এই কিম সেই কিম নয়, আসল কিম মৃ’ত!

0

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

সকল গুজব উড়িয়ে দিয়ে গত শুক্রবার (১ মে) প্রায় ২০ দিন পর জনসম্মুখে এসেছিলেন উত্তর কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট কিম জং উন। এর আগে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে দাবি করা হয়েছে যে সং’কটাপন্ন অবস্থায় আছেন কিম জং উন। আবার কিছু গণমাধ্যম দাবি করেছে যে মা’রা গেছেন উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ প্রেসিডেন্ট কিম জং উন।

তবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কিমের সাম্প্রতিক ছবি পোস্ট করে অনেকেই দাবি করেছেন জনসম্মুখে আসা কিম আসল কিম নয়। সেটি তার ডাবল বডি অর্থাৎ অবিকল কেউ। সেখানে একটি ছবিতে কানের আকৃতি তুলনা করা হয়েছে। যেখানে স্পষ্ট পার্থক্য দেখা যাচ্ছে। তবে এর মধ্যে বেশির ভাগ কিমের ছবিই বেশ পুরনো।

কিমের ডাবল বডির বিষয়ে প্রথম টুইট করেন চিনা ব্লগার জেনিফার জেং। এক টুইট পোস্টে তিনি দাবি করেছেন, মে দিবসে যে কিম জন সম্মুখে এসেছেন তিনি আসল কিম নন। ওই টুইটে জেনিফার জেন বলেন, মে দিবসে যিনি প্রকাশ্যে এসেছেন তিনি কি আসল কিম! ৪টি জিনিস দেখতে হবে- ১) দাঁত, ২) কান, ৩) চুল ও ৪) তার সার্বক্ষণিক সঙ্গী বোন।

এদিকে কিমকে নিয়ে সাধারণ মানুষের মধ্যেও তৈরি হয়েছে এমন প্রশ্ন। এ নিয়ে আরেকজন টুইটে লিখেছেন, আমার মনে হয় তিনি মা’রা গেছেন এবং তার অবিকল কাউকে সেখানে আনা হয়েছে।

কিমের সাম্প্রতিক ছবি দেখে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন যুক্তরাজ্যের সাবেক এমপি লুইস মেনশ। এক টুইট বার্তায় তিনি বলেন, এটা ওই মানুষটি নয়। তবে আমি তর্কে যাবো না। তার দাঁতের আকার এবং ঠোঁটের উপরে কিউপিড বো সম্পূর্ণ আলাদা।

প্রসঙ্গত, গত ১২ এপ্রিলের পর থেকে প্রকাশ্যে দেখা যাচ্ছিল না উত্তর কোরিয়ার এই একনায়ক শাসককে। গুজব ওঠে কিম মা’রা গেছেন। এমনকি গত ১৫ এপ্রিল পিতামহ এবং উত্তর কোরিয়ার প্রতিষ্ঠাতা কিম ইল সুংয়ের জন্মদিন অনুষ্ঠানেও অনুপস্থিত ছিলেন কিম। বিষয়টি গুজবের আগুনে ঘি ঢালে।

এরপর গত সপ্তাহে কোরিয়ান পিপলস রেভুল্যুশনারি আর্মির ৮৮তম বার্ষিকীর মতো গুরুত্বপূর্ণ অনুষ্ঠানেও দেখা যায়নি কিমকে। এসব বিষয়কে নজরে এনে কিম মা’রা গেছেন আশ’ঙ্কার খবর প্রকাশ করে কয়েকটি সংবাদমাধ্যমে।

এরইমধ্যে প্রতিবেশী দেশ দক্ষিণ কোরিয়ার গণমাধ্যম কোরিয়া জংআং ডেইলি জানায়, করোনায় আক্রা’ন্ত হয়েছে কিমের এক নিরাপত্তারক্ষী। আর এ কারণেই বেশ কয়েকদিন ধরে আইসোলেশনে রয়েছেন কিম।

এছাড়া নিউইয়র্ক পোস্টসহ কিছু সংবাদমাধ্যম জানায়, গত বছরের আগস্ট থেকে হার্টের নানা সমস্যায় ভুগছেন কিম। এপ্রিলের শুরুতে পায়েকতু নামের এক পাহাড়ি এলাকা থেকে ঘুরে আসার পর থেকেই তার সেই সমস্যা আরও বাড়ে। সেজন্য করোনাকালে সতর্কতাস্বরূপ আড়ালে গিয়ে থাকছেন কিম। তবে কিমের মৃ’ত্যু বা অসুস্থতার খবর সব সময়ই উড়িয়ে দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

গত সোমবার হোয়াইট হাউসে নিয়মিত ব্রিফিংয়ের সময় কিমের ব্যাপারে ট্রাম্প বলেছেন, হ্যাঁ, কিম কেমন আছেন আমি জানি। কিন্তু এ ব্যাপারে এখনই আমি কিছু বলব না। আমি আশা করি, তিনি ভালো আছেন। খুব দ্রুতই আপনারাও তার ব্যাপারে জানতে পারবেন। আমি কেবল তার শুভ কামনা করছি।

শেয়ার করুন !
  • 181
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply