পুত্রবধূকে যৌ’ন-হয়রা’নি, শ্বশুরের গলায় জুতার মালা

0

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি:

সিরাজগঞ্জে পুত্রবধূকে যৌ’ন নির্যা’তনের অভিযোগে গ্রাম্য সালিশের রায়ে শ্বশুরকে জুতার মালা পড়িয়ে পুরো গ্রাম ঘোরানো হয়েছে।

শনিবার সদর উপজেলার মেছড়া ইউনিয়নের বালিয়ামেন্দা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ইউনিয়নের পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মজিদের নেতৃত্বে সালিশ বৈঠকে এমন রায় হওয়ায় স্থানীয়দের মধ্যে মুখরোচক আলোচনা শুরু হয়েছে।

সালিশি সূত্রে জানা যায়, ১ বছর আগে মেছড়া ইউনিয়নে তেঘুরী গ্রামের শাহ আলীর মেয়ে কবিতা খাতুনের (১৭) সাথে বালিয়ামেন্দা গ্রামের আমির হোসেনের ছেলে শাকিলের (১৯) বিয়ে হয়। পুত্রবধূ সুন্দরী হওয়ায় তার ওপর কু-নজর পড়ে শ্বশুর আমির হোসেনের। স্বামী শাকিল বাড়িতে না থাকায় বিভিন্ন সময় তাকে কু-প্রস্তাব দেয়। কিন্তু রাজি না হওয়ায় শ্বশুর বিভিন্ন সময় মানসিক ও শারীরিকভাবে নির্যা’তন করত।

এবার ঈদ-উল-ফিতরে স্বামী শাকিল বাড়িতে আসলে শ্বশুরের কু-কর্মের কথা তাকে জানায় গৃহবধূ কবিতা খাতুন। কিন্তু এসব অভিযোগ শাকিল বিশ্বাস করেনি। তাই তাকে বিশ্বাস করাতে স্বামীর সামনেই কবিতা মোবাইল ফোনে শ্বশুরের সাথে প্রেমের অভিনয়ে কথা বলেন। অবস্থা বুঝতে পেরে শাকিল তার বাবার বিরু’দ্ধে এলাকার মুরুব্বী আবু সামা, জয়নাল ও বাদশাকে বিষয়টি জানান।

এরপর গ্রামের মুরুব্বিদের সমন্বয়ে সালিশ বৈঠকের আয়োজন করা হয়। সালিশে মেছড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুল মজিদ স্থানীয় মৌলভীদের ফতোয়ায় বিচারের রায় হিসেবে আমির হোসেনকে পুরো গ্রামে জুতার মালা পড়িয়ে ঘোরানোর নির্দেশ ও রায় কার্যকর করেন।

গৃহবধূ কবিতা খাতুন জানান, গত শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে শ্বশুর আমার ঘরে ঢুকে ধ’র্ষণের চেষ্টা করে। চিৎকারে প্রতিবেশী এগিয়ে আসলে শ্বশুর আমির হোসেন পালিয়ে যায়। বিষয়টি তার স্বামীকে জানানোর পর এ বিচার সালিশের আয়োজন করা হয়েছে।

এ বিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মজিদের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেনি।

সিরাজগঞ্জ সদর থানা অফিসার ইনচার্জ হাফিজুর রহমান জানান, এ বিষয়ে কেউ থানায় অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সরকার অসীম কুমার জানান, শ্বশুরের বিরু’দ্ধে যেসব অভিযোগ আছে, দেশের প্রচলিত আইনেই তার বিচার করা সম্ভব। তা না করে ইউপি চেয়ারম্যান যদি ফতোয়ার দ্বারস্থ হয়ে জুতার মালা পরিয়ে গ্রাম ঘোরায় তবে ইউনিয়ন পরিষদ আইন অনুযায়ী তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

শেয়ার করুন !
  • 543
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply