বারাক ওবামা ছিলেন অযোগ্য প্রেসিডেন্ট: ট্রাম্প

0

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসনের ব্যর্থতার প্রসঙ্গ তুলে শনিবার তাকে একহাত নেন বারাক ওবামা। পূর্বসূরির সমালোচনায় মুখ বুঁজে বসে থাকেননি ট্রাম্প। রবিবার মেরিন ওয়ানে হোয়াইট হাউজে ফিরেই ওবামাকে পাল্টা জবাব দেন তিনি। ওবামাকে তিনি অযোগ্য প্রেসিডেন্ট বলে মন্তব্য করেছেন। ফক্স নিউজ।

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে দেওয়া ভাষণে শনিবার করোনা মোকাবিলায় ট্রাম্প প্রশাসনের ব্যর্থতা তুলে ধরে ওবামা বলেছিলেন, সবচেয়ে বড় ব্যাপার হলো, এই মহামা’রী ফাঁ’স করে দিয়েছে যে দায়িত্বে থাকা অনেকেই জানেন তারা কী করছেন। এমনকি তাদের অনেকে দায়িত্ব পালনের ভানও করার প্রয়োজন মনে করেন না।

ওবামার এমন সমালোচনার পর ট্রাম্প তার সম্পর্কে সাংবাদিকদের বলেছেন, দেখুন, তিনি ছিলেন একজন অযোগ্য প্রেসিডেন্ট। আমি এতটুকুই বলতে পারি। পুরোপুরি অযোগ্য।

পরে টুইটে ট্রাম্পের দল রিপাবলিকান ওবামা প্রশাসনকে ‘যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে অন্যতম দুর্নীতিপরায়ণ ও অযোগ্য’ বলে সমালোচনা করেছে।

২০০৮ সালের নভেম্বরের নির্বাচনে জনপ্রিয় ও ইলেক্টোরাল- উভয় ভোটেই বিশাল ব্যবধানে বারাক ওবামা যুক্তরাষ্ট্রের ৪৪তম প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন। দুই মেয়াদে ক্ষমতায় থাকার পর ডেমোক্র্যাট এ নেতা সক্রিয় রাজনীতি থেকে সরে এসেছেন।

২০১৬ সালের নভেম্বরের নির্বাচনে জনপ্রিয় ভোটে হিলারি ক্লিন্টনের চেয়ে ৩০ লাখের মতো ভোট কম পেলেও ইলেক্টোরাল ভোটে এগিয়ে থেকে যুক্তরাষ্ট্রের ৪৫তম প্রেসিডেন্ট হন রিপাবলিকান ডোনাল্ড ট্রাম্প।

চীন চাইলে করোনা উহানেই ঠেকিয়ে দিতে পারত: ট্রাম্প

করোনা ভাইরাসের দায় আবারও ঘুরিয়ে ফিরিয়ে চীনের ঘাড়েই ফেললেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প!

তবে এ বার কিছুটা সুর নরম করে ট্রাম্প বললেন, চীন হয় বড় একটা ভুল করে ফেলেছে, না হয় ওরা ব্যাপারটা সামলাতেই পারেনি। আমি নিশ্চিত, কোনও একজনের বোকামির ফল আজ ভু’গতে হচ্ছে গোটা বিশ্বকে।

চীন চাইলে উহানেই করোনাকে ঠেকিয়ে দিতে পারত, এমন দাবি এর আগেও করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। গত বুধবার সংবাদ সস্মেলনে তিনি আবারও একই দাবি করলেন। রয়টার্সের।

এর আগে একবার কার্যত দিশাহীনভাবে তাকে বলতে শোনা গেছে, আসন্ন নির্বাচনে আমাকে হারাতেই করোনা ষড়’যন্ত্র তৈরী করেছে বেইজিং। আমেরিকার কাছে পাল্টা প্রমাণ চেয়ে চাপ বজায় রেখেছে চীন।

শেয়ার করুন !
  • 52
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply