প্রথমবার মন্ত্রী হয়ে যারা প্রধানমন্ত্রীর আস্থার প্রতিদান দিচ্ছেন

0

বিশেষ প্রতিবেদন:

টানা তিন মেয়াদে দেশ পরিচালনায় আছে আওয়ামী লীগ সরকার। এই সরকারের তৃতীয় মেয়াদে দেড় বছর পূর্ণ হলো। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এর আগের মেয়াদগুলোর চেয়ে এবারের মেয়াদে মন্ত্রিসভা সবচেয়ে বেশি চমকে ভরপুর। অধিকাংশ সিনিয়র নেতাদের তিনি এই মেয়াদে বসিয়ে রেখেছেন। মন্ত্রিসভায় এনেছেন একাধিক নতুন মুখ, যাদেরকে প্রথমবারের মতো মন্ত্রিসভায় সুযোগ দেয়া হয়েছে। অধিকাংশ নতুন মন্ত্রী এই সুযোগ হেলায় ন’ষ্ট করছেন। তবে এই ব্যর্থতার ভিড়ে প্রথমবার হওয়া কয়েকজন মন্ত্রী আলো ছড়িয়েছেন। বিশেষ করে করোনা সং’কটের সময় কয়েকজন মন্ত্রীর তৎপরতা জনগণের মধ্যে আশা জাগাচ্ছে। তাদের মধ্যে প্রচেষ্টা দেখা যাচ্ছে। আন্তরিকভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। এ রকম মন্ত্রীদের মধ্যে রয়েছেন-

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম

শ ম রেজাউল করিম প্রথমবার মন্ত্রিত্ব পেয়েছিলেন গৃহায়ন এবং গণপূর্ত মন্ত্রাণালয়ের। সেখানে তিনি যুগোপযোগী অনেক সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন, যা পুরোপুরি বদলে দেয় মন্ত্রণালয়ের অধীনস্ত সংস্থাগুলোকে। তারপর তাকে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেওয়া হয়। এখানেও তিনি নিজেকে মেলে ধরছেন। করোনার মধ্যে ডেইরি ও পোল্ট্রি শিল্পকে বাঁচাতে তার নেয়া উদ্যোগগুলো প্রশংসিত হয়েছে। ডিম, দুধ, মৎস্য খামারিদের প্রণোদনা দেওয়ার জন্য তিনি চেষ্টা করছেন। কাঁটাবন এলাকায় পশু-পাখির দোকানগুলোতে ব’ন্দি পশু-পাখিদের নিয়ে করুণ অবস্থার সৃষ্টি হলে তিনি নিজেই সেখানে গিয়ে আটকে পড়া পশু-পাখিদের খাবার দেওয়ার ব্যাপারে নির্দেশ দেন। মন্ত্রী তার সেক্টরে করোনায় ক্ষয়ক্ষ’তি ঠেকাতে সদা তৎপর। নিয়মিত কাজ করছেন এবং তার এই আন্তরিকতা ও তৎপরতা সাধারণ মানুষকে আশান্বিত করেছে।

যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল

জাহিদ আহসান রাসেল দীর্ঘদিন ধরে রাজনীতি করলেও তিনি এবারই প্রথম প্রতিমন্ত্রী হয়েছেন। আওয়ামী লীগের গত তিন মেয়াদে যত জন যুব ও ক্রীড় মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে ছিলেন, তাদের মধ্যে জাহিদ আহসান রাসেলই সম্ভবত সবচেয়ে বেশি কর্মতৎপর। প্রতিমন্ত্রী হয়েই তিনি তার দায়িত্বে থাকা প্রত্যেকটি বিষয় তদারকি করছেন। ক্রীড়া মন্ত্রণালয়কে তিনি একটি সচল মন্ত্রণালয় করার চেষ্টা করেছেন। করোনাকালে তাকে আরো উজ্জ্বল, প্রাণবন্ত এবং কর্মতৎপর প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দেখা গেছে।

জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন

ফরহাদ হোসেন অত্যন্ত মেধাবী। প্রথমবার মন্ত্রিত্বে এসেই তিনি জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের মতো একটি স্পর্শকাতর মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পেয়েছেন। তার মধ্যে কিছুতা জড়তা ও আড়ষ্ঠতা থাকলেও তিনি প্রমাণ করেছেন যে কাজের প্রতি তিনি আন্তরিক। করোনা পরিস্থিতিতেও তিনি সদা তৎপর।

নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী

খালিদ মাহমুদ চৌধুরী গত মেয়াদে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন। কিন্তু সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে তিনি যত না পরিচিতি পেয়েছেন, এবার নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী হিসেবে তিনি তার চেয়ে বেশি আলোচিত হচ্ছেন। তিনি ইতিমধ্যেই নিজেকে সফল হিসেবে প্রমাণ করেছেন। বিশেষ করে, নদীর অ’বৈধ উচ্ছেদ অভিযানে তার ভূমিকা বিভিন্ন মহলে প্রশংসিত হয়েছে। রাজনীতিতে যেমন তার একটা নীরবে নিভৃতে কাজ করার সুনাম রয়েছে, তেমনি সরকার পরিচালনায় তিনি নীরবে পরিচ্ছন্নভাবে কোনোরকম কালিমা ছাড়াই কাজ করে সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন।

সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ

সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এবার প্রথমবারের মতো মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পেয়েছেন। কিন্তু তার কাজে তিনি পরিপক্বতা দেখাচ্ছেন। সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী হিসেবে তিনি তৎপর। বেশ কিছু ভালো কাজ করেছেন তিনি। বিশেষ করে, দুঃস্থ শিল্পীদের প্রণোদনা এবং সাহায্য সহযোগিতার ব্যবস্থা করছেন তিনি। এটা নিঃসন্দেহে প্রশংসনীয় উদ্যোগ।

শেয়ার করুন !
  • 421
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!