রোগীদের বিনামূল্যের ওষুধ বাইরে বেচে দেয়া নার্স আটক

0

সময় এখন ডেস্ক:

দীর্ঘদিন ধরেই অভিযোগ ছিল হাসপাতালে রোগীদের জন্য বরাদ্দকৃত বিনামূল্যের ও’ষুধ বাইরে ফার্মেসিতে বিক্রি হয়ে যাচ্ছে। এবার পাচা’রকালে ধরা পড়লেন এক সিনিয়র স্টাফ নার্স। ঘটনাস্থল শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউট।

গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদুল্লাহ হল গেটের সামনে থেকে হাতেনাতে বমাল ওই নার্সকে আটক করে সিটি এনএসআই।

জানা যায়, বার্ন ইউনিটের রোগীদের বিনামূল্যে দেওয়া ও’ষুধ হাতিয়ে নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই খোলা বাজারে বিক্রি করে আসছিল একটি চক্র। এদের ধরতে বেশকিছু দিন ধরেই চেষ্টা চালিয়ে আসছিল সিটি এনএসআই।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে শহীদুল্লাহ হল গেটের সামনে থেকে আটক করা হয় হাসপাতালটির জরুরি বিভাগের সিনিয়র নার্স তপন কুমার বিশ্বাসকে। তার কাছ থেকে এ সময় প্রায় ২৫ হাজার টাকা মূল্যের ও’ষুধ উদ্ধার করা হয়। যা হাসপাতালের রোগীদের বিনামূল্যে সরবরাহের কথা ছিল।

আটক তপন কুমার বিশ্বাসকে জিজ্ঞাসা’বাদ শেষে শাহবাগ থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

জেনে রাখুন, মাস্ক ব্যবহারের সঠিক নিয়ম ও সাবধানতা

সঠিকভাবে মাস্ক ব্যবহার অত্যন্ত জরুরি। মাস্ক ব্যবহারের সঠিক নিয়মগুলো জানিয়েছেন ঢাকা শিশু হাসপাতালের শিশু বক্ষব্যাধি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. সারাবন তহুরা।

১. এন-৯৫ বা সমমানের মাস্ক শুধু হাসপাতালে চিকিৎসা কাজে নিয়োজিত চিকিৎসক, সেবিকা, স্বাস্থ্যকর্মী বা অন্য সহযোগীদের ব্যবহারের জন্য। দৈনন্দিন অন্যান্য কাজে এ মাস্ক পরিধান করলে অস্বস্তি এমনকি শ্বাসক’ষ্ট বা স্বাস্থ্য ঝুঁ’কিতে পড়ার সম্ভাবনা থাকে। তাই অন্যান্য যে কোনো কর্মক্ষেত্রে, ঘরে বা ঘরের বাইরে কাপড়ের তৈরি বা স্বাস্থ্যসম্মত অন্যান্য সার্জিকাল মাস্ক ব্যবহার করুন।

২. মাস্ক পরার আগে হাত ভালোভাবে সাবান পানি দিয়ে কমপক্ষে ২০ সেকেন্ড ধুয়ে পরিষ্কার করে নিন।
৩. মাস্কটি সতর্কতার সঙ্গে এমনভাবে পরুন যেন তা সম্পূর্ণভাবে নাক ও মুখ ঢেকে রাখে এবং এমনভাবে বাঁধুন যেন মুখ ও মাস্কের মাঝে কোনো ফাঁকা না থাকে।

৪. মাস্কটি পরিহিত অবস্থায় তা হাত দিয়ে স্পর্শ করা থেকে বিরত থাকুন।
৫. ফোনে কথা বলার সময় বা কারও সঙ্গে কথা বলার সময় মাস্কটি নাক ও মুখ থেকে নিচে নামিয়ে রাখবেন না। মনে রাখবেন মাস্ক পরে কথা বলা কোনো অ’ভদ্রতা বা অ’শোভন ব্যবহার নয়। এটা আপনার সুরক্ষার জন্য অত্যন্ত প্রয়োজনীয়।
৬. কোনো কারণে পরিহিত মাস্কটি ভিজে গেলে বা অ’পরিষ্কার হয়ে গেলে তা খুলে ফেলে সঙ্গে সঙ্গে আর একটি পরিষ্কার মাস্ক পরিধান করুন।

৭. মাস্ক পরিধান বা খোলার সময় মাস্কের দুই পাশের ফিতা/ইলাস্টিকটি ব্যবহার করুন, কখনই মাস্কের সামনের অংশ স্পর্শ করবেন না।
৮. পরিহিত অবস্থায় মাস্কের সামনের অংশে হাতের স্পর্শ লাগলে এবং মাস্ক খোলার পর সাবান পানি দিয়ে অন্তত ২০ সেকেন্ড ধরে হাত ভালোভাবে ধুয়ে নিন।

৯. সিঙ্গেল ইউজ সার্জিকাল মাস্ক ব্যবহার করলে তা খোলার সঙ্গে সঙ্গে ঢাকনা দেওয়া ময়লা ফেলার পাত্রে ফেলে দিন। কাপড়ের মাস্ক ব্যবহারের পর ৩০ মিনিট সাবান পানিতে ভিজিয়ে রেখে তা ভালোভাবে ধুয়ে ও শুকিয়ে নিয়ে পুনরায় ব্যবহার করতে পারেন।

১০. ২ বছরের কম বয়সের শিশুকে মাস্ক পরালে সর্বদা সতর্ক দৃষ্টি রাখুন। শিশুর অ’স্বস্তিবোধ হচ্ছে দৃষ্টিগোচর হলেই মাস্কটি সরিয়ে ফেলুন।
মনে রাখবেন সঠিকভাবে মাস্ক পরিধান করলেও কোভিড-১৯ থেকে সুরক্ষিত থাকতে শারীরিক দূরত্ব মেনে চলতে হবে।

শেয়ার করুন !
  • 561
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!