‘সুস্থতার জন্য হাসপাতাল থেকে বাড়িতে নিলেও উন্নতি নাই খালেদার’

0

সময় এখন ডেস্ক:

দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) কর্তৃক দায়েরকৃত দুর্নীতির মামলায় সাজাপ্রাপ্ত আসামী বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া জেলহাজতে থাকাকালীন সময় তার আইনজীবীদের আবেদনের ভিত্তিতে চিকিৎসার জন্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে আনা হয়েছিল। তবুও তার আইনজীবী, দলের নেতাকর্মী এবং স্বজনরা তার চিকিৎসায় সন্তুষ্ট ছিলেন না।

অতঃপর মানবিক কারন দেখিয়ৈ গত ২৫ মার্চ নির্বাহী আদেশে ৬ মাস সাজা স্থ’গিত রেখে সরকার খালেদা জিয়াকে প্যারোলে মুক্তি দেয়। এতে তার পরিবারের লোকজন এবং বিএনপির নেতাকর্মীরা সরকার প্রধান শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ দেন এবং জানান, এবার খালেদা জিয়া সুস্থ হয়ে উঠবেন বাসায় থেকে।

মুক্তির পর থেকে খালেদা জিয়া বাসার বাইরে বের হননি, দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও বিশেষ সহকারী শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস ছাড়া কোনো নেতাকর্মীরা সাথেও সাক্ষাৎ করেননি।

এদিকে, বাসায় থাকার কারণে খালেদা জিয়া মানসিকভাবে স্বস্তিতে থাকলেও তার শারীরিক অবস্থার কোনো উন্নতি হয়নি বলে জানিয়েছেন মির্জা ফখরুল। আজ মঙ্গলবার দুপুরে গুলশানে চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে বিএনপি মহাসচিব এ কথা জানান।

সংবাদ সম্মেলনে মির্জা ফখরুল আবেগময় গলায় বলেন, উনি (খালেদা জিয়া) আমাকে ডেকেছিলেন, আমি গিয়েছিলাম। তার অসুস্থতার খবরগুলো জানার চেষ্টা করেছি। বাসায় আসার কারণে নিঃসন্দেহে মানসিকভাবে একটা রিলিফ তিনি পেয়েছেন। সে কারণে তিনি মানসিক দিক দিয়ে একটু বেটার আছেন।

আর স্বাস্থ্যগত দিক থেকে, তার অসুখের দিক থেকে খুব একটা ইম্প্রুভমেন্ট তার একদমই হয় নাই। তার তো চিকিৎসাই হচ্ছে না। কারণ হাসপাতাল তো বন্ধ প্রায়। হাসপাতালে গিয়ে তিনি পরীক্ষা করাবেন, সেই সুযোগও নেই।

দুর্নীতির মামলায় সাজাপ্রাপ্ত খালেদার প্যারোলে মুক্তির শর্ত হিসেবে দেশের বাইরে না যেতে পারার কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, উনি আগের যে চিকিৎসা- তার ব্যক্তিগত যেসব চিকিৎসক রয়েছেন, তাদের সঙ্গে পরামর্শ করে চিকিৎসা কনটিনিউ করছেন।

গত ১১ মে রাতে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর গুলশানে ফিরোজায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সাথে সাক্ষাৎ করেন। মুক্তির পর এটি তার প্রথম সাক্ষাৎ।

মুক্তির পর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে থেকে নিজের বাসায় ওঠেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী। এরপর থেকে তিনি চিকিৎসকদের পরামর্শে কোয়ারান্টাইনে চলে যান। ফলে নেতারা কেউ তার সঙ্গে দেখা করছেন না।

গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে এই সংবাদ সম্মেলন হয়।

শেয়ার করুন !
  • 71
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!