বানরের ওপর করোনার ভ্যাক্সিন টেস্টে শতভাগ সফল চীনা বিজ্ঞানীরা!

0

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

মহামা’রী করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে এর ভ্যাক্সিন তৈরিতে গবেষণাগারে নিরলস শ্রম দিয়ে যাচ্ছেন বিজ্ঞানীরা।

ভ্যাক্সিনটির দ্রুত আবিষ্কারে ঝুঁ’কি নিয়েই সরাসরি মানবদেহে এর প্রাথমিক পরীক্ষা চালিয়েছেন যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্রের ভাইরোলজিস্টরা। তবে সেসব পরীক্ষায় এখনও শতভাগ সাফল্য না আসলেও ভিন্ন এক সফলতার কথা জানিয়েছেন চীনা বিজ্ঞানীরা।

তারা বলছেন, বানরের শরীরে একটি নতুন উদ্ভাবিত ভ্যাক্সিন প্রয়োগ করে শতভাগ সাফল্য পেয়েছেন। ভ্যাক্সিনটির নাম – পিকোভ্যাক।

বেইজিংভিত্তিক প্রতিষ্ঠান সিনোভ্যাক বায়োটেক এ ভ্যাক্সিন তৈরি করেছে।

প্রতিষ্ঠানটির বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, প্রচলিত ভাইরাসপ্রতিরোধী প্রক্রিয়া অনুসরণ করেই ভ্যাক্সিনটি তৈরি করা হয়েছে। কোনো প্রাণীর শরীরে এটি প্রয়োগ করলে অ্যান্টিবডি তৈরি হয়, যা ভাইরাস ধ্বং’স করতে সহায়তা করে।

মার্চ মাসের শুরুতে রিসাস ম্যাকাকিউস প্রজাতির একদল বানরের শরীরে নতুন উদ্ভাবিত পিকোভ্যাক ভ্যাক্সিনটি প্রয়োগ করেন চীনা গবেষকরা। এর ৩ সপ্তাহ পর বানরগুলোকে করোনা ভাইরাসের সংস্পর্শে নেয়া হয়। এক সপ্তাহ পরে দেখা যায়, যেসব বানরের শরীরে ভ্যাক্সিন প্রয়োগ করা হয়েছিল তারা করোনায় সংক্র’মিত হয়নি।

আর যেসব বানরকে ভ্যাক্সিন দেয়া হয়নি তাদের ফুসফুসে করোনা ভাইরাসে উপস্থিতি পাওয়া যায়। তাদের মধ্যে কয়েকটির শরীরে নিউমোনিয়ার উপসর্গও দেখা দেয়।

এপ্রিলের মাঝামাঝি পর্যায়ে এ গবেষণার ফলাফল লাভের পর মানবদেহেও পিকোভ্যাকের ট্রায়াল শুরু করে বিজ্ঞানীরা। সূত্র: সিজিটিএন, টাইমস নাউ নিউজ

প্রতিদিন একবার করে নিজের করোনা টেস্টের সিদ্ধান্ত ট্রাম্পের!

করোনা ভাইরাসে জেরবার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে। পরিস্থিতি কিছুতেই বাগে আনতে পারছে না প্রশাসন। এমন অবস্থায় করোনা ঘিরে আরও এক আত’ঙ্ক জাঁকিয়ে বসল মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে।

ট্রাম্পের বার্তা, ‘তার সঙ্গে আমার খুবই অল্প যোগাযোগ ছিল। (ভাইস প্রেসিডেন্ট) মাইক পেন্স-এরও অল্প যোগাযোগ ছিল। মাইককেও টেস্ট করা হয়েছে, আমাকেও করা হয়েছে।’

এই বক্তব্যে ‘তার’ বলে যাকে সম্বোধন করেছেন ট্রাম্প, তিনি ট্রাম্পের সেনারক্ষী, যাকে কিছুদিন আগেই করোনা টেস্টিং এ পজেটিভ পাওয়া গেছে। খবর ওয়ান ইন্ডিয়ার।

টেস্টিং নিয়ে ভী’ত ট্রাম্প! ট্রাম্পের বক্তব্য, টেস্টিং একবার হলেই সবকিছু ধরা যায় না। ফলে এর আগে তিনি সপ্তাহে একদিন করে করোনা টেস্টং করিয়েছেন। তবে এবার থেকে তিনি প্রতিদিন করোনা টেস্টিং করাবেন। এমনটাই তিনি হোয়াইট হাউজে জানিয়েছেন।

এদিকে, ট্রাম্পের সেনারক্ষীর করোনা পজেটিভ মেলায় রীতিমতো উদ্বেগে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। ট্রাম্প জানান, তিনি গতকাল এবং আজ দু’বার টেস্ট করিয়েছেন। তবে তাতেও তিনি সন্তুষ্ট হতে পারছেন না।

এদিকে হোয়াইট হাউজের পক্ষ থেকে বিবৃতি দিয়ে বলা হয়েছে, হোয়াইট হাউজের মেডিকেল ইউনিট জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের মিলিটারি ইউনিটের এক সদস্য যিনি এখানে কর্মরত তার শরীরে করোনার উপস্থিতি পাওয়া গিয়েছে। ফলে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ও ভাইস প্রেসিডেন্টের করোনা টেস্টিং হবে।

শেয়ার করুন !
  • 120
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply