করোনা-ক্রাইসিসে জনগণের পাশে সত্যিকার জনপ্রতিনিধি যারা

0

বিশেষ প্রতিবেদন:

করোনা-ক্রাইসিসে সবচেয়ে বেশি সমালোচিত হয়েছেন জনপ্রতিনিধিরা। স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের বিরু’দ্ধে ত্রাণের জিনিসপত্র লোপাটের অভিযোগ উঠেছে। আর ছিল স্থানীয় এমপিদের বিরু’দ্ধে নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগ। বিশেষতঃ যারা ব্যবসায়ী, কোটিপতি, ধনী এমপি, তারা ঢাকায় বসে আছেন, এলাকার খোঁজ খবর নিচ্ছেন না- এমন অভিযোগও পাওয়া গেছে।

তবে সমালোচনার মধ্যেও কিছু কিছু নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি, এমপি এলাকায় নিষ্ঠার সাথে কাজ করে যাচ্ছেন। জনগণের অভাব ও ক’ষ্ট দূর করার জন্য সবকিছু উজাড় করে দিয়েছেন, জনগণও তাদের কাজে মুগ্ধ। এ রকম আলোচিত ১০ জন এমপিকে নিয়ে এই প্রতিবেদন।

১. তোফায়েল আহমেদ

করোনা-ক্রাইসিসের শুরু থেকে তোফায়েল আহমেদ তার এলাকার কোনো মানুষ যাতে দুঃখ দু’র্দশায় না থাকেন, সেই পদক্ষেপ নিয়েছেন। দফায় দফায় তিনি খাবার পাঠাচ্ছেন এবং তার উদ্যোগে সেখানে দু’স্থদের তালিকা তৈরি করা হয়েছে। তাদের নিয়মিত খাদ্য সরবরাহ নিশ্চিত করা হয়েছে। শুধু দু’স্থ নয়, মধ্যবিত্ত ও যারা এখন অভাবে রয়েছেন, তাদেরকেও সহযোগিতা করা হচ্ছে তোফায়েল আহমেদের উদ্যোগে।

২. শামীম ওসমান

নারায়ণগঞ্জের এমপি শামীম ওসমান করোনা-ক্রাইসিসের শুরু থেকেই সাধারণ মানুষের সবচেয়ে নিকটতম বন্ধু হিসেবে আবির্ভূত হয়েছেন। প্রথমত, তিনি দু’র্গতদের ত্রাণ সহায়তা দিচ্ছেন। দ্বিতীয়ত, তার এলাকার করোনায় আক্রা’ন্তরা যাতে চিকিৎসা পায় তা নিশ্চিত করছেন। তার উদ্যোগে করোনা ল্যাব প্রতিষ্ঠা হয়েছে নারায়ণগঞ্জে। শুধু তা-ই নয়, নারায়ণগঞ্জে করোনায় যারা মা’রা যাচ্ছে তাদের দাফন যাতে ঠিকমতো হয় সেই ব্যাপারেও তিনি তদারকি করছেন। করোনা-ক্রাইসিসের সময় তিনি নিজেকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছেন।

৩. নুরুন্নবী শাওন

বিত’র্কিত এমপি নুরুন্নবী শাওন করোনা-ক্রাইসিসের সময় যেন অন্য আলোয় উদ্ভাসিত হয়েছেন। তিনি তার নির্বাচনী এলাকায় পড়ে আছেন। তিনি তার এলাকার দু’র্গত মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন। সারাক্ষণ ত্রাণ তৎপরতা অ’ব্যাহত রেখে তিনি মানুষের ক’ষ্ট দূর করার চেষ্টা করে যাচ্ছেন।

৪. মির্জা আজম

জামালপুরের এমপি মির্জা আজমও এ সময় এলাকায় জনগণের বন্ধু হিসেবেই পরিচিতি পেয়েছেন। করোনা-ক্রাইসিসের এই সময়ে তিনি জনগণের অভাব, দু’র্দশা দূর করার জন্য তাদের পাশে দাঁড়িয়েছেন। জনগণকে বিশেষ করে দরিদ্র মানুষ যেন ত্রাণ সহায়তা পায়, তা নিশ্চিত করার উদ্যোগ নিয়েছেন। মির্জা আজম করোনা আক্রা’ন্ত ব্যক্তিদের চিকিৎসাসহ অন্যান্য বিষয়গুলো নিশ্চিত করার জন্য সব ধরণের ব্যবস্থা গ্রহণ করেছেন।

