২৪ ঘণ্টার মধ্যে ওয়েব সিরিজের ‘ওইসব দৃশ্য’ সরাতে সরকারকে নোটিশ!

0

আইন আদালত ডেস্ক:

সিনেমা বা নাটকের ধারায় নির্মাণ করে দেশের বিভিন্ন অনলাইন প্ল্যাটফর্ম ও ইউটিউবে পরিবেশিত ওয়েব সিরিজগুলোর আপ’ত্তিকর দৃশ্য সরিয়ে ফেলতে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সচিবসহ সংশ্লিষ্টদের আইনি (লিগ্যাল) নোটিশ পাঠানো হয়েছে। একইসঙ্গে ওয়েববেজড সম্প্রচার নিয়ন্ত্রণে পৃথক কোনো নীতিমালা তৈরি করা হবে না কি না, তা আগামী ৭ দিনের মধ্যে জানাতে বলা হয়েছে।

রোববার (১৪ জুন) ই-মেইল মারফত এ নোটিশ পাঠান সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মো. তানভীর আহমেদ। অ’শ্লীলতা, বে’হায়াপনা এবং বেলে’ল্লাপনা’র দৃশ্য সরিয়ে সমাজের উঠতি বয়সীদের রক্ষার্থে জনস্বার্থে এ নোটিশ দেয়া হয়েছে জানিয়ে আইনজীবী তানভীর বলেন, আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে এসব দৃশ্য না সরালে সংশ্লিষ্টদের বিরু’দ্ধে আইনি প্রতিকার চেয়ে রিট আবেদন করা হবে।

তথ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব ছাড়াও নোটিশের বি’বাদীরা হলেন— স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব, বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) চেয়ারম্যান ও পরিচালক, পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) এবং সিআইডির সাইবার পুলিশ ব্যুরোর অতিরিক্ত উপ-মহাপরিদর্শক (ডিআইজি)।

নোটিশে বলা হয়েছে, উপযুক্ত পর্যবেক্ষণ বা সরকারের সঠিক তত্ত্বাবধান ও নিয়ন্ত্রণ না থাকায় ইউটিউবে বা অনলাইন প্ল্যাটফর্মে দেশীয় সিনেমা এবং ওয়েব সিরিজগুলোতে আপ’ত্তিকর দৃশ্য দিন দিন বেড়েই চলেছে এবং সেসব দৃশ্য জনসম্মুখে তুলে ধরা হচ্ছে। যা দেশীয় সংস্কৃতির বিরো’ধী ও প’র্নগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইন অনুসারে ফৌজদারি অপরাধ। এছাড়া ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনেরও পরি’পন্থী।

আইনজীবী তানভীর আহমেদ বলেন, সম্প্রতি বাংলাদেশে ভিডিও প্রোভাইডারদের অন্যতম প্ল্যাটফর্ম বিং এবং ইউটিউবে ওয়েব সিরিজ ‘বুমেরাং’ ও ‘আগস্ট ১৪’ প্রচার হয়েছে, যেখানে আপ’ত্তিকর দৃশ্য দেখা গেছে। এমনকি এসব ওয়েব সিরিজে সিগারেট কিংবা অ্যালকোহলের দৃশ্য পরিবেশনের সময় কোনো প্রকার সতর্কতামূলক বাণীও প্রচার করা হয়নি। তাই এসব ভিডিও প’র্নগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইন, ২০১২ এবং ডিজিটাল সিকিউরিটি অ্যাক্ট, ২০১৮-এর স্পষ্ট ল’ঙ্ঘন, যা কি না আমাদের দেশের সংস্কৃতি এবং সামাজিক নিয়ম শৃঙ্খলার জন্যও হুম’কিস্বরূপ। তাই ‘ওইসব দৃশ্য’ সরিয়ে ফেলতে হবে।

নোটিশ পাওয়ার ২৪ ঘণ্টার মধ্যে অনলাইন প্ল্যাটফর্ম থেকে সিনেমা-ওয়েব সিরিজের আপ’ত্তিকর ভিডিও সরিয়ে ফেলতে বলা হয়েছে। একইসঙ্গে ওয়েববেজড সম্প্রচার নিয়ন্ত্রণে কেন পৃথক একটি নীতিমালা তৈরি করা হবে না, তা আগামী ৭ দিনের মধ্যে নোটিশগ্রহীতাদের জানাতে বলা হয়েছে। অন্যথায় এ বিষয়ে যথাযথ আইনি পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে বলেও নোটিশে উল্লেখ করা হয়েছে।

শেয়ার করুন !
  • 27
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply