৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীর হাত-পা বেঁধে ধ’র্ষণ করলেন ৬৫ বছরের নানা!

0

কুমিল্লা প্রতিনিধি:

কুমিল্লার হোমনা উপজেলায় ৬ষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রীকে (১৪) হাত-পা-মুখ বেঁ’ধে ধ’র্ষণের ঘটনা ঘটেছে। অভিযুক্ত আবদুল মতিন (৬৫) পেশায় রিক্সাচালক, একইসাথে তিনি সম্পর্কে ওই কিশোরীর নানা হন। গত বৃহস্পতিবার উপজেলার শ্রীমদ্দি গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় ছাত্রীর মা বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছেন। এ দিন সকালে মেয়েটিকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায় পুলিশ।

ছাত্রীর মা বলেন, সেদিন আমি এবং আমার স্বামী ক্ষেতে কাজ করছিলাম। আমার মেয়ে আর ৩ বছরের ছেলে ঘরে ঘুমাচ্ছিল। এই সুযোগে মতিন চাচা এমন কাজ করছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, আবদুল মতিন ওই ছাত্রীর মামার শ্বশুর অর্থাৎ সম্পর্কে তার নানা হন।

ছাত্রীর চাচা নবী বলেন, আমরা কুমিল্লা যাওয়ার জন্য রওয়ানা দিয়েছি। তখন মতিনের ছেলেরা এসে আমাদেরকে মামলা তুলে নেওয়ার জন্য ভয় দেখাচ্ছে।

ওই কিশোরী উপজেলা সদরের খাদিজা মেমোরিয়াল বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী। গত বৃহস্পতিবার সকালে সে ও তার ছোট ভাই তাদের ঘরে ঘুমাচ্ছিল। এমন সময় মতিন ঘরে ঢুকে দরজার খিল আটকে দেয়। পরে তার গায়ের ওড়না দিয়ে হাত, পা ও মুখ বেঁ’ধে ঘটনাটি ঘটায়।

ঐ সময় হোমনা সদরে যাওয়ার উদ্দেশে তাদের ঘরের পাশ দিয়েই যাচ্ছিলেন ভিক্টিমের চাচাতো বোন কুলসুম বিবি। তিনি জানান, মতিন চাচাকে লুঙ্গি এক হাত খোলা লুঙ্গি পরতে পরতে দ্রুত পালিয়ে যেতে দেখেন। তার লুঙ্গির পেছনে ভেজা দাগও দেখেন বলেও অভিযোগে উল্লেখ করা হয়।

গো’ঙানির শব্দ শুনে কুলসুম ঘরে ঢুকে ওই কিশোরীর বি’বস্ত্র অবস্থায় কাঠের চৌকির ওপর দেখতে পান। এ ঘটনা শুনে কিশোরীর চাচী ফাতেমা বেগম স্ট্রোক করেন। তার চিকিৎসায় ছোটাছুটি করতে গিয়ে অভিযোগ দায়েরে একদিন পিছিয়ে যায় বলে অভিযোগে উল্লেখ করা আছে।

পরে শুক্রবার ৮নং পৌর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আবদুল কাদিরের সহায়তায় হোমনা থানায় মামলা করেন ওই স্কুল ছাত্রীর পরিবার। কাউন্সিলর ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, সুবিচার পাওয়ার জন্য তার পরিবারকে আইনিভাবে সহযোগিতা করেছি।

হোমনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কায়েস আকন্দ বলেন, ঘটনা শুনেই পদক্ষেপ নেই। গিয়ে জানতে পারি, আসামি নদী পার হয়ে অন্য উপজেলায় চলে গেছেন, সেখানেও আমরা অভিযান চালাই। তাকে গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে। মতিনের ছেলেরা ভ’য়ভীতি দেখালে তাদেরকেও আইনের আওতায় আনা হবে।

শেয়ার করুন !
  • 2.6K
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!