যে বিখ্যাত মোটরসাইকেলগুলো আর ফিরে আসবে না

0

ফিচার ডেস্ক:

করোনা ভাইরাসের কারণে লকডাউনে সারাবিশ্ব থমকে গেছে, মানুষ গৃহব’ন্দি। এমন সময় ভারতের মোটরসাইকেল কোম্পানি জনপ্রিয় মডেলের বিএস৬ এর ভ্যারিয়েন্ট বাজারে এনেছে। বিএস৪ মডেল স্টক শেষ হলে বাজারে আর দেখা যাবে না। তাই ক্রয়সীমার মধ্যে বিএস৪ মোটরসাইকেলগুলো বিক্রি শুরু হয়েছে।

অল্প কিছুদিন সময় এগুলো বাজারে থাকবে। ফলে বিএস৪ মোটরসাইকেলগুলো আর কেনার সুযোগ থাকছে না।

ইতিহাসের পাতায় জায়গা করে দেওয়া এমন ১০টি মোটরসাইকেল দেখে নিন।

ইয়ামাহা স্যালুটো আরএক্স: ২০১৬ সালে লঞ্চ হওয়া এই মোটরসাইকেলে রয়েছে ১১০ সিসি ইঞ্জিন। এছাড়াও ১২৫ সিসি ইঞ্জিনে এই মোটরসাইকেল পাওয়া যায়। ৮০-র দশকের আরএক্স-১০০-এর কথা মনে করিয়ে দিতে এই মোটরসাইকেলের নামের শেষে আরএক্স ব্যবহার হয়েছিল। বিএস৬ দূষণ বিধি বাধ্যতামূলক হওয়ার পরে এই মোটরসাইকেল বিক্রি বন্ধ হয়ে যাবে।

হোন্ডা লিভো: এটা কোম্পানির ১১০ সিসি ইঞ্জিনে প্রিমিয়াম কমিউটার মোটরসাইকেল। ১২৫ সিসি সেগমেন্টের ঠিক নিচে এই মোটরসাইকেল নিয়ে এসেছিল হোন্ডা। দুর্দান্ত লুক থাকলেও গ্রাহকের মন জিততে পারেনি এই মোটরসাইকেল।

ইয়ামাহা স্যালুটো: ১২৫ সিসি সেগমেন্টে এই মোটরসাইকেল লঞ্চ করেছিল ইয়ামাহা। হিরো গ্ল্যামার, বাজাজ, বাজাজ ডিসকভার ১২৫ ও হোন্ডা শাইন-এর পাশে প্রতিযোগিতায় অনেকটাই পিছনে ছিল এই মোটরসাইকেল। তাই উৎপাদন বন্ধের সিদ্ধান্ত নেওয়া হল।

হিরো এক্সট্রিম ২০০: বিএস৬ দূষণ বিধি মেনে বাজারে আসবে না আর হিরো এক্সট্রিম ২০০। ইতিমধ্যেই কোম্পানির ওয়েবসাইটে সব বিএস৬ স্কুটার ও মোটরসাইকেলের তালিকা প্রকাশ করেছে হিরো। সেই তালিকা থেকে বাদ গিয়েছে হিরো এক্সট্রিম ২০০-এর নাম।

হোন্ডা সিবিআর২৫০আর: ভারতের অন্যতম জনপ্রিয় অলরাউন্ডার ট্যুরিং মোটরসাইকেল হোন্ডা সিবিআর২৫০আর। ২০১২ সালে প্রথম এই মোটরসাইকেল লঞ্চ হয়েছিল। যদিও বিএস৬ জামানায় এই মোটরসাইকেল বিক্রি বন্ধ হচ্ছে।

ইয়ামাহা ফেজার২৫: ২০১৭ সালে লঞ্চ হয়েছিল ২৫০ সিসি ইঞ্জিনের এই মোটরসাইকেল। ভালো পারফর্মেন্সের এই মোটরসাইকেল অজানা কারণে ভারতের বাজারে সাফল্য পায়নি। বিএস৬ দূষণ বিধির সঙ্গেই বিদায় নিচ্ছে এই মোটরসাইকেল।

রয়্যাল এনফিল্ড বুলেট ৫০০: নতুন দূষণ বিধির সঙ্গেই ৫০০ সিসি ইঞ্জিন তৈরি বন্ধ করেছে রয়্যাল এনফিল্ড। ২০২০ সালের জানুয়ারিতে এই ঘোষণা করেছিল চেন্নাইয়ের কোম্পানিটি। এর ফলে বিদায় নিচ্ছে কোম্পানির সব থেকে কম দামের ৫০০ সিসি ইঞ্জিনের মোটরসাইকেল রয়্যাল এনফিল্ড বুলেট ৫০০।

রয়্যাল এনফিল্ড ক্লাসিক ৫০০: রয়্যাল এনফিল্ড বুলেট ৫০০-এর সঙ্গেই বিদায় নিচ্ছে রয়্যাল এনফিল্ড ক্লাসিক ৫০০। বিএস৪ স্টক থাকা পর্যন্ত এই মোটরসাইকেল বিক্রি হবে।

রয়্যাল এনফিল্ড থান্ডারবার্ড ৫০০: বিদায় নিচ্ছে রয়্যাল এনফিল্ড-এর আরও একটি ৫০০ সিসি ইঞ্জিনের মোটরসাইকেল থান্ডারবার্ড ৫০০। একই সঙ্গে বিদায় নিচ্ছে থান্ডারবার্ড ৩৫০।

রয়্যাল এনফিল্ড বুলেট ট্রায়ালস ৩৫০, ট্রায়ালস ৫০০: কোম্পানির ইতিহাসে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ এই দু’টি মডেল। বিক্রি বন্ধের সাথে সাথে ইতিহাসে ঠাঁই নিচ্ছে এই দুই মডেলের মোটরসাইকেল।

শেয়ার করুন !
  • 17
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!