৫. মাশরাফি বিন মর্তুজা

করোনা-ক্রাইসিসের শুরু থেকেই মাশরাফি বিন মর্তুজা নড়াইলের জন্য অন্যরকমভাবে কাজ করছেন। তিনি এলাকায় যেমন ত্রাণ তৎপরতা চালাচ্ছেন, তেমনি মানুষকে সচেতন করা এবং অসুস্থ মানুষকে চিকিৎসার ব্যাপারেও তার উদ্যোগ প্রশংশা পেয়েছে। হাসপাতালগুলোতে পিপিই প্রদান, জীবাণুনা’শক টানেল তৈরী ছাড়াও সবচেয়ে ব্যতিক্রমী যে কাজটি করেছেন, তা হলো- চিকিৎসা সেবাদানকারী কর্মীরা যেন আক্রা’ন্ত না হন, সেজন্য রোগীদের নমুনা সংগ্রহের জন্য বুথ তৈরী করে দিয়েছেন।

৬. শেখ তন্ময়

শেখ তন্ময় করোনা-ক্রাইসিসের সময় একদিকে যেমন ত্রাণ সহায়তা দিয়েছেন, তেমনি চিকিৎসা ব’ঞ্চিত মানুষদের ঘরে চিকিৎসা সেবা পৌঁছে দেওয়ার অভিনব উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। তার এসব উদ্যোগ ব্যাপকভাবে জনগণের কাছে অভিনন্দিত ও প্রশংসিত হয়েছে।

৭. নূর-ই-আলম চৌধুরী (লিটন চৌধুরী)

মাদারীপুর থেকে নির্বাচিত এমপি নূর-ই-আলম চৌধুরী (লিটন চৌধুরী) করোনা-ক্রাইসিসে সার্বক্ষণিকভাবে তার নির্বাচনী এলাকার মানুষের পাশে আছেন। তাদের সব ধরনের সমস্যা ও অভাব দূর করার জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। সরকারের দিকে না তাকিয়ে নিজ উদ্যোগে তিনি নিয়মিত গরীব মানুষের মাঝে ত্রাণ সহায়তা করে যাচ্ছেন।

৮. শেখ হেলাল

বাগেরহাট-১ আসনের সংসদ সদস্য শেখ হেলাল তার এলাকায় করোনা-ক্রাইসিসের পর থেকে নিয়মিত ত্রাণ তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছেন। ফলে সেখানে ত্রাণ নিয়ে কোন অভিযোগ নাই। গরীব মানুষের মধ্যে কোন খাদ্য সং’কট বা অন্য কোনো অভিযোগ একেবারেই নেই।

৯. শাহরিয়ার আলম

রাজশাহীর এমপি শাহরিয়ার আলম তার নির্বাচনী এলাকায় নিয়মিত ত্রাণ সহায়তা করে যাচ্ছেন। মানুষকে নগদ সহায়তা দিয়ে যাচ্ছেন। বিশেষ করে দুঃস্থ মানুষের মাঝে নিয়মিত খাদ্য সরবরাহ করে তিনি এলাকায় জনবন্ধু হিসেবে আলোচিত হয়েছেন।

১০. একরাম চৌধুরী

নোয়াখালীর এমপি একরাম চৌধুরী করোনা-ক্রাইসিসের সময় নিজ উদ্যোগে জনগণের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করছেন। দু’স্থ মানুষের পাশাপাশি নিন্ম আয়ের মানুষকে ত্রাণ দিয়ে তিনি এলাকায় জনবান্ধব এমপি হিসেবে নিজেকে আরেকবার প্রমাণ করেছেন।

এছাড়াও আরও কয়েকজন এমপি করোনা-ক্রাইসিসের সময় নিজ নিজ এলাকায় কাজ করে যাচ্ছেন। তবে এটা বলতেই হয় যে, সিংহভাগ এমপি এ সময় মানুষের পাশে নেই। বিশেষ করে যারা ব্যবসায়ী বা অন্য পেশা থেকে এসে নির্বাচিত এমপি হয়েছেন তাদেরকে এখন দেখা যাচ্ছে না।

শেয়ার করুন !
  • 1.7K
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply