অহেতুক মোটরসাই‌কেল নি‌য়ে বেরোলে পু‌লি‌শের সঙ্গে ডিউটি!

0

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি:

ক‌রোনা ঠেকাতে মানুষের চলাচল নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে পু‌লিশ। তবে জনসাধারণকে বিশেষ করে মোটরসাইকেল চালকদের নিয়ন্ত্রণ করতে হিমশিম খেতে হচ্ছে তাদের। মোটরসাইকেলে অহেতুক ঘোরা‌ফেরা বন্ধ করতে ভিন্নরকম সাজার ব্যবস্থা করেছে কু‌ড়িগ্রাম জেলা পু‌লিশ।

আজ বুধবার (১৫ এপ্রিল) থে‌কে বিনা প্রয়োজ‌নে মোটরসাই‌কেল নি‌য়ে সড়‌কে বের হ‌লেই তা‌কে পু‌লি‌শের সঙ্গে বাজা‌রে ৮ ঘণ্টা ডিউটি করতে হবে।

‘পু‌লিশ সুপার, কু‌ড়িগ্রাম’ নামে ফেসবুক পে‌জে পোস্ট দি‌য়ে এ নি‌য়ে সতর্ক ক‌রে‌ছে জেলা পু‌লিশ। বলা হয়েছে, ‘আগামীকাল (বুধবার) থেকে যারা বিনা প্রয়োজনে মোটরসাইকেল নিয়ে বের হবেন তাদের ৮ ঘণ্টা পুলিশের সঙ্গে বাজারে ভিড় নিয়ন্ত্রণ ডিউটিতে যেতে হবে। ঠিক করে নিন কী করবেন? ঘরে থাকবেন? নাকি বাজারের ডিউটি?’

জেলা পু‌লি‌শের এমন উদ্যোগকে সাধুবাদ জা‌নি‌য়ে‌ছেন অনেকে। কেউ কেউ এর চে‌য়েও ক‌ঠোর পদ‌ক্ষে‌পের পরামর্শও দি‌য়ে‌ছেন। আবদুল জ‌লিল না‌মে একজন লি‌খে‌ছেন, ‘সঠিক সিদ্ধান্ত। এর বাস্তবায়ন দৃষ্টান্ত হবে এবং লক্ষ্য ফলপ্রসূ হবে।’ সাগর ন‌ন্দি মন্তব‌্য ক‌রে‌ছেন, ‘সময়োপযোগী পদক্ষেপ, ধন্যবাদ, পুলিশ সুপার, কুড়িগ্রাম।’

এ বিষয়ে জান‌তে চাই‌লে পু‌লিশ সুপার ম‌হিবুল ইসলাম খান ব‌লেন, ক‌রোনা মোকা‌বেলায় জেলা পু‌লিশ দিনরাত একাকার ক‌রে কাজ কর‌ছে। ‌অহেতুক মানুষ‌কে বাইরে আস‌তে নি‌’ষেধ কর‌লেও অনেকে তা মান‌ছেন না। আমরা এর আগে কিছু মোটরসাইকেল আটক করেও তেমন সুফল পা‌চ্ছি না। ফ‌লে এবার ভিন্নধর্মী সাজার ব‌্যবস্থা নেওয়া হ‌বে। সে ল‌ক্ষ্যেই এই সিদ্ধান্ত। তবু মানুষ যেন ঝুঁকি নি‌য়ে বাইরে না আসে।

রংপুর লকডাউন

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে রংপুর জেলা লকডাউন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জেলা প্রশাসন। বুধবার (১৫ এপ্রিল) রাত ১০টা এই লকডাউন কার্যকর হবে এবং পরবর্তী ঘোষণার আগ পর্যন্ত চলবে। এই সময় ওই এলাকা থেকে কেউ বের হতে পারবেন না এবং প্রবেশও করতে পারবেন না।

রংপুরের জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আসিব আহসান লকডাউনের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, রংপুর শহরসহ পুরো জেলা অ’নির্দিষ্টকালের জন্য লকডাউন করা হয়েছে। রাত ১০টার পর থেকে রংপুর মহানগরসহ জেলার বাইরে কাউকে যেতে দেওয়া হবে না এবং বাইরে থেকে কাউকে আসতে দেওয়া হবে না। তবে জরুরি সেবা, চিকিৎসা ও খাদ্যপণ্য এই আওতার বাইরে থাকবে।

শেয়ার করুন !
  • 285
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply