করোনা রোগীদের চিকিৎসা দিতে অ’নীহা, ৬ চিকিৎসকে বরখা’স্ত

0

সময় এখন ডেস্ক:

করোনা ভাইরাসে আ’ক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা দিতে অ’পারগতা প্রকাশ করায় এবং কর্মস্থলে অনুপস্থিত থাকায় ঢাকার কুয়েত-বাংলাদেশ মৈত্রী সরকারি হাসপাতালের ৬ জন চিকিৎসককে বরখা’স্ত করা হয়েছে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর আজ শনিবার তাদের সাময়িক বরখা’স্ত করে দুটি আদেশ জারি করে।

কর্মস্থলে অনুপস্থিত থাকায় হাসপাতালের জুনিয়র কনসালটেন্ট (অ্যানেস্থেসিয়া) হীরম্ব চন্দ্র রায় এবং মেডিকেল অফিসার ফারহানা হাসানাত, উর্মি পারভিন ও কাওসার উল্লাহকে সাময়িক বরখা’স্ত করা হয়েছে।

এছাড়া করোনা ভাইরাসে আক্রা’ন্ত রোগীদের চিকিৎসা দিতে অ’নিচ্ছা প্রকাশ করায় হাসপাতালের জুনিয়র কনসালটেন্ট (গাইনী) শারমিন হোসেন এবং আবাসিক চিকিৎসক মুহাম্মদ ফজলুল হকের বিষয়েও একই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

নভেলে করোনা ভাইরাসের মহামা’রীর প্রেক্ষাপটে সরকার উত্তরার কুয়েত-বাংলাদেশ মৈত্রী সরকারি হাসপাতালকে পুরোপুরি কোভিড-১৯ রোগীদের চিকিৎসার জন্যই প্রস্তুত করেছে।

কিন্তু ওই ৬ চিকিৎসক হাসপাতালের ‘কোভিড-১৯’ কেন্দ্রে সেবা দিচ্ছেন না জানিয়ে গত ৯ এপ্রিল স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালককে চিঠি পাঠান হাসাপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. মোহাম্মদ সেহাব উদ্দিন।

সেখানে বলা হয়, হীরম্ব চন্দ্র রায় গত ১৩ ফেব্রুয়ারি থেকে কর্মস্থলে অনুপস্থিত রয়েছেন। আর ফারহানা হাসানাত ১৫ ফেব্রুয়ারি থেকে, উর্মি পারভিন ৩১ মার্চ থেকে এবং কাওসার উল্লাহ ২১ মার্চ থেকে অনুমোদন ছাড়াই কর্মস্থলে আসছেন না।

মগবাজার মসজিদের ইমামের করোনা, বাসা লকডাউন

রাজধানীর মগবাজারের একটি মসজিদের ইমামের শরীরে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি (কোভিড-১৯) শনাক্ত হয়েছে। তিনি যে বাসায় থাকতেন, সেই বাসাটি এরই মধ্যে লকডাউন করার উদ্যোগ নিয়েছে প্রশাসন।

বুধবার (৮ এপ্রিল) রাতে রমনা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি, তদন্ত) মো. জহুরুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

জহুরুল ইসলাম বলেন, চিকিৎসার জন্য ওই ইমামকে বাংলাদেশ কুয়েত মৈত্রী সরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। প্রশাসনের পক্ষ থেকেও সংক্র’মিত ব্যক্তির বাসা লকডাউনের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

জানা গেছে, মগবাজার এলাকায় থাকতেন ওই ব্যক্তি। রাজধানীর অন্য একটি এলাকার মসজিদে ইমামতি করতেন তিনি। বুধবার বিকেলে পরীক্ষায় জানা যায়, তিনি করোনা ভাইরাসে আক্রা’ন্ত। এ সময় তাকে অ্যাম্বুলেন্সে করে কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

শেয়ার করুন !
  • 112
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!