এই করোনাকালেও থেমে নেই ষড়’যন্ত্র!

0

বিশেষ প্রতিবেদন:

বাংলাদেশ এখন ব্যস্ত করোনা মোকাবেলায়। করোনায় একদিকে যেমন জনস্বাস্থ্যের সং’কট দেখা দিয়েছে, অন্যদিকে অর্থনৈতিক সং’কটের চ্যালেঞ্জ সামনে চলে এসেছে। আর এতে এইসব সং’কট মোকাবেলায় সরকার এখন ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছে। অন্যদিকে নজর দেওয়ার ফুসরত পর্যন্ত নেই। আর এই সুযোগে সরকার বিরো’ধী এবং দেশবিরো’ধী ষড়’যন্ত্রকারীরা নতুন করে ষড়’যন্ত্র শুরু করেছে বলে একাধিক সূত্রের খবর।

এই ষড়’যন্ত্রগুলো করা হচ্ছে যাতে সরকার দেশে-বিদেশে জনপ্রিয়তা হারায়, সরকারের ভাবমূর্তি ন’ষ্ট হয়। এছাড়া দেশে এবং আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে বাংলাদেশের ভাবমূর্তিও যেন ন’ষ্ট হয়। ষড়’যন্ত্রকারীদের মূল লক্ষ্য হলো আওয়ামী লীগ তথা শেখ হাসিনাকে ক্ষমতা থেকে সরিয়ে দেয়া। এই উদ্দেশ্য বাস্তবায়নের জন্য তারা মিথ্যাচার, গুজব এবং নানারকমের অপ’প্রচারের আশ্রয় নিচ্ছে বলেও জানা গেছে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যেমন এই মিথ্যাচার ছড়িয়ে জনগণকে সরকারের বিরু’দ্ধে ক্ষে’পিয়ে তোলা হচ্ছে, তেমনি বিভিন্ন আন্তর্জাতিক অঙ্গনেও সরকারের বিরু’দ্ধে নানারকম অসত্য, বিভ্রা’ন্তিকর, মিথ্যা তথ্য উপস্থাপন করা হচ্ছে, যাতে করে আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে বাংলাদেশের যে ভাবমূর্তি এবং বাংলাদেশ সম্পর্কে নে’তিবাচক ধারণা তৈরী হয়। অনুসন্ধানে দেখা যাচ্ছে, করোনা সং’কটের সুযোগ নিয়ে যারা ষড়’যন্ত্র করছেন তাদের মধ্যে রয়েছে-

ড. মোহাম্মদ ইউনূস

ড. মোহাম্মদ ইউনূস বিভিন্ন আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে করোনা মোকাবেলায় বাংলাদেশের নানারকম ব্যর্থতা নিয়ে কথাবার্তা বলছেন। সরকার দায়িত্ব পালন করতে পারছে না, সরকারের প্রস্তুতির অভাব এবং সরকার করোনা মোকাবেলায় যে সমস্ত কাজগুলো করেছে, সেই সমস্ত কাজগুলোর কী কী ভুলভ্রা’ন্তি, সেই ছিদ্র অন্বেষণে ব্যস্ত। উল্লেখ্য, ড. মোহাম্মদ ইউনূসের সঙ্গে একাধিক দেশের কূটনীতিক বাংলাদেশের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে কথা বলেছে, তার মতামত নিয়েছে এবং সব জায়গায় তিনি বাংলাদেশের গৃহীত পদক্ষেপ নিয়ে নে’তিবাচক মন্তব্যই করেছেন।

সুরেন্দ্র কুমার সিনহা

করোনা সং’কটের সময়েও সাবেক প্রধান বিচারপতি এবং বর্তমানে রাজনৈতিক আশ্রয় চেয়ে নিউইয়র্কে অবস্থানরত সুরেন্দ্র কুমার সিনহা থেমে নেই। তিনি সংখ্যা-লঘুদের ইস্যু নিয়ে নতুন ষড়’যন্ত্র করছেন বলে আমাদের হাতে তথ্য এসেছে। কারণ করোনা সং’কটের সময় সুরেন্দ্র কুমার সিনহা একাধিক দেশে বাংলাদেশের সংখ্যা-লঘুরা নির্যা’তিত হয়, সংখ্যা-লঘুদের ঠিকমতো চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে না- এই ধরণের উদ্ভট, বিভ্রা’ন্তিমূলক তথ্য ছড়াচ্ছেন এমন তথ্য প্রমাণ পাওয়া গেছে। সাম্প্রতিক সময়ে সুরেন্দ্র কুমার সিনহা একটি তথাকথিত অললাইন টেলিভিশনের সাক্ষাতকারে বলেছেন, করোনার এমন সময় সংখ্যা-লঘু সম্প্রদায় সুরক্ষিত নয়। এই ধরণের দায়িত্বজ্ঞানহীন মন্তব্য করে একটি মহলের মধ্যে উ’স্কানি ছড়ানোই তার মূল লক্ষ্য বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

ডেভিড বার্গম্যান

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ও গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেনের জামাতা ডেভিড বার্গম্যান শুরু থেকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বাংলাদেশ নিয়ে ষড়’যন্ত্র করছেন এবং সেই ধারা অ’ব্যাহত রয়েছে। ডেভিড বার্গম্যানের উদ্যোগেই ইউরোপের একটি দেশে একটি অনলাইন পোর্টাল কাজ করছে বলে জানা গেছে। সেখানে তার একমাত্র লক্ষ্য হলো সরকারের বিরু’দ্ধে নানারকম কু’ৎসিত অপ’প্রচার করা।

ব্যারিস্টার আব্দুর রাজ্জাক

সম্প্রতি ব্যারিস্টার আব্দুর রাজ্জাকের পৃষ্ঠপোষকতায় জামাতের একটি অংশ নিয়ে নতুন একটি রাজনৈতিক দল গঠিত হয়েছে। এই দলটি গোপনে আস্তে আস্তে সংগঠিত হচ্ছে। এদের মূল লক্ষ্য হলো আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে যে অ’সাম্প্রদায়িক রাজনৈতিক ধারা সূচিত হয়েছে সেটাকে বানচাল করা। সরকারের বিরু’দ্ধে রাজনৈতিক ষড়’যন্ত্রের জাল বিস্তার করা। দলটির প্রকাশ্য তৎপরতা না থাকলেও গোপনে গোপনে তারা নানারকম সন্দেহজনক তৎপরতার সঙ্গে যুক্ত বলেই তথ্য পাওয়া যাচ্ছে।

আর সরকারকে একদিকে যেমন করোনা মোকাবেলা করতে হচ্ছে, অন্যদিকে এইসমস্ত ষড়’যন্ত্রগুলোর দিকে নজর দেওয়া দরকার বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। কারণ এই ষড়’যন্ত্র শুধু দেশের বাইরেই ঘটছে না, সরকারের ভেতরের অনেক মহলের সঙ্গেও তাদের গোপন যোগসাজশের খবর পাওয়া যাচ্ছে। এসব যোগসাজশের ফলে ভবিষ্যতে সরকারের ভেতর থেকেও অনেক ষড়’যন্ত্রের জাল বিস্তার হতে পারে বলেও অনেকে আশ’ঙ্কা করছেন।

বাংলাইনসাইডার

শেয়ার করুন !
  • 1.7K
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!