মাঝরাতে মা’তাল পুলিশ কর্মকর্তার কাণ্ড!

0

সময় এখন ডেস্ক:

‘পুলিশ আমাকে এভাবে ধরে রেখেছে কেন? তারা আমাকে ঘিরে রেখেছে। আমাকে যেতে দিচ্ছে না। এটা আমার হল। এটা শহীদুল্লাহ হল। এখানে আমার ছোট ভাই ব্রাদাররা থাকে। আমাকে ছেড়ে দাও বলছি। ভালো হবে না।’

মশিয়ুর রহমান নামে মা’তাল এক এএসপি শাহবাগ থানার এসআই পলাশকে এ কথাগুলো বলছিলেন। শুধু তাই নয়, এ সময় তিনি নিজের পরনের হলুদ রঙের টি-শার্ট ও কালো রঙের প্যান্ট খুলে ফেলেন। এই এএসপিকে নিয়ে রীতিমত বে-কায়দায় পড়ে যান শাহবাগ থানার এসআই পলাশ।

জানা গেছে, গতকাল রোববার রাতে পুলিশ কন্ট্রোলরুম থেকে শাহবাগ থানায় খবর আসে সচিবালয়ের ১ নম্বর গেটের সামনে রাস্তায় একজন পুলিশ অফিসার সিভিলে রাস্তায় পড়ে আছেন। খবর পেয়ে ডিউটিরত এসআই পলাশ সহকর্মীদের নিয়ে দ্রুত ঘটঁনাস্থলে যেয়ে বে-সামাল অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে যান।

ঢাকা মেডিকেলে স্টমাক ওয়াশের প্রস্তুতি দেখে এক পর্যায়ে এএসপি মশিয়ুর দৌড়ে বের হয়ে গেলে পুলিশও তার পিছু পিছু ছোটে। একপর্যায়ে ঢাবি ক্যাম্পাসের শহীদুল্লাহ হলের গেটের সামনে পুলিশ তাকে আটকায়।

এ সময় এএসপি মশিয়ুর তার জামা-কাপড় খুলে চিৎকার করতে করতে বলেন, এটা আমার হল। এখানে আমার ছোট ভাই ব্রাদাররা আছে। আমাকে যেতে দিন। এ সময় আশপাশ থেকে কয়েকজন ছাত্র এগিয়ে এসে বিষয়টি সামাল দেয়ার চেষ্টা করেন। পরে তাকে হাসপাতালের জরুরী বিভাগে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়। সেখানে তার স্টমাক ওয়াশ না করিয়ে হলের ছাত্রদের দায়িত্বে ছেড়ে দেন।

এ বিষয়ে এসআই পলাশ বলেন, ওসি সাহেব বলেছেন, স্যারের ছোট ভাইরা আসলে তাদের হাতে তুলে দিতে। সে অনুযায়ী তাকে ছাত্রদের হাতে বুঝিয়ে দেয়া হয়েছে।

এ ব্যাপারে শাহবাগ থানার ওসি আবুল হাসান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এই পুলিশ কর্মকর্তা বিসিএস ক্যাডারের একজন এএসপি। এর আগেও একাধিকবার এমন কাণ্ড করেছেন। এসব কারনে তাকে সাসপেন্ড করা হয়। এছাড়া তার বিরু’দ্ধে আরও কিছু ঘটনার তদন্ত চলমান। বিষয়টি নতুন কিছু নয়।

এক প্রশ্নের জবাবে ওসি বলেন, এমন ঘটনায় গোটা পুলিশ বাহিনীর ইমেজ ন’ষ্ট হচ্ছে। আজকের (গতকাল) ঘটনায় বিভাগীয় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

সূত্র: যমুনা টিভি

শেয়ার করুন !
  • 16
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!