নাটোরে ধ’র্ষিত প্রবাসীর স্ত্রীকে লাখ টাকা জরি’মানা করল চেয়ারম্যান-মাতবররা!

0

নাটোর প্রতিনিধি:

নাটোরে এক প্রবাসীর স্ত্রীকে ধ’র্ষণের ঘটনায় উল্টো ভিক্টিমকেই ১ লাখ টাকা জরি’মানা করার অভিযোগ উঠেছে সদর উপজেলার ৭নং তেবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ওমর আলী ও গ্রাম্য মাতবরদের বিরু’দ্ধে।

মঙ্গলবার রাতে নাটোর সদর উপজেলার তেবাড়িয়া ইউনিয়নের বালিয়াডাঙ্গা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে বলে জানা গেছে। এ সময় সালিশে আসতে দেরি করায় প্রবাসীর শ্বশুরকেও ১ হাজার টাকা জরি’মানা করা হয়।

নাটোর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহাঙ্গীর আলম জানান, গত ২৯ মে তেবাড়িয়া ইউনিয়নের বালিয়াডাঙ্গা গ্রামের এক গৃহবধূকে ধ’র্ষণের সময় তার চিৎকারে অভিযুক্ত অমর কুমারকে ধরে ফেলে এলাকাবাসী। পরে তাকে পুলিশে সোপর্দ করলে গত ৩০ মে নাটোর সদর থানায় তাকে আসামি করে মামলা করা হয়। পুলিশ অমরকে জেলে পাঠায়।

তিনি আরও জানান, ওই ঘটনার প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার রাতে গ্রামে সালিশ ডেকে ওই নারীকে ১ লাখ টাকা জরি’মানা করা হয়। এ সময় সালিশে আসতে দেরি করায় তার বাবাকেও ১ হাজার টাকা জরি’মানা করেন চেয়ারম্যান ওমর আলী এবং অন্যান্য গ্রাম্য মাতবররা।

ওসি জানান, সংবাদ পেয়ে রাত ১১টার দিকে বালিয়াডাঙ্গা গ্রামে অভিযান চালিয়ে রুহুল আমিন ও সোবহান আলী নামে দুই মাতবরকে আটক করা হয়েছে।

নাটোরের পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা বলেন, রাতে সংবাদ পেয়ে অভিযুক্ত গ্রাম্য মাতবরদের আটক করে আনা হয়। এ ধরনের অপরাধে সালিশ করার এখতিয়ার কারো নেই। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত চেয়ারম্যান ওমর আলী মোবাইল ফোনে বলেন, সেই নারীর অপরাধের কারণে তার দুবাই প্রবাসী স্বামী ১ লাখ টাকা জরি’মানা দিতে চান। সেই টাকার কথাই সালিশে বলা হয়েছে।

এদিকে এ বিষয়ে কথা বলার জন্য ওই নারী এবং তার পরিবারের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তারা এ বিষয়ে কিছুই বলতে চান না বলে এড়িয়ে যান।

শেয়ার করুন !
  • 460
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!