যে কারনে ব্রিজের ওপর বসে কাঁদছে কুকুরটি! (ভিডিও)

0

বিশ্ব বিচিত্রা ডেস্ক:

কখনো হাতি, কখনো গরু, কখনো কুকুর বা শিয়াল- পশুদের উপর মানুষের অত্যা’চারের যেন প্রতিযোগিতা চলছে। এই পরিস্থিতিতে একটি কুকুরের কাহিনী আবার যেন বলে দিতে চায়, ওদের মতো বন্ধু কে আছে? কুকুরদের নিয়ে এমন কথা অবশ্য বারেবারেই শোনা যায়। সেই কথা যে খুব একটা ভুল নয়, তার প্রমাণ বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাসের সময়ও বারবার বোঝা যাচ্ছে।

এবারের ঘটনা অবশ্য করোনা ভাইরাসের আঁতুড়ঘর চীনের উহানে। ব্রিজ থেকে নদীতে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহ’ত্যা করেছিলেন মনিব। সেই ঘটনা নিজের চোখেই দেখেছে কুকুরটি। সেই বন্ধু হারানোর ঘটনা দেখে যেন থমকে গেছে এই পোষ্য। মনিব আর ফিরবে না বুঝেও দিনের পর দিন ওই ব্রিজের উপরই বসে আছে কুকুরটি। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, কুকুরটির চোখে পানিও দেখেছেন তারা।

ঘটনাটির ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গেছে। যা দেখে কেঁদে উঠেছেন নেটপাড়ার বাসিন্দারাও। স্থানীয় এক বাসিন্দা কুকুরটিকে বেশ কয়েকদিন বসে থাকতে দেখে তাকে খাবার-পানি দেয়। কিন্তু পোষ্যটি তা ছুঁয়েও দেখেনি। এমনকি তাকে ওই বাসিন্দা বাড়ি নিয়ে গেলেও সেখানে থাকেনি। ফিরে এসেছে সেই ব্রিজের উপর। তাকিয়ে রয়েছে নদীর দিকে, যেখানে মনিবকে ঝাঁপ দিতে দেখেছে।

স্থানীয় পুলিশ জানিয়েছে, ৩০ মে এক অ’জ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তির ডেডবডি মিলেছে নদীতে। যদিও পুলিশ ও উদ্ধারকর্মীদের ভিড় ও তোড়জোড় দেখে সরে গিয়েছে কুকুরটি। তাকে খুঁজে বের করার চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ।

মনিবের জন্যে পোষ্য কুকুরের এই প্রেম অবশ্য নতুন নয়। হাচিকোর কথা মনে আছে? জাপানের সেই আকিতা প্রজাতির কুকুর, যে রেল স্টেশনের বাইরে মনিবের অপেক্ষায় কাটিয়ে দিয়েছিল কয়েক বছর। কিন্তু মনিবের মৃ’ত্যু হওয়ায় হাচিকোর অপেক্ষা আর শেষ হয়নি। চীনেও এর আগে ঘটেছে এমনই ঘটনা। গাড়ি দুর্ঘটনায় মনিবের মৃ’ত্যুর পর ৮০ দিনের বেশি সেই জায়গাতেই তার পথ চেয়ে অপেক্ষায় ছিল পোষ্য কুকুর।

কিছুদিন আগে আরেকটি ঘটনা ঘটেছে সেই চীনেই। মনিব করোনার চিকিৎসাধীন ছিলেন হাসপাতালে, সেখানেই তার মৃ’ত্যু হয়। তবুও প্রায় আড়াই মাস সেখানেই অপেক্ষায় ছিল কুকুরটি। আবার সেই চীনেই ঘটল একই ধরনের ঘটনা।

শেয়ার করুন !
  • 66
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply