লকডাউন দিলে পুরো ঢাকাতেই দিতে হবে: ডা. এবিএম আব্দুল্লাহ

0

সময় এখন ডেস্ক:

প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত চিকিৎসক এবং আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন মেডিসিন বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. এবিএম আব্দুল্লাহ বলেছেন, ঈদের পরপরই যদি অন্তত ১০ দিন থেকে ২ সপ্তাহ কঠোর লকডাউন দেওয়া যেত, তাহলে পরিস্থিতি এত খারাপ হতো না। তখন লকডাউন দিলে এই সং’ক্রমণটা এত ছড়িয়ে পড়তো না। করোনা পরিস্থিতি নিয়ে তিনি এ কথা বলেন।

ডা. এবিএম আব্দুল্লাহ বলেন, এখন জোনভিত্তিক যে লকডাউনের কথা বলা হচ্ছে, এটা কার্যকর হতে পারে। এটি করলে দ্রুত করতে হবে এবং সময় ন’ষ্ট করা যাবে না।

তার মতে, এই লকডাউন যেন কার্যকর হয় সেজন্য আমাদের সচেতনতা যেমন দরকার, তেমনি প্রশাসনকেও এ ব্যাপারে নজরদারি বাড়াতে হবে। নিশ্চিত করতে হবে লকডাউন এলাকায় যেন খাদ্য এবং অন্যান্য নিত্য প্রয়োজনীয় চাহিদাগুলো ঠিকঠাক মতো সরবরাহ করা হয়। কারণ যদি খাবারের অভাব হয়, নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য যদি না পায়, তাহলে মানুষ লকডাউন মানবে না। অতীতে আমরা সেটার প্রমাণ পেয়েছি। তাই আমাদেরকে প্রস্তুত হয়ে এবং দ্রুত এই প্রস্তুতিগুলো নিয়ে লকডাউন দিতে হবে।

ডা. আব্দুল্লাহ বলেন, জেলা বা উপজেলা আলাদা করে লকডাউন দেয়া যেতে পারে। কিংবা একটি উপজেলায় নির্দিষ্ট একটি এলাকায় লকডাউন দেওয়া যেতে পারে। কিন্তু ঢাকার মতো ঘনবসতিপূর্ণ নগরে একটি আলাদা এলাকায় লকডাউন দিয়ে খুব একটা ফল হবে না। এখন যে পরিস্থিতি তাতে এটা ছড়িয়ে পড়েছে। অনেক জায়গায় আমরা সং’ক্রমণটা জানি, অনেক জায়গায় জানি না। আর এ কারণেই যদি আমাদের লকডাউন দিতে হয়, তাহলে পুরো ঢাকা শহরেই লকডাউন দেওয়া প্রয়োজন।

ডা. আব্দুল্লাহর মতে, আমাদের আক্রা’ন্তের হার যেভাবে বাড়ছে, তাতে এখন এরকম লকডাউন সর্বশেষ চেষ্টা। এই চেষ্টাটা আমাদের দ্রুতই করতে হবে।

তবে লকডাউনের পাশাপাশি আমাদের স্বাস্থ্য সচেতনতা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আমরা যেন মাস্ক ব্যবহার করি, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখি। অযথা ঘোরাফেরা না করি। এই বিষয়গুলো নিয়ে আমাদের অবশ্যই সচেতন হতে হবে।, জানালেন এই বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক।

ডা. আব্দুল্লাহ বলেন, প্রশাসনের যেমন দায়িত্ব আছে লকডাউন প্রতিপালন করা, কার্যকর করা, তেমনি সচেতন নাগরিক হিসেবে আমাদের দায়িত্ব লকডাউনকে মানা। এবারের লকডাউন যেন সত্যিকার অর্থেই একটা কার্যকরী লকডাউন হয়, সেটা নিশ্চিত করতে হবে।

শেয়ার করুন !
  • 302
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!