তাইজুল না থাকলে নিউজিল্যান্ডে আমরা কেউ বাঁচতাম না: তামিম

0

স্পোর্টস ডেস্ক:

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে সন্ত্রা’সী হাম’লার স্মৃতি এখনো বিশ্বের মানুষকে কাঁপিয়ে দেয়। ২০১৯ সালের মার্চ মাসে ক্রিকেট বিশ্বে ঘটে যেতে পারতো ইতিহাসের সবচেয়ে বড় দুর্ঘটনা। একসঙ্গে পরপারে চলে যেতে পারতেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের ৮-১০ জন ক্রিকেটার। নিউজিল্যান্ডে সেই সন্ত্রা’সী হাম’লায় অবশ্য প্রবাসী কয়েকজন বাঙালি নিহ’ত হয়েছিলেন।

সেদিন ছিল শুক্রবার। ক্রাইস্টচার্চে অনুশীলন শেষে মসজিদে জুমার নামাজ পড়তে যাওয়ার যাওয়ার কথা ছিল টাইগারদের। যাওয়ার সময় অ’জ্ঞাত এক নারীর সতর্কবার্তায় হাম’লাস্থল মসজিদে যাওয়ার রাস্তা থেকেই মাঠে ফিরে গিয়েছেন তামিমসহ দলের খেলোয়াড়রা। কিন্তু না; সেদিন তাইজুলের একটু দুষ্টুমির কারণেই মসজিদে যেতে দেরি হয় টাইগারদের, না হয় আরও আগেই যেতেন তারা। একটু পরে যাওয়ার কারণেই মূলত বেঁচে যান তারা।

গতকাল এক ফেসবুক লাইভ আড্ডায় তামিম ইকবাল ওই ঘটনার কথা স্মরণ করে বলেন, তাইজুল যদি নিউজিল্যান্ডে না থাকতো আর সে যদি দুষ্টুমিটা না করতো, তাহলে আমরা কেউ বেঁচে থাকতাম না। একমাত্র লিটন দাস বেঁচে থাকতো, ও হোটেলে ছিল। তাইজুলের স্পেশালিটি হলো সে কোনোভাবেই হার মানতে চায় না।

খেলা শেষে যখন মসজিদের দিকে যাচ্ছিলের তখন মিনিট দুয়েকের হেরফের হয়েছে। এই ২ মিনিটের কারণে অনেক কিছু ঘটে যেতে পারতো। তামিম বলেন, ওই অ্যাটাকে আমরা যদি ২ মিনিট আগেও পৌঁছাতাম, আমরাও এই অ্যাটাকের মধ্যে পড়ে যেতাম। তাইজুল মুশফিকের সাথে কনটেস্ট করছিল ওয়ান টু ওয়ান ফুটবল। ওখানেই আমাদের তিন চার মিনিট লেট হয়ে গেছে। তুই যদি সেদিন না খেলতি তাইজুল আমরা কেউ বেঁচে থাকতাম না।

গত বছরের ১৫ মার্চ নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে শ্বেতাঙ্গ এই সন্ত্রা’সীর গু’লিতে ৫ জন বাংলাদেশিসহ ৫১ জন মুসলমান নিহ’ত হন। এ ঘটনায় আরও অনেকেই আহত হয়েছেন। এ হাম’লা থেকে অল্পের জন্য বেঁচে যান বাংলাদেশের ক্রিকেট দলের কয়েকজন সদস্য।

শেয়ার করুন !
  • 95
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!