ্ডেশন।

ওয়াজ-মাহফিলে অনেক সময় দেখা যায় শ্রোতা মঞ্চ ভা’ঙচুর করছেন বা চেয়ার ছুঁড়ে ফেলছেন। কখনো বক্তা আবার কখনো অন্য শ্রোতাকে আক্র’মণ করছেন তারা।

এ বিষয়ে শায়খে চরমোনাই মুফতি সৈয়দ ফয়জুল করিম বলেন, ওয়াজ মাহফিলে যদি লোক দেখানোর জন্য এমন আচরণ করে থাকে তাহলে তা সম্পূর্ণ হারাম। এটা জায়েজ না।

ওয়াজে অনেক সময় বক্তাকে খোদা বলে দাবি করছেন কোনো কোনো শ্রোতা। ওয়াজের এক পর্যায়ে শ্রোতারা নানা কায়দার বক্তাকে জড়িয়ে ধরে ব্যতিক্রমী অঙ্গভঙ্গিও তাদের। লাফালাফি থেকে নাচানাচি কোনো কিছুই বাদ দেন না এসব শ্রোতা।

ইসলামিক ফাউন্ডেশন বাংলাদেশের গভর্নর মিছবাহুর রহমান চৌধুরী বলেন, মঞ্চে উঠে লাফালাফি করবে, বাঁশ বেয়ে উপরে উঠবে, এটা কোনো সুস্থ মানুষের কাজ না। বুঝতে হবে সে মানসিকভাবে অসুস্থ। আর যে মানসিকভাবে অসুস্থ তার জন্য ইসলামী বা সামাজিক কোনো বক্তব্যই উপযুক্ত না। একমাত্র বক্তব্য হলো তাকে চিকিৎসা করানো।

নানা বাক্যব্যয় আর প্রশংসায় শ্রোতাদের এ ধরণের আচরণকে উৎসাহিত করেন অনেক বক্তা।

এসব বন্ধে জনসচেতনতা সৃষ্টির কথা বলছে ইসলামিক ফাউন্ডেশন। ইসলামিক ফাউন্ডেশনের গভর্নর মিছবাহুর রহমান চৌধুরী বলেন, এসব কাজে ইসলামিক ফাউন্ডেশন সচেতনতামূলক কাজ করছে।

শেয়ার করুন !
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!