চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের চেষ্টায় রক্ষা পেল প্রসূতি ও নবজাতক

0

চট্টগ্রাম ব্যুরো:

রাত সাড়ে ৩টা। হঠাৎ প্রসব বেদনা ওঠে স্ত্রী প্রান্তির। অ’জ্ঞান হওয়ার অবস্থা প্রায়। এই দুঃসময়ে কী করবেন বুঝে উঠতে পারছিলেন না স্বামী শিপন সেন। পা’গলের মতো ছুটে গেলেন রাস্তায়। কিন্তু ফাঁকা রাস্তা, কেউ নেই।

দুঃসময়ের কাছে হাল ছেড়ে দিয়ে শিপন যখন ভাবছিলেন সব শেষ, ঠিক তখন ঘটনাস্থলে এসে হাজির হন ২ পুলিশ সদস্য। বিষয়টা জেনেই অ্যাম্বুলেন্স না পেয়ে থানার টহল গাড়িতেই ওই প্রসূতিকে নগরের জেমিসন রেডক্রিসেন্ট মাতৃসদন হাসপাতালে নিয়ে যান। বুধবার (৮ এপ্রিল) ভোরে সেখানেই ফুটফুটে এক কন্যা সন্তানের জন্ম দেন প্রান্তি।

স্বামী শিপন সেন বলেন, রাত সাড়ে ৩টার দিকে প্রান্তির হঠাৎ প্রসব বেদনা ওঠে। এ অবস্থায় কী করবো বুঝে উঠতে পারছিলাম না। দৌড়ে আশরাফ আলী রোডের মাথায় গেলাম, কিন্তু কোথাও কিছু চোখে পড়ছিল না। এ সময় হঠাৎ ২ পুলিশ সদস্য আমার দিকে এগিয়ে আসলেন। এত রাতে এখানে কী করছি- জানতে চাইলে তাদের পুরো ঘটনা খুলে বললাম। এ সময় তারা নিজেরাই ফোন করে গাড়ির ব্যবস্থা করলেন। হাসপাতালে নিয়ে গিয়ে ডাক্তার-নার্স ডেকে নিশ্চিত করলেন তাৎক্ষণিক চিকিৎসার। অবশেষে আমাদের সব উদ্বেগ-উৎ’কণ্ঠা দূর করে আমার সন্তার পৃথিবীর মুখ দেখে। এই মানুষ দুটোর প্রতি আমি ও আমার পরিবার সারা জীবন কৃতজ্ঞ থাকব।

কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসীন বলেন, লকডাউন শুরুর পর থেকে আমাদের পুলিশ সদস্যরা অ’সহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে কাজ করে যাচ্ছে। রাত সাড়ে ৩টার দিকে হঠাৎ এক ফোন এলো আশরাফ আলী রোড থেকে। প্রসব বেদনা উঠেছে এক নারীর। সাথে অন্যান্য সমস্যাও। চিকিৎসা নিতে হবে, কিন্তু পাশে ডাক্তার নেই। হাসপাতালে নিতে হবে, কিন্তু রাস্তায় গাড়ি নেই।

তিনি বলেন, টিম কোতোয়ালির ২ সদস্য এএসআই আজিজুল ও সুকুমার আমাকে বিষয়টি জানান। সঙ্গে সঙ্গে গাড়ির ব্যবস্থা করে হাসপাতালে ছোটেন তারা। পুলিশকে দেখে যেন রোগীকে ফিরিয়ে না দেয়, সেজন্য হাসপাতালে দৌড়ঝাঁপ করলেন তারা নিজেরাই। প্রায় ৩ ঘণ্টার ক’ষ্ট স্বার্থক করে ভোরে ফুটফুটে এক বাচ্চার জন্ম দিয়েছেন ওই মা। মা-মেয়ে দুজনেই সুস্থ আছে।

শেয়ার করুন !
  • 400
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply