‘ডিজলাইক’ আর গালিসূচক মন্তব্যে সয়লাব নোবেলের ‘তামাশা’

0

বিনোদন ডেস্ক:

‘তামাশা’ নামের একটি গানের জন্য নে’তিবাচক প্রচারণার আশ্রয় নেন গায়ক নোবেল। গানটিকে প্রচারে জোয়ার আনতে দেশের শীর্ষস্থানীয় ও গুণী শিল্পীদের নিয়ে করেছেন বিরূ’প মন্তব্য। বাংলাদেশের বন্ধুপ্রতিম রাষ্ট্র ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে নিয়ে অ’শিষ্ট মন্তব্য করায় সে দেশে হয়েছে তার নামে মামলা। ডাক পড়ে র‌্যাবের কার্যালয়েও। এসব কারনে শেষ পর্যন্ত ক্ষমাও চেয়েছিলেন নোবেল। শুধু তাই নয়, গানটিতে নিজের ৩য় স্ত্রীকে মডেল বানিয়েও জন্ম দিয়েছেন আলোচনার।

রবিবার ইউটিউবে প্রকাশ পেয়েছে ‘তামাশা’ শিরোনামের সেই গানটি। আজ মঙ্গলবার পর্যন্ত গানটি ভিউ হয়েছে ১০ লাখ ৯৫ হাজারেরও বেশি বার।

তবে শ্রোতা-দর্শকদের বেশিরভাগই নোবেলের প্রথম মৌলিক গানটি গ্রহণ করেননি। গানটিতে ৩২ হাজার লাইকের বিপরীতে পড়েছে প্রায় ৩ লাখ ডিজলাইক পড়েছে সেখানে!

‘তামাশা’ গানটি প্রকাশের সঙ্গে সঙ্গেই নেটিজেনরা ইউটিউবের কমেন্ট বক্স ভরিয়ে তুলেছেন নে’তিবাচক মন্তব্য এবং গা’লাগালে। সমালোচনা তো করেছেনই, পাশাপাশি দিয়েছেন ডিজলাইকও। লাইকের চেয়ে ৯ গুণ বেশি ডিজলাইক দেখা যাচ্ছে গানটিতে।

‘তামাশা’ গানটির কথা ও সুর করেছেন জিহান। সংগীত করেছে নোবেলম্যান টিম। মিক্স মাস্টারিং করেছেন ইমন চৌধুরী। ভিডিও নির্মাতা নাজমুল হাসান।

গানের প্রচারণায় অংশ নিয়ে নোবেল বলেছিলেন, তিনি সঙ্গীতের লেজেন্ডদের (কিংবদন্তী) শেখাবেন কীভাবে গান করতে হয়। এবার নোবেলের প্রথম মৌলিক গান শোনার পর এক শ্রোতা মন্তব্য করেছেন, নোবেলকে জাতীয় পা’গল ঘোষণা করা হোক।

প্রসঙ্গত, ভারতের একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলের সংগীতবিষয়ক রিয়্যালিটি শো-তে অংশ নেয়ার মাধ্যমে দুই বাংলার মানুষ জেনেছিল মাঈনুল আহসান নোবেল এর নাম। যদিও সেই অনুষ্ঠানেই তিনি তার গাওয়া গানে গীতিকার এবং সুরকারদের নাম উল্লেখ না করা, ভুল নাম বলাসহ বহু বিত’র্কের জন্ম দেন। দেশে ফিরে আসার পর অন্য নারীর সাথে বেশ কিছু ব্যক্তিগত ছবি প্রকাশ পায়। সেখানে অভিযোগ ছিল ওই নারীর সাথে সাথে প্র’তারণার।

সম্প্রতি, বিত’র্কিত বেশ কিছু মন্তব্য করে আলোচনার জন্ম দেন নোবেল। দেশের কিংবদন্তি শিল্পীদের নিয়ে ঔ’দ্ধত্যপূর্ণ মন্তব্য করেন। গত ২৫ মে নরেন্দ্র মোদিকে নিয়ে ফেসবুকে নেতিবাচক মন্তব্য করায় নোবেলের বিরু’দ্ধে মামলা করেন ত্রিপুরার বিলোনিয়ার সুমন পাল। স্থানীয় বিলোনিয়া থানায় নোবেলের বিরু’দ্ধে ভারতীয় দ’ণ্ডবিধির কয়েকটি ধারা এবং তথ্যপ্রযুক্তি আইনে মামলাটি করা হয়েছে।

শেয়ার করুন !
  • 86
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply