❝খালেদা কেন জিয়া হ’ত্যার বিচার করেননি, তা রহস্যজনক❞

0

সময় এখন ডেস্ক:

তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাছান মাহমুদ বলেছেন, বেগম খালেদা জিয়া দুই দফা ক্ষমতায় থেকেও জিয়াউর রহমানের হ’ত্যার বিচার না করা রহস্যজনক। জনগণের মনেও এটি প্রশ্ন যে, বিচার করলে থলের বিড়াল বেরিয়ে যাবে, এ জন্যই কি তিনি বিচার করেননি?

গতকাল রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে সমসাময়িক বিষয়ে সাংবাদিকদের সাথে সংক্ষিপ্ত মতবিনিময়কালে এ কথা বলেন তিনি।

প্রসঙ্গত, বিএনপির প্রথমদফা শাসনামলে কার্যত ‘ধামাচাপা’ অবস্থায় ছিল মামলাটি। এরপর আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলে আদালতের নির্দেশে সিআইডি’র মাধ্যমে তদন্ত করে মামলাটি পুনরুজ্জীবীত করার চেষ্টা করা হয়। কিন্তু বিএনপি ২য় দফায় ক্ষমতাগ্রহণের আগমুহূর্তে সিআইডি আদালতে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দাখিল করে মামলাটি নি’ষ্পত্তির আবেদন করে। এরপর ৫ বছর বিএনপি ক্ষমতায় থাকলেও রাষ্ট্রপক্ষ সিআইডির চূড়ান্ত প্রতিবেদনের কোনো না-রাজি আবেদন আদালতে দাখিল করেনি।

সে সময় চট্টগ্রাম আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে দায়িত্ব পালনকারী আইনজীবীরা বলেছেন, বিএনপি নেতাদের অ’সহযোগিতার কারণে এই মামলার বিচার হয়নি। বেসামরিক আদালতে বিচারের জন্য দায়ের হওয়া মামলার তদন্ত সংক্রান্ত সব নথি বিএনপির প্রথমদফা শাসনামলে গায়েব করে ফেলা হয়। পরবর্তীতে সিআইডি তদন্ত করতে গিয়ে ঘটনার কোনো আলামত, লা’শের সুরতহাল ও ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনও খুঁজে পায়নি।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, সরকারের সুদক্ষ ব্যবস্থাপনার কারণেই এখনো আশপাশের দেশ ও ইউরোপ-আমেরিকার চেয়ে আমাদের দেশে করোনায় আক্রা’ন্তদের মৃ’ত্যুহার অনেক কম। কিন্তু রুহুল কবির রিজভীসহ বিএনপি নেতারা যেভাবে কথাবার্তা বলছেন, তাতে মনে হয় তারা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার উপদেষ্টার দায়িত্ব পেয়েছেন। তিনি বিএনপিকে মিথ্যাচার না করে জনগণের পাশে এসে দাঁড়ানোর, প্রয়োজনে তাদের সাথে কাজ করার অনুরোধ করেন।

করোনা মোকাবিলায় উহানে করোনার প্রা’দুর্ভাব দেখা দেওয়ার সাথে সাথে প্রধানমন্ত্রী দেশের মানুষের সুরক্ষায় নানা পদক্ষেপ নিয়েছেন উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, চীনসহ অন্যান্য দেশ থেকে তখন যারাই এসেছেন, সবাইকে হোম এবং প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারান্টাইনে পাঠানো হয়। দেশে আসা সব পণ্যবাহী জাহাজকে বহির্নোঙরে রেখে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে নিশ্চিত হওয়ার পরই ভিড়তে দেওয়া হয়েছে, স্থলবন্দরের জন্যও সেই ব্যবস্থা ছিল। তবে এর পরও বিশ্বের অন্যান্য দেশ নানা পদক্ষেপ নিয়েও যেমন মুক্ত থাকতে পারেনি, বাংলাদেশও পারেনি।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্যবিষয়ক সম্পাদক রোকেয়া সুলতানা, দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, উপ-দপ্তর সম্পাদক সায়েম খান প্রমুখ।

শেয়ার করুন !
  • 297
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply