আল্লামা শফী আইসিইউতে, নার্সদের কাছে না আসার অনুরোধ পরিবারের!

0

চট্টগ্রাম ব্যুরো:

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমির আল্লামা শফীকে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) ভর্তি করা হয়েছে। সেখানে যেন তাকে যেন পুরুষ সহকারীরাই সেবা দেয়, নারী নার্সরা যেন তার কাছে না আসে, তার অনুরোধ জানিয়েছে পরিবার।

আজ রোববার (৭ জুন) সন্ধ্যায় হাটহাজারী থেকে আল্লামা শফীকে চমেক হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন আল্লামা শফীর বড় ছেলে, হাটহাজারী মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষা পরিচালক ও হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের প্রচার সম্পাদক মাওলানা আনাস মাদানী।

তিনি বলেন, বাবা বার্ধক্যজনিত অসুস্থতায় ভুগছেন দীর্ঘদিন ধরে। বিকেল থেকে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। এখন তাকে আইসিইউতে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। বাবার নির্দেশ অনুযায়ী সেখানে যেন বাবার দেখভাল পুরুষ সহকারীরাই করেন, সেই অনুরোধ করা হয়েছে চমেক কর্তৃপক্ষের কাছে। বাবা চেয়েছেন পুরুষ সহকারাীরা যেন তার চিকিৎসার কাজ করেন।

মাওলানা আনাস মাদানীর কাছে জানতে চাওয়া হয়, আল্লামা শফীর কি করোনার উপসর্গ রয়েছে? জবাবে তিনি বলেন, আলহামদুলিল্লাহ, বাবার সে রকম কোনো উপসর্গ দেখা দেয়নি। তার শরীর হঠাৎ করে দুর্বল হয়ে গেছে।

জানা যায়, ১০৩ বছরের বেশি বয়সী আল্লামা শাহ আহমদ শফী এর আগেও কয়েক দফা অসুস্থ হয়ে ভারতসহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। তিনি দীর্ঘদিন ধরে বার্ধক্যজনিত দুর্বলতার পাশাপাশি ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, শ্বাসক’ষ্ট এবং হজমজনিত সমস্যায় ভুগছেন।

প্রসঙ্গত, গত ১১ এপ্রিল শনিবার বার্ধক্যজনিত শারীরিক দুর্বলতাসহ নানা সমস্যা নিয়ে আল্লামা আহমদ শফীকে চট্টগ্রামের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। পরে ১৪ এপ্রিল আরও উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকার আজগর আলী হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। সেখানে বেশ কয়েকদিন চিকিৎসা শেষে হাটাহাজারী ফেরেন।

আল্লামা শফী হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা ও আমির। দারুল উলুম মুঈনুল ইসলাম হাটহাজারী মাদরাসার মহাপরিচালক ও কওমি মাদরাসার সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা আল হাইয়াতুল উলইয়া লিল জামিয়াতিল কওমিয়া বাংলাদেশের চেয়ারম্যান।

শেয়ার করুন !
  • 4.6K
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply