ঠাকুরগাঁওয়ে অণ্ডকোষ টিপে ধরে হ’ত্যা, কলেজ ছাত্রী গ্রেপ্তার

0

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি:

ঠাকুরগাঁওয়ে অণ্ডকোষ টিপে ধরে হ’ত্যার অভিযোগে এক কলেজ ছাত্রীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (৮ মে) রানীশংকৈল উপজেলায় পদমপুর শালবাড়ী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। গ্রেপ্তার জবেদা (২০) শালবাড়ী গ্রামের মোজাম্মেল হোসেনের মেয়ে এবং স্থানীয় একটি কলেজের শিক্ষার্থী।

মামলার বিবরণ থেকে জানা যায়, শুক্রবার সকাল ৬টার দিকে ফজরের নামাজ পড়ে বাড়ি ফিরছিলেন আব্দুল লতিব। এ সময় তিনি দেখতে পান তার প্রতিবেশী সুফিয়া বেগম (৮০) নামে এক বৃদ্ধাকে তারই বাড়ির সামনের রাস্তায় মা’রধর করছে কলেজছাত্রী জবেদা। আব্দুল লতিব বৃদ্ধাকে বাঁচাতে এগিয়ে গেলে জবেদা বৃদ্ধাকে ছেড়ে আব্দুল লতিবের অণ্ডকোষ টিপে ধরে। এতে ঘটনাস্থলেই আব্দুল লতিবের মৃ’ত্যু হয়। এ ঘটনায় পুলিশ জবেদাকে গ্রেপ্তার করে।

স্থানীয়রা জানান, আব্দুল লতিবের স্ত্রীসহ ২ ছেলে ও ২ মেয়ে রয়েছে। লতিবের উপার্জনের টাকায়ই পরিবার চলতো।

রানীশংকৈল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, অভিযুক্ত জবেদাকে গ্রেপ্তার করে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। ডেডবডি ময়নাতদন্তের জন্য ঠাকুরগাঁও সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে একজনকে আসামি করে হ’ত্যা মামলা করা হয়েছে।

নওগাঁয় স্বামীর করোনা পজেটিভ শুনেই পালিয়েছেন স্ত্রী!

নওগাঁর বদলগাছীতে স্বামী করোনা ভাইরাসে আক্রা’ন্ত হয়েছেন খবর পেয়ে পালিয়ে গেছেন স্ত্রী। আক্রা’ন্ত যুবকের বাড়ি উপজেলার পাহাড়পুর ইউনিয়নের চাকলা গ্রামে। তিনি ঢাকায় পোশাক কারখানায় কাজ করতেন।

বৃহস্পতিবার (৭ মে) বিকেলে ওই যুবকের রিপোর্ট পজেটিভ শনাক্ত হয়। শুক্রবার (৮ মে) সকালে ওই যুবকের বাড়িসহ আশপাশে কয়েকটি বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে।

আক্রা’ন্ত যুবক বলেন, গাজীপুরে দীর্ঘদিন থেকে পোশাক কারখানায় শ্রমিকের কাজ করতাম। গত কয়েকদিন আগে ঢাকা থেকে বাড়ি আসি। বাড়ি আসার পর থেকেই জ্বর ও কাশি হয়। গত ৩০ এপ্রিল করোনা ভাইরাস পরীক্ষার জন্য উপজেলা মেডিকেল টিম নমুনা সংগ্রহ করে। বৃহস্পতিবার (৭ মে) বিকেলে রিপোর্ট পজেটিভ আসে। রিপোর্ট শুনেই আমার স্ত্রী আমাকে ফেলে রেখে কিছু না বলে তার বাবার বাড়িতে চলে যায়। এদিক সেদিক অনেক খোঁজ করার পর জানতে পারি সে তার বাবার বাড়িতে আছে। আমাকে দেখাশোনা করতে পাারবে না বলেছে।

বদলগাছী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. কানিজ ফারহানা বলেন, ওই যুবক ঢাকা থেকে আসার খবর পেয়ে ৩০ এপ্রিল তার নমুনা সংগ্রহ করা হয়। বৃহস্পতিবার রাতে আসা রিপোর্টে তার শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়। তার অবস্থা এখন অনেকটাই ভাল। আমরা তার সাথে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখব।

বদলগাছী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আবু তাহের বলেন, ওই যুবকের রিপোর্ট পজেটিভ আসার পর তার স্ত্রী বাবার বাড়িতে চলে গেছে। সকালে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা এবং অফিসার ইনচার্জ সহ কয়েকজন ওই যুবকের বাড়িতে যান। তার সাথে কথা বলে সার্বিক খোঁজ খবর নেওয়া হয়।

তিনি আরও বলেন, ওই যুবকের শরীরে তেমন কোনো উপসর্গ বোঝা যাচ্ছে না। তিনি ভালভাবে কথা বলছেন। তার বাড়িসহ আশপাশের ৪টি বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে।

আক্ষে’প নিয়ে যুবক প্রতিবেদককে বলেন, ভালোবেসে বিয়ে করেছিলাম। জীবনে-ম’রণে, সুখে-দুঃখে একসাথে থাকবে বলেছিল সে। কিন্তু আজ বুঝলাম এ সবই মিথ্যা। পৃথিবীতে কেউ কারো আপন নয়।

শেয়ার করুন !
  • 162
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!