করোনার জন্য জাপানের তত্ত্বাবধানে নতুন ৩০০ শয্যার হাসপাতাল চালু

0

স্বাস্থ্য বার্তা ডেস্ক:

করোনা ভাইরাস সং’ক্রমিত কোভিড-১৯ রোগের চিকিৎসায় রাজধানীর উত্তরায় ৩০০ শয্যার জাপান ইস্ট ওয়েস্ট মেডিকেল কলেজ হাসপাতালটি যাত্রা শুরু করেছে। আজ শনিবার দুপুরে অনলাইনে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে হাসপাতালটিকে কোভিড হাসপাতাল হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে।

হাসপাতালটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ডা. মোয়াজ্জেম হোসেন জানান, করোনা ভাইরাসে আক্রা’ন্ত রোগীদের সর্বোচ্চ চিকিৎসা সেবা দেওয়া হবে। কাল থেকে রোগী ভর্তির কার্যক্রম শুরু হবে। এরই মধ্যে হাসপাতালে নিজস্ব পিসিআর ল্যাব স্থাপন করা হয়েছে। যেখানে প্রতিদিন গড়ে ১ হাজার ৮০টি নমুনা পরীক্ষা করা যাবে।

বাংলাদেশ ইস্ট ওয়েস্ট মেডিকেল কলেজ, জাপানের গ্রিন হাসপাতাল সাপ্লাই এবং জাপান ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সি, জাইকার যৌথ উদ্যোগে এই হাসপাতালটি প্রতিষ্ঠিত ও পরিচালিত হচ্ছে।

মোয়াজ্জেম হোসেন জানান, এই হাসপাতালের চিকিৎসক, নার্সসহ স্বাস্থ্যকর্মীদের প্রশিক্ষণ দিয়েছেন জাপানি চিকিৎসকরা।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, কোভিড আক্রা’ন্ত চিকিৎসকদের চিকিৎসার বিষয়টি অগ্রাধিকার দেবে প্রতিষ্ঠানটি। চিকিৎসকদের জন্য ২০টি শয্যা বরাদ্দ থাকবে। ৩০০ শয্যার মধ্যে ২৪টি নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র (আইসিইউ) থাকবে। আর আইসোলেশন বেড থাকবে মোট ৩৬টি।

কোভিড আক্রা’ন্ত রোগীদের মলমূত্র থেকে অন্যান্য ব’র্জ্য আলাদা করতে পরিশোধনাগার (ইটিপি) তৈরি করা হয়েছে বলেও জানান হাসপাতালটির এমডি মোয়াজ্জেম হোসেন।

এবার সরে যেতে হলো স্বাস্থ্যমন্ত্রীর একান্ত সচিবকে

স্বাস্থ্য সচিবের বদলির পর বদলি হলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রীর একান্ত সচিব মোহাম্মদ ওয়াহিদুর রহমান। তাকে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর একান্ত সচিবের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের একটি দায়িত্বশীল সূত্র নিশ্চিত করেছে। মোহাম্মদ ওয়াহিদুর রহমানকে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ে পরবর্তী পদের জন্য ন্যাস্ত করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, জাহিদ মালেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী হওয়ার পর মোহাম্মদ ওয়াহিদুর রহমানকে তার একান্ত সচিব হিসেবে নিয়োগ দেয় জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।

এবার মন্ত্রিসভা গঠিত হওয়ার পর সব মন্ত্রীরই তার একান্ত সচিব জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের তালিকা অনুযায়ী দেওয়া হয়। কোনো মন্ত্রীই তার পছন্দ অনুযায়ী একান্ত সচিব নিতে পারেননি। তবে ওয়াহিদুর রহমান একান্ত সচিব হওয়ার পর ক্রমশ তিনি বিত’র্কে জড়িয়ে পড়েছিলেন।

সাম্প্রতিক সময়ে সিএমএসডির বিদায়ী পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. শহীদউল্লাহ যে অভিযোগগুলো করেছেন সেই অভিযোগে সেই অভিযোগে মন্ত্রীর একান্ত সচিবের প্রসঙ্গও এসেছিল। তবে কী কারণে তাকে বদলি করা হয়েছে সে প্রসঙ্গে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় কোনোকিছু বলেনি।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের একজন উর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলেছেন, এটি একটি রুটিন ওয়ার্ক। যে কোনো সরকারি কর্মকর্তা যে কোনো সময় যে কোনো জায়গায় বদলি হতে পারেন। তবে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে যে শুদ্ধি অভিযান শুরু হয়েছে, সেই অভিযানে প্রথম দফায় সিএমএসডি’র পরিচালককে বদলি করা হয়। এরপর স্বাস্থ্য সচিবকে বদলি করা হয়। এখন মন্ত্রীর একান্ত সচিবকেও বদলি করা হলো।

শেয়ার করুন !
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!