নালায় মশার ওষুধ ফেলায় কর্মচ্যুত ডিএসসিসির কর্মী

0

সময় এখন ডেস্ক:

মশা দম’নের জন্য আমদানিকৃত ওষুধ নালায় ফেলে দেওয়ার দায়ে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের এক অ’স্থায়ী মশক নিধ’ন কর্মীকে কর্মচ্যুত করা হয়েছে।

কর্মচ্যুত রাজন দাস নামের ওই ব্যক্তি ওয়ারির সিটি কলোনির বাসিন্দা। একই ঘটনায় দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মশক দম’ন কাজের সুপারভাইজার মনিরুজ্জামানকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছে।

গতকাল ৯ জুন, মঙ্গলবার ডিএসসিসির সচিব আকরামুজ্জান কর্তৃক স্বাক্ষরিত উক্ত আদেশ পত্রে বলা হয়, লার্ভিসাইডিংয়ের কীটনা’শক ড্রেনে ফেলে দেওয়ার মাধ্যমে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন তথা সরকারের সম্পদ ন’ষ্ট করার দায়ে রাজন দাসকে কর্মচ্যুত করা হল।

রাজন দাসের সুপারভাইজার মনিরুজ্জামানকে কারণ দর্শানোর নোটিশে বলা হয়েছে, গত ৭ জুন লালবাগের নবাবগঞ্জ পার্কে বছরব্যাপী সমন্বিত মশক নিধ’ন কার্যক্রম উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তাকে অঞ্চল-৩ এর ২৫ নম্বর ওয়ার্ডের নিধ’ন কার্যক্রম তদারকির দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু মনিরুজ্জামান লার্ভিসাইডিং কার্যক্রম তদারক না করে অ’প্রয়োজনে ২৩ নম্বর ওয়ার্ডে অবস্থান করেছেন।

নোটিশে আরও বলা হয়, মনিরুজ্জামানের অনুপস্থিতিতে রাজন দাস কীটনা’শক ড্রেনের পানিতে ফেলে দিয়ে কর্পোরেশনের ক্ষ’তি সাধন করেছেন। এ ঘটনায় রাজন দাসের বিরু’দ্ধে তাৎক্ষণিক কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। বিষয়টি কর্তৃপক্ষকে না জানিয়ে গোপন করেছেন। এতে আপনার দায়িত্ব পালনে অব’হেলার বিষয়টি স্পষ্ট হয়েছে।

এ ধরনের কর্মকাণ্ড সিটি কর্পোরেশনের চাকুরি বিধিমালা অনুযায়ী শা’স্তিযোগ্য অপরাধ বলে উল্লেখ করা হয়েছে চিঠিতে। এ কারণে মনিরুজ্জামানকে আগামী ৩ কার্যদিবসের মধ্যে কারণ দর্শাতে বলা হয়েছে।

শেখ ফজলে নূর তাপস গত ১৬ মে দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়রের দায়িত্ব নেওয়ার পরদিনই কর্পোরেশনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মো. আসাদুজ্জামান ও প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা ইউসুফ আলী সরদারকে দায়িত্বে অব’হেলার কারনে বরখা’স্ত করেন।

এর ৪ দিনের মাথায় রাজস্ব বিভাগের বাজার সার্কেল-৩ এর কর্মকর্তা আতাহার আলী খানকেও বরখা’স্ত করেন মেয়র ফজলে নূর তাপস।

এদিকে সিটি কর্পোরেশনের এমন ত্বরিৎ ব্যবস্তা গ্রহণের কারনে সাধুবাদ জানিয়েছেন ২৫ নম্বর ওয়ার্ডের সাধারণ জনগণ।

শেয়ার করুন !
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!