আমেরিকান পুলিশ ৯৯ ভাগই ভদ্র: ট্রাম্প

0

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

রাজপথের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে যুক্তরাষ্ট্রের পুলিশি আচরণের সংস্কারের জন্য ডেমোক্রেটরা কংগ্রেসে ‘জাস্টিস ইন পুলিশিং অ্যাক্ট ২০২০’ শিরোনামে বিল উত্থাপনের দিনই প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বললেন, ‘পুলিশ কর্মকর্তাদের ৯৯ ভাগই খুবই ভদ্র এবং দায়িত্বের প্রতি নিষ্ঠাবান।’ ট্রাম্পের আইনমন্ত্রী বিল বার বললেন, ‘গুটিকয় দু’ষ্ট কর্মকর্তার জন্য সবাইকে অভিযুক্ত করার অবকাশ নেই।’

অর্থাৎ, জাতীয় পর্যায়ে গড়ে ওঠা একটি দুর্বার আন্দোলনের প্রতি ন্যূনতম শ্রদ্ধা জানানোর মনোভাব দেখা গেল না ট্রাম্পের মধ্যে। তবে তার রিপাবলিকান পার্টির অনেক সিনেটর ও কংগ্রেসম্যান জনতার আন্দোলনের সঙ্গে ইতিমধ্যে ঐকমত্য পোষণ করেছেন। কেউ কেউ পুলিশি ব’র্বরতা এবং ব’র্ণবাদবিরো’ধী মিছিলেও শরিক হয়েছেন।

উল্লেখ্য, ২৫ মে মিনেসোটা স্টেটের মিনিয়াপলিস সিটির একটি স্টোরে ২০ ডলারের জালনোট দিয়ে কিছু কেনার অভিযোগে সেখানকার পুলিশ গ্রেপ্তার করে ৪৬ বছর বয়সী জর্জ ফ্লয়েডকে। হাতকড়া পরানোর পর ফ্লয়েডকে রাস্তায় ফেলে দিয়েই তার ঘাড়ে হাঁটু চাপা দিয়ে প্রকাশ্য দিবালোকে হ’ত্যা করা হয়। ঘটনাটি পরদিন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম হয়ে শীর্ষস্থানীয় গণমাধ্যমে প্রচার ও প্রকাশের পর আমেরিকাজুড়ে তুমুল আন্দোলন গড়ে ওঠে।

চতুর্দশতম দিবস অর্থাৎ ৮ জুনেও অর্ধশত সিটিতে পুলিশের ওই ঘটনার নি’ন্দা, প্রতিবাদ এবং পুলিশি আচরণ ঢেলে সাজানোর দাবিতে স্লোগান অ’ব্যাহত রয়েছে। পুুলিশ বাহিনী ভেঙে দেওয়া অথবা বাজেট কমিয়ে দেওয়ার স্লোগানও উঠেছে। যুক্তরাষ্ট্রে চলমান এই ব’র্ণবাদবিরো’ধী আন্দোলন ছড়িয়ে পড়েছে সারা বিশ্বে। ফ্রান্স, যুক্তরাজ্য, বেলজিয়াম, স্পেন, অস্ট্রেলিয়াসহ বিভিন্ন দেশে মিছিল ও বিক্ষো’ভ করছে জনতা।

আর আমেরিকায় পুলিশের ব’র্বরতা, অ’সদাচরণ রুখে দেওয়া, ঘাড়ে চাপপ্রয়োগ নিষি’দ্ধ করাসহ নাগরিক অধিকার ভঙ্গের ক্ষেত্রে জবাবদিহিতা ও বিচারের পথ সুগম করতে ‘জাস্টিস ইন পুলিশিং অ্যাক্ট ২০২০’ শীর্ষক এ বিল এনেছে ডেমোক্রেটরা।

এদিকে, আমেরিকার সমাজে ‘ব’র্ণবাদের বিষ’ ছড়িয়ে গেছে মন্তব্য করে সিনেট সংখ্যালঘিষ্ঠ নেতা চাক শুমার এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, আইনটিকে বাস্তবে রূপ দিতে সিনেটের ডেমোক্রেটরা সর্বশক্তি দিয়ে ল’ড়বে।

এদিকে, এই হ’ত্যা মামলার প্রধান অভিযুক্ত পুলিশ কর্মকর্তা ডেরেক চৌবিনকে (৪৪) সোমবার মিনিয়াপলিস কোর্টে হাজির করা হয় ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে। এটি ছিল তার মামলার প্রথম শুনানির দিন। দীর্ঘ ১৮ বছরের পুরনো এই পুলিশ কর্মকর্তাকে উদ্দেশ্যহীনভাবে ফ্লয়েডকে হ’ত্যার দ্বিতীয় ডিগ্রির অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। দোষী সাব্যস্ত হলে ৪০ বছরের কারাদ’ন্ড হবে। সংক্ষি’প্ত এ শুনানিকালে বিচারক জিনিস রেডিং তাকে সোয়া মিলিয়ন ডলার বন্ডে জামিনের নির্দেশ দেন। যা এর আগে ছিল ৫ লাখ ডলার। মামলার অভিযোগ গুরুতর হওয়ায় জামিনের অর্থের পরিমাণ দ্বিগুণ করা হলো।

এই মামলার আসামি অপর ৩ পুলিশ কর্মকর্তার জন্যও মিলিয়ন ডলার ধার্য করা হয়েছে জামিনের জন্য। চৌবিনের পক্ষে আদালতে ছিলেন অ্যাটর্নি ইরিক নেলসন। মামলার পরবর্তী তারিখ ২৯ জুন বেলা দেড়টায়।

এদিকে, মিশিগানের ডেট্রয়েট সিটি থেকেও ৮ জুন কার্ফিউ প্র’ত্যাহারের ঘোষণা দেন মেয়র মাইক ডোগান। এ সিটিতেও বিক্ষো’ভের সময় অগ্নিসংযোগ, ভা’ঙচুর এবং লু’টতরাজের ঘটনা ঘটেছিল। ৫ শতাধিক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে কদিনের কর্মসূচির সময়।

ফ্লয়েডকে সমাহিত করা হচ্ছে মঙ্গলবার দুপুরের পর টেক্সাসের হিউস্টন সিটিতে মায়ের কবরের পাশেই। এ উপলক্ষে সোমবার সারাদিনই তার কফিন ওপেন করা ছিল সর্বসাধারণের শ্রদ্ধা প্রদর্শনের জন্য। ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রেসিডেন্ট প্রার্থী জো বাইডেনও গিয়েছিলেন কফিনে শ্রদ্ধা জানাতে। এর আগে তিনি ফ্লয়েডের পরিবারের সঙ্গে ঘণ্টাখানেক কথা বলে তাদের সান্ত্বনা দিয়েছেন এবং আর কোনো ফ্লয়েড যাতে এভাবে পুলিশি ব’র্বরতার শি’কার না হয় সে ব্যাপারে ডেমোক্রেটরা পুলিশি আইন সংস্কারে বদ্ধপরিকর বলে উল্লেখ করেন বাইডেন। এ দিন হাজার হাজার শোকার্ত মানুষ এসেছিলেন শ্রদ্ধা জানাতে।

গত কয়েক বছরে পুলিশি ব’র্বরতায় নিহ’ত কৃষ্ণাঙ্গদের স্বজনরাও এসেছিলেন সহমর্মিতা জানাতে এবং চলমান আন্দোলনের সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করতে।

শেয়ার করুন !
  • 63
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply