ভারতে লকডাউনের মধ্যেই গরুর শেষকৃত্যে হাজারো মানুষ (ভিডিও)

0

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

লকডাউন সফল করতে ভারতে যখন নানা পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে, ঠিক সেই সময়ে তামিলনাড়ুর মুধুবারাপট্টির গ্রামে বুধবার এক ষাঁড়ের শেষকৃত্যে জমায়েত হয়েছেন হাজারো মানুষ। আনন্দবাজার পত্রিকার এক প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

তামিলনাড়ুর জনপ্রিয় উৎসব জাল্লিকাট্টুতে অংশ নেওয়া ষাঁড়দেরও খুব কদর মানুষের কাছে। বুধবার মুধুবারাপট্টি নামে এক গ্রামে জাল্লিকাট্টুর একটি ষাঁড়ের মৃ’ত্যু হয়। তার শেষযাত্রায় সামাজিক দূরত্ব বজায় না রেখেই অংশ নেন হাজারো গ্রামবাসী। ঘটনাটি কেউ ভিডিও করে সামাজিক মাধ্যমে ছেড়ে দেয়। পরে তা ভাইরাল হয়।

আনন্দবাজার পত্রিকার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, তামিলনাড়ুতে প্রায় ১ হাজার ২৫০ জন মানুষ করোনায় আক্রান্ত। তা সত্ত্বেও মধুরাপট্টি গ্রামের বহু মানুষ সামাজিক দূরত্ব না মেনে ষাঁড়ের শেষকৃত্যে অংশ নেন। গ্রামবাসীদের কারও মুখে মাস্ক বা সুরক্ষা সরঞ্জাম ছিলো না। করোনা আক্রা’ন্ত কেউ মা’রা যাওয়ার পরও শ্মশানে নিতে বাধা দেয়া হলেও ষাঁড়ের শেষকৃত্যে দেখা গেল এমন ধুমধাম!

ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, ষাঁড়টিকে ভ্যানের মতো একটি গাড়িতে তোলা হয়েছে। তার উপর ফুল, মালা দেওয়া হয়েছে, ধূপ জ্বলছে। আর সামনে, পিছনে, চার পাশে হাজারো মানুষ রীতিমতো শোভাযাত্রা করে এগিয়ে চলেছেন তার শেষকৃত্য সম্পন্ন করতে।

দিল্লি পুলিশকে মাওলানা সা’দের চিঠি

পুলিশ নোটিশ অ’মান্য করে দিল্লির নিজামুদ্দিন মারকাজে জনসমাগম করায় তাবলিগ জামাতের প্রধান মাওলানা সা’দের বিরু’দ্ধে অ’নিচ্ছাকৃত হ’ত্যার অভিযোগ আনে দিল্লি পুলিশ। ভারতের ১৭টি রাজ্যে ১ হাজার ২৩ জন করোনা আক্রা’ন্তের সঙ্গে ওই জনসমাগমের যোগসূত্র রয়েছে বলে দাবি সরকারের। তবে এই অভিযোগ অ’স্বীকার করেছেন তিনি।

দিল্লি পুলিশকে পাঠানো চিঠিতে মাওলানা সা’দ লিখেছেন, গত ১ ও ২ এপ্রিল পাঠানো দুটি চিঠির জবাব দিয়ে আমি ইতোমধ্যেই তদন্তে অংশ নিয়েছি। আমি সবসময়ই তদন্তে সহায়তা করতে প্রস্তুত।

দিল্লি পুলিশ জানায়, মাওলানা সা’দের বিরু’দ্ধে ইতোমধ্যেই মামলা হয়েছে। এখন ওই মামলায় ৩০৪ ধারা যুক্ত হবে। অপরাধী প্রমাণিত হলে ১০ বছর পর্যন্ত জেল হতে পারে।

শেয়ার করুন !
  • 5.4K
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply