শুক্রবারও সড়কে গাড়ি, মার্কেটে ভিড়, নেই অনেকের মাস্কও!

0

সময় এখন ডেস্ক:

করোনার এ সময় সবাইকে ঘরে থাকতে বলা হলেও রাজধানীর মার্কেট ও শপিংমলে দেখা গেছে প্রচুর ভিড়। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার নির্দেশনা বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই মানছেন না কেউই। এদিকে, সাপ্তাহিক ছুটির দিন হলেও রাজধানীর সড়কগুলোতে যানবাহনও ছিলো বেশি।

শুক্রবার (১৫ মে) সকালে রাজধানীর বিজয় সরণীর দৃশ্য। করোনা ঠেকাতে সাধারণ ছুটির মধ্যেই বাইরে বের হয়েছেন অসংখ্য মানুষ। সড়কে ছিলো যানবাহনের চাপ। তবে প্রয়োজন ছাড়া লোকজনের বাইরে আসা ঠেকাতে আগের মতো নজরদারি নেই কোথাও। চেকপোস্টগুলোতেও নেই তেমন কড়াকড়ি।

শুক্রবার সকাল থেকেই শপিং মল ও বিভিন্ন মার্কেটে ভিড় জমান ক্রেতারা। রাজধানীর প্রগতি সরণির সুবাস্তু শপিংমলে প্রবেশে সকাল থেকেই দেখা যায় দীর্ঘ লাইন। মানা হয়নি সামাজিক দূরত্ব ও যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি। গুলশান ১ নম্বরের ডিএনসিসি মার্কেটেও দেখা যায়নি সামজিক দূরত্ব মেনে চলার নির্দেশনা। অ’সচেতন ক্রেতারা মাস্ক ছাড়াই কেনাকাটা করছেন।

কথা হয় কয়েকজন ক্রেতার সাথে। কিন্ডারগার্টেন স্কুলের শিক্ষক রাজিয়া সুলতানা (২৫) তার শিশু কন্যা আফিয়া (৬)-কে নিয়ে বেরিয়েছেন। মা-মেয়ে দু’জনের কারোই মুখে মাস্ক নেই। গণমাধ্যমকর্মী পরিচয় দেয়ায় ওড়না দিয়ে মুখ ঢেকে ফেললেন। এমন অ’রক্ষিত অবস্থায় কেন শিশুকে নিয়ে বেরিয়েছেন- জানতে চাইলে বলেন, ঈদ আসছে তাই ওর জন্য কিছু জামা কাপড় আর জুতা কিনতে বেরিয়েছি। মাস্ক নেই কেন- জানতে চাইলে হেসে বলেন, ভুলে রেখে এসেছি।

আজমল হুদা (৬০) জানালেন, অনেকদিন ঘর থেকে বেরোতে পারছেন না বলে অ’স্থির লাগছিল, তাই বেরিয়েছেন বাইরের পরিস্থিতি দেখতে!

রোজিনা আক্তার (৫০) এর সাথে তার ২ কন্যা এবং এক নাতি রয়েছে। সবার হাতে দেখা যাচ্ছিল অনেকগুলো করে শপিং প্যাকেট। দিনভর কেনাকাটা সেরে সবাই বাসায় ফিরছেন। এক মেয়ে ছাড়া আর কারো মুখেই ছিলো না মাস্ক। কেউ ধুয়ে দিয়েছেন, কেউ বাসায় ফেলে এসেছেন বলে অজুহাত দেখালেন।

দেখা যাচ্ছিল, রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় ফুটপাতেও বসেছে অ’স্থায়ী দোকান। সেখানের চিত্র আরো খারাপ। সামাজিক দূরত্ব মেনে চলা তো দূরের কথা, কারও কাছে নেই কোনো সুরক্ষা ব্যবস্থাও।

শেয়ার করুন !
  • 50
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply