করোনা নিয়ে গ্রামীণফোনের অ’নৈতিক প্রচারণা বন্ধের দাবি

0

সময় এখন ডেস্ক:

করোনা ভাইরাসের মহামা’রিতে মানুষের অ’সহায়ত্বের সুযোগকে কাজে লাগিয়ে গ্রামীণফোনের অ’নৈতিক ও অ’বৈধ ব্যবসা করার নীতি বন্ধের দাবি জানিয়েছে মোবাইল অপারেটর রবি, বাংলালিংক ও টেলিটক।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনকে (বিটিআরসি) লেখা একটি যৌথ চিঠিতে তারা বলছে, গ্রামীণফোনের এ ব্যবসায়িক প্র’তারণা অন’তিবিলম্বে বন্ধ করে তাদের ওপর প্রযোজ্য এসএমপি (সিগনিফিক্যান্ট মার্কেট পাওয়ার) নীতিমালার বাস্তবায়ন করতে হবে। এটি না করা হলে ছোট অপারেটরদের এ মার্কেট থেকে ব্যবসা গুটিয়ে চলে যাওয়া ছাড়া আর কোনো বিকল্প থাকবে না।

যৌথ এ চিঠিতে স্বাক্ষর করেছেন রবির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মাহতাব উদ্দিন আহমেদ, বাংলালিংকের সিইও এরিক অস এবং টেলিটকের এমডি শাহাব উদ্দিন।

চিঠিতে বলা হয়েছে, করোনা দুর্যোগের শুরু থেকেই ৩ অপারেটর (রবি, বাংলালিংক ও টেলিটক) সাধ্যমতো দেশের জনগণের পাশে দাঁড়াতে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। এর মধ্যে রয়েছে ডেটা প্যাকের মূল্য ৬০% পর্যন্ত হ্রাস, ভয়েস কলের মূল্য ২০ শতাংশ হ্রাস, মেয়াদ শেষ হওয়া সিমের মেয়াদ বৃদ্ধি, জরুরি খাদ্য সহায়তা প্রদান, চিকিৎসা সুরক্ষা সামগ্রী প্রদান, করোনা আক্রা’ন্ত ব্যক্তি এবং এলাকা শনাক্তকরণে মোবাইল প্রযুক্তির সুবিধা কাজে লাগিয়ে সরকারকে তথ্য-উপাত্ত প্রদানের মাধ্যমে সিদ্ধান্ত গ্রহণে সহায়তাসহ নানা পদক্ষেপ।

অথচ এ সময় শীর্ষ অপারেটর ফ্রি মিনিট ও ডেটা প্রদানের নামে মূল্যযু’দ্ধ ঘোষণা করে বাজার ভারসাম্য ন’ষ্ট করে ছোট অপারেটরদের কোণঠাসা করে ফেলতে চাইছে। বন্ধ সিম চালুর অফার হিসেবে ১০ কোটি মিনিট ফ্রি দেওয়ার কথা বলছে গ্রামীণফোন, যা আসলে একটি মার্কেটিং অফার। অথচ এটিকে করোনা দুর্যোগ মোকাবিলায় সিএসআর কার্যক্রম বলা হচ্ছে, যা জনগণের সঙ্গে প্র’তারণার শামিল।

একইভাবে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের রেজিস্টার্ড হাই-ভ্যালু ২৫ হাজার চিকিৎসককে ফ্রি ডেটা দেওয়ার নামে বাজার কু’ক্ষিগত করার পাঁয়তারা করছে গ্রামীণফোন, যা এসএমপি অপারেটর হিসেবে কোনোভাবেই তারা করতে পারে না।

প্রসঙ্গত, গত শুক্রবার করোনাকালীন দুযোর্গে গ্রাহকদের সহযোগিতার জন্য ১০০ কোটি টাকার প্যাকেজ ঘোষণা করে গ্রামীণফোন। এতে বিনামূল্যে ১০ কোটি মিনিট, চিকিৎসকদের ৩০ জিবি ফ্রি ডেটা, রিটেইলারদের ব্যবসায়িক সহযোগিতা প্রদানসহ বেশ কয়েকটি ঘোষণা দেয় গ্রামীণফোন। প্রায় সবগুলি পদক্ষেপই নিজেদের ব্যবসা বাড়াতে বাজারমুখী পদক্ষেপ যা করপোরেট সামাজিক দায়বদ্ধতার (সিএসআর) নামে চালিয়ে দেওয়া হয়।

এমন অবস্থায় ছোট অপারেটরদের টিকে থাকার স্বার্থে এসএমপি বিধিমালার বাস্তবায়ন জরুরি ভিত্তিতে কার্যকর করার দাবি জানানো হয় রবি, বাংলালিংক ও টেলিটকের যৌথ চিঠিতে।

শেয়ার করুন !
  • 155
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